Saturday, January 13th, 2018
অবশেষে ঢাকা ছাড়লেন মাওলানা সা’দ কান্ধলভি
January 13th, 2018 at 2:09 pm
অবশেষে ঢাকা ছাড়লেন মাওলানা সা’দ কান্ধলভি

ঢাকা: অবশেষে বিশ্ব তাবলিগ জামাতের আমির ও দিল্লির মুরুব্বি মাওলানা সা’দ কান্ধলভী দেশে ফিরে গেলেন। শনিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটে জেট এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে সফরসঙ্গীদের নিয়ে ঢাকা ছাড়েন তিনি।

বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে গত বুধবার ঢাকায় আসেন মাওলানা মোহাম্মদ সাদ। কিন্তু বিতর্কিত ও আপত্তিকর মন্তব্যের কারণে সমালোচিত মাওলানা সাদ ওই দিনই বিমানবন্দরে তাবলিগ জামায়াতের একাংশ ও আলামা-ওলামাদের বিক্ষোভ মুখে পড়েন। মাওলানা সাদ কান্ধলভী তার নিজের বিতর্কিত বক্তব্য প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত তাকে ইজতেমা ময়দানে যেতে দেয়া হবে না বলে জানান বিক্ষোভকারীরা। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তায় ওই দিন বিকেলে তাকে কাকরাইলে নেয়া হয়। শুক্রবার তিনি এই মসজিদে জুমার নামাজে বয়ান করেন।

এ দিকে বিশ্ব ইজতেমার বাইরে মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে নিয়ে বিতর্ক থাকলেও ইজতেমা ময়দানে এর কোনো প্রভাব পড়তে দেখা যায়নি। মাওলানা সাদকে কেন্দ্র করে বাইরে সৃষ্ট বিতর্ক ও উত্তেজনা ইজতেমা ময়দানের ভেতরে মুসল্লিদের মাঝে কোনো প্রভাব ফেলেনি। আগত মুসল্লিদের যার যার মত নামাজ আদায়, বয়ান শোনা ও ধর্মীয় কাজে মগ্ন থাকতে দেখা গেছে। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত ইজতেমায় মুসল্লিদের আগমন অব্যাহত রয়েছে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার কাকরাইল মসজিদে মাওলানা সা’দ জুমার বয়ান দেন এবং নামাজ পড়ান। বয়ানে তিনি হযরত মুসা (আ.)-কে নিয়ে ছাড়াও তার অতীতে দেওয়া বক্তব্যের জন্য ভুল স্বীকার ও ক্ষমা চান।

উর্দুতে দেওয়া বয়ানে মাওলানা সা’দ বলেন, ‘ওলামায়ে-কেরাম যদি কোনো কারণে ভুল ধরেন, আমরা মনে করব- ওনারা আমাদের ওপর এহসান করেছেন। তারা যে কথা বলবেন, তাতে আমাদের সংশোধন হবে ইনশাআল্লাহ।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের কাজ হলো বয়ান করা। বয়ানে অনেক সময় ভুল হয়ে যায়। আমি সবার সামনে রুজু করেছি। কোনো কথায় যদি দোষ হয়, এটা থেকে আমি রুজু করতেছি, আগেও করেছি, এখনো করছি।’

টঙ্গীর তুরাগ তীরে গত ১২ জানুয়ারি থেকে তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা প্রথম পর্ব শুরু হয়েছে। আখেরি মোনাজাত হবে আগামীকাল রোববার।

উল্লেখ্য, ভারতের দিল্লির মাওলানা মুহাম্মদ ইলিয়াস কান্ধলভী (রহ.) ১৯২০ সালের দিকে তাবলিগ জামাতের সূচনা করেন। এর মূল মারকাজ দিল্লিতে। মাওলানা ইলিয়াস (রহ.)-এর মৃত্যুর পর তার ছেলে মাওলানা মোহাম্মদ ইউসুফ নেতৃত্বে আসেন। তার মৃত্যুর পর সম্প্রতি ইউসুফের ছেলে মাওলানা সা’দ কান্ধলভী আমির হন।

তিনি ১৯৮৯ সাল থেকে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় আসা শুরু করলেও বয়ান শুরু করেন ১৯৯৬ সাল থেকে। আর গত দুই বছর তিনি আম বয়ানের পাশাপাশি আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন, সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

টেকনাফে ৯ লাখ পিছ ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফে ৯ লাখ পিছ ইয়াবা উদ্ধার


বিচার করার এখতিয়ার নেই আইসিসি’র: মিয়ানমার

বিচার করার এখতিয়ার নেই আইসিসি’র: মিয়ানমার


ট্রেনে ‘নির্বাচন যাত্রা’য় আওয়ামী লীগ

ট্রেনে ‘নির্বাচন যাত্রা’য় আওয়ামী লীগ


খালেদা জিয়াকে হত্যার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল

খালেদা জিয়াকে হত্যার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল


শ্রীনগরে পুলিশের ‘চেকপোস্টে হামলা’, ২ জন নিহত

শ্রীনগরে পুলিশের ‘চেকপোস্টে হামলা’, ২ জন নিহত


আইসিসিতে মিয়ানমারের বিচারের পথ খুলল

আইসিসিতে মিয়ানমারের বিচারের পথ খুলল


আকাশবীণা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আকাশবীণা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


জেনে নিন কলার গুণাগুণ

জেনে নিন কলার গুণাগুণ


দুর্নীতি করলে যে দলেরই হন রেহাই পাবেন না: শেখ হাসিনা

দুর্নীতি করলে যে দলেরই হন রেহাই পাবেন না: শেখ হাসিনা


যা ইচ্ছে সাজা দেন, বারবার আদালতে আসতে পারব না: খালেদা জিয়া

যা ইচ্ছে সাজা দেন, বারবার আদালতে আসতে পারব না: খালেদা জিয়া