Friday, April 14th, 2017
‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে বিরাজ সত্যসুন্দর’
April 14th, 2017 at 10:13 am
‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে বিরাজ সত্যসুন্দর’

ঢাকা: মঙ্গল শোভাযাত্রা বাঙালির বর্ষবরণের একটি প্রধান কর্মযজ্ঞ। যেখানে নানা প্রতীক, চিত্র আর মুখোশের মাধ্যমে অশুভ শক্তির বিনাশ কামনা করা হয়; প্রার্থনা করা হয় সত্য, সুন্দর এবং মঙ্গলের জন্য।

শুক্রবার সকাল নয়টায় ‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে বিরাজ সত্যসুন্দর’ প্রতিপাদ্য নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) চারুকলা অনুষদ থেকে বের হয় এবারের শোভাযাত্রা। এতে অংশ নেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এবং ঢাবির উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

শোভাযাত্রাটি চারুকলা থেকে বের হয়ে হোটেল রূপসী বাংলার সামনে দিয়ে ঘুরে টিএসসি চত্বর হয়ে সকাল নয়টা ৫০ মিনিটে ফের চারুকলায় এসে শেষ হয়। বর্ণিল এ শোভাযাত্রায় অংশ নেয় নারী-পুরুষ, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার হাজারো মানুষ। ঢাক-বাদ্যির তালে তালে এগিয়ে যায় শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণকারীদের কণ্ঠে উচ্চারিত হয় মানব মঙ্গলের কথা।

এবার শোভাযাত্রায় ছিল ঘোড়া, বিশাল বাঘের মুখ, সমৃদ্ধির প্রতীক হাতি। এছাড়া সমুদ্র বিজয়, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে শিল্পকাঠামোগুলোও এবার রাখা হয়েছে। অনেকগুলো সূর্যের মুখের কাঠামোও ছিল এই শোভাযাত্রায়। যার একপাশে সূর্যের আলোয় উদ্ভাসিত মুখ ছিল আর অন্যদিকে সূর্যের বিপরীতে অন্ধকার কদাকার মুখ।

১৯৮৯ সালে প্রথম মঙ্গল শোভাযাত্রা হয়েছিল। ওই শোভাযাত্রায় ছিল পাপেট, ঘোড়া, হাতি। ধারবাহিকতায় বাংলা বর্ষবরণের প্রধান কর্মযজ্ঞ হয়ে ওঠে শোভযাত্রা। তবে সেই সময় এটি আনন্দ শোভাযাত্রা নামে অভিহিত ছিল। ১৯৯৬ সাল থেকে এর নাম ‘মঙ্গল শোভাযাত্রা’ রাখা হয়। গেল বছর ৩০ নভেম্বর ইউনেস্কো এ শোভাযাত্রা বিশ্ব ঐতিহ্য বলে ঘোষণা দেয়।

প্রতিবেদন: প্রীতম, সম্পাদনা: জাবেদ


সর্বশেষ

আরও খবর

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলে ‘দ্রুত’ প্রজ্ঞাপনের আশ্বাস নানকের

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলে ‘দ্রুত’ প্রজ্ঞাপনের আশ্বাস নানকের


গাজা বিক্ষোভ: ৩ ফিলিস্তিনি নিহত, আহত ৩৫০

গাজা বিক্ষোভ: ৩ ফিলিস্তিনি নিহত, আহত ৩৫০


গ্লোবাল উইমেনস লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

গ্লোবাল উইমেনস লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


মিয়ানমারকে চাপে রাখতে অস্ট্রেলিয়ার প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

মিয়ানমারকে চাপে রাখতে অস্ট্রেলিয়ার প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান


শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে স্বাগত জানাবেন মুন    

শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে স্বাগত জানাবেন মুন    


ইসরায়েলি সেনার গুলিতে আহত ফিলিস্তিনি সাংবাদিকের মৃত্যু

ইসরায়েলি সেনার গুলিতে আহত ফিলিস্তিনি সাংবাদিকের মৃত্যু


রাজস্ব জালে সোয়া ৫ লাখ নতুন করদাতা

রাজস্ব জালে সোয়া ৫ লাখ নতুন করদাতা


মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু

মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু


স্ত্রী-সন্তানের পর চলে গেলেন বাবাও

স্ত্রী-সন্তানের পর চলে গেলেন বাবাও


এস কে সিনহার অ্যাকাউন্টে’ ৪ কোটি টাকা জমা দেয়া দু’জনকে দুদকে তলব

এস কে সিনহার অ্যাকাউন্টে’ ৪ কোটি টাকা জমা দেয়া দু’জনকে দুদকে তলব