Thursday, December 29th, 2016
‘আপনার টাকায় যুদ্ধ হবে’
December 29th, 2016 at 3:11 pm
‘আপনার টাকায় যুদ্ধ হবে’

সানাউল কবির সিদ্দিকী:

আমি সর্বনিম্ন রিক্সা ভাড়া দিছি তিন টাকা। তারপর পাঁচ টাকা। তারপর দশ টাকা। এখন ১৫ টাকার নীচে রিক্সা ভাড়া হয় না। দুই টাকা দামের গোল্ডলীফ হইছে ০৮ টাকা। ১০ টাকা কেজি চাল হইছে ৫০ টাকা। ৪০ টাকা দামের অফকফ চোখের সামনে ৭০/৮০ টাকা হয়া গেলো। পণ্য আর সেবার দাম দিনদিন বাড়তেই থাকে। সরকারী বেতন বাড়ে। এক টাকায় চকলেট পাওয়া গেলেও তার মান নাইমা পাতালে চইলা যায়। কোলা জাতীয় পানীয়ের দাম বাড়তে বাড়তে একটা পর্যায়ে গিয়া ঝাঁঝ কমানো শুরু কইরা দিছে।

ইসলামী সঞ্চয়ী ব্যবস্থা আপনার টাকা জমা রাইখা মুনাফা দিবে। ব্যাংক দিবে সুদ। সমবায় সমিতি আপনাকে অনেক বছর পর অনেকগুলা টাকা একসাথে হাতে পাওয়ার স্বপ্ন দেখাবে। ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি আপনার সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। তার তিল তিল কইরা আপনারে প্রতি মাসে শুষবে, আপনাদের শুষবে, আপনার টাকায় নতুন নতুন পণ্য বাজারজাত কইরা আপনারেই খাওয়াবে, তাদের কাছে থাকবে পুঁজি — কাঁচা টাকার পাহাড়। টাকায় টাকা টানবে, টাকায় তারা নিয়ন্ত্রণ করবে — ক্ষমতা কার হাতে যাবে। আপনার জমানো টাকায় ফাউন্ডেশন দিয়া গুটিকয়েক গড়বে সম্পদের পাহাড়। মাঝখানে সবার টাকা নিয়া লাপাত্তাও হয়া যাইতে পারে। এগুলার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বললে তার কথা কেউ শুনবে না, বরং মুখ বন্ধ করার দায়িত্ব দেয়া হবে তারই টাকায় পোষা সামরিক বাহিনীর হাতে।

২০১৭ সাল থেকে, আপনি প্রতি মাসে ১০০ টাকা কইরা দিয়া ০৪ বছর টাকা জমাইলেন। ৪X১২=৪৮ মাসে আপনার জমানো আছে ৪৮০০ টাকা, ব্যাংক আপনারে বিশ্বাসের প্রতিদান হিসেবে ধরেন আরো ৪৮০০ টাকা দিলো; হাতে ৯৬০০ টাকা। তাইলে আপনে দেখতাছেন আপনার দ্বিগুণ লাভ; আপনে তো ফূর্তি!

থামেন, বস!

২০১৭ সালে যে সিগারেট আপনে ১০ টাকা কইরা খাইছেন, ২০২০ সালে তার দাম ২০ টাকা হবে না এমন কোন গ্যারান্টি নাই। রিক্সা ভাড়া বাড়বে, বাড়ি ভাড়া বাড়বে, বাস-লেগুনায় গুলিস্তানের ভাড়া বাড়বে। চালের দাম বাড়বে, শিক্ষার দাম বাড়বে, অক্সিজেনের দাম বাড়বে। ২০১৭ সালে আপনার হাতে ৪৮০০ টাকা থাকা মানে যেই কথা, ২০২০ সালে আপনার হাতে ৯৬০০ টাকা থাকা সেই একই কথা হয়া দাঁড়াবে। আপনার শ্রমের মূল্য হবে ঋণাত্মক।

মাঝখান দিয়া আপনার টাকায় কেনা হবে অস্ত্র, বাজারজাত করা হবে নতুন নতুন মাদক, আপনার স্বামী-স্ত্রী-সন্তানরে বেসামাল কইরা দেয়ার জন্য টিভি বিলবোর্ডে থাকবে উজ্জ্বল বিজ্ঞাপণ, সেই বিজ্ঞাপণ নির্মিত হবে আপনার টাকায়, আপনার টাকায় যুদ্ধ হবে, আপনার টাকায় মানুষ মরবে, আপনার টাকায় ত্রাণের নামে দূর্নীতি হবে, আপনার টাকায় গবেষণা কইরা তারা উৎপাদন করবে আইফোন সেভেনের মতো নিত্য নতুন ‘মৌলিক চাহিদা’, আপনার জমানো টাকা পকেটে ভইরা ঋণখেলাপি হবে বড় বড় আমলারা, আপনার টাকায় আপনার মাথার উপর দিয়া আকাশ ভ্রমণ করবে সমাজের সবচেয়ে নীচু শ্রেণীর কীটগুলা, তারা বংশ বৃদ্ধি করবে আপনার টাকায়, আপনারে শুষতে শুষতে তারা এমন পর্যায়ে নিয়া যাবে যেন অসময়ে গর্ভবতী হইয়া পড়া স্ত্রী’র ভ্রূণহত্যা করাইতে হইলেও তাদের কাছে গিয়া হাত পাততে হয়।

পুঁজিবাদের সমস্যা বুঝতে লিওন্তিয়েভ পড়া লাগে না বস, একটু পিছনে ফিরা তাকাইলেই হয়। একটু পিছনে ফিরা তাকান।

প্রকাশ: তুহিন


সর্বশেষ

আরও খবর

আওয়ামী লীগ স্মৃতিকাব্য

আওয়ামী লীগ স্মৃতিকাব্য


কপটতা, দ্বিমুখিতা, ভণ্ডামিতে আক্রান্ত সমাজ; সমস্যাটা কোথায়?

কপটতা, দ্বিমুখিতা, ভণ্ডামিতে আক্রান্ত সমাজ; সমস্যাটা কোথায়?


আসলে এদের দিলমে পাকিস্তান

আসলে এদের দিলমে পাকিস্তান


পাহাড়ে মৃত্যুর মিছিল, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নসাধ এবং শেখ হাসিনা

পাহাড়ে মৃত্যুর মিছিল, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নসাধ এবং শেখ হাসিনা


পাহাড় ধসে ১৪৬ প্রাণহানি ও একটি পর্যালোচনা

পাহাড় ধসে ১৪৬ প্রাণহানি ও একটি পর্যালোচনা


লড়াইটা মাঠে, অপ্রীতিকর প্রচারণায় নয়

লড়াইটা মাঠে, অপ্রীতিকর প্রচারণায় নয়


কেন এই সৌদি-কাতার দ্বন্দ্ব?

কেন এই সৌদি-কাতার দ্বন্দ্ব?


‘প্রতিবাদ নীতিমালা ২০১৭’ প্রণয়ন

‘প্রতিবাদ নীতিমালা ২০১৭’ প্রণয়ন


ভাস্কর্য-ভক্ত এবং অপ্রিয় সত্য

ভাস্কর্য-ভক্ত এবং অপ্রিয় সত্য


প্রভাবশালীরা শিক্ষা ও শিক্ষককে অপমানের লাইসেন্স পেয়েছে

প্রভাবশালীরা শিক্ষা ও শিক্ষককে অপমানের লাইসেন্স পেয়েছে