Friday, January 12th, 2018
ইজতেমা ময়দানে লাখো মুসল্লির জুমার নামাজ আদায়
January 12th, 2018 at 2:43 pm
ইজতেমা ময়দানে লাখো মুসল্লির জুমার নামাজ আদায়

গাজীপুর: কাকরাইল মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা জুবায়েরের ইমামতিতে দুপুর দেড়টায় বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে টঙ্গীর তুরাগ তীরে ইজতেমা ময়দানে দেশের বৃহত্তম জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নিয়মিত তাবলিগ জামাতের ছাড়াও ঢাকা-গাজীপুরসহ আশপাশের কয়েক লাখ মুসল্লি জুমার নামাজে অংশ নেন। ভিআইপিদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক, গাজীপুর-২ আসনের এমপি জাহিদ আহসান রাসেল জুমার নামাজে শরীক হন।

ইজতেমা ময়দানে দেশের সর্ববৃহৎ জুমার নামাজে খুতবা পাঠ শুরু হয় দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে। নামাজ শুরু হয় ১টা ৪০ মিনিটে। দুপুর ১২টার দিকে ইজতেমার পুরো ময়দান পূর্ণ হয়ে যায়। মাঠে স্থান না পেয়ে মুসল্লিরা মহাসড়ক ও অলি-গলিসহ যে যেখানে পেরেছেন পাটি, চটের বস্তা ও খবরের কাগজ বিছিয়ে জুমার নামাজে শরিক হন।

৫৩ তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে উত্তরের হিমেল হাওয়া আর কনকনে শীত উপেক্ষা করে লাখো মুসল্লি বয়ান, তাশকিল, তাসবিহ-তাহলিলে অংশ নেন। তীব্র শীতের কারণে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া মুসল্লিদের প্যান্ডেলের বাইরে যেতে দেখা যায়নি।

বাদ ফজর জর্ডানের মাওলানা শেখ ওমর খতিবের বয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার মূল কাজ শুরু হয়। তার বয়ান বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের মুরব্বি আব্দুল মতিন। প্রথম পর্বে দেশের ১৪ জেলার মুসল্লিদের পাশাপাশি ভারত, পাকিস্থান, ইরান, ইরাক ও জর্ডানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা ইজতেমায় অংশ নিয়েছেন।

ইজতেমার প্রথম দিনেই অংশ নিয়েছেন ৪ হাজার বিদেশি মুসল্লি। গাজীপুর জেলা প্রশাসন জানায়, তাবলিগ জামাতের তিন দিনব্যাপী এই বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে প্রথম দিন শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ৭৯টি দেশের ৩ হাজার ৯১৯ জন মুসল্লি ইজতেমা মাঠে পৌঁছেছেন। ইজতেমার পরিবেশ রক্ষায় ইজতেমায় প্রতিদিন ১০টি ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই পর্বে পরিচালিত হবে।

এ বছর ১৬০ একর এলাকা জুড়ে তৈরি করা হয়েছে বিশাল প্যান্ডেল। বিদেশি মেহমানদের জন্য তৈরি করা হয়েছে ৪ কামরা বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক নিবাস। এবারের ইজতেমা ময়দানের রয়েছে ১৭টি প্রবেশ পথ। ইজতেমা ময়দানের চারদিকে ১৫টি সুউচ্চ ওয়াচ টাওয়ার বসানো হয়েছে। মাঠ জুড়ে রয়েছে সাদা পোশাকে গোয়েন্দা পুলিশের কড়া নজরদারি।

নিজস্ব প্রতিবেদক, সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে স্বাগত জানাবেন মুন    

শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে স্বাগত জানাবেন মুন    


ইসরায়েলি সেনার গুলিতে আহত ফিলিস্তিনি সাংবাদিকের মৃত্যু

ইসরায়েলি সেনার গুলিতে আহত ফিলিস্তিনি সাংবাদিকের মৃত্যু


যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে মুসলিম দেশগুলির প্রতি আহ্বান  

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে মুসলিম দেশগুলির প্রতি আহ্বান  


রাজস্ব জালে সোয়া ৫ লাখ নতুন করদাতা

রাজস্ব জালে সোয়া ৫ লাখ নতুন করদাতা


মোবাইলে মৃত্যু

মোবাইলে মৃত্যু


গাজীপুর ও খুলনা সিটি নির্বাচনে সেনা নয়

গাজীপুর ও খুলনা সিটি নির্বাচনে সেনা নয়


মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু

মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু


স্ত্রী-সন্তানের পর চলে গেলেন বাবাও

স্ত্রী-সন্তানের পর চলে গেলেন বাবাও


এস কে সিনহার অ্যাকাউন্টে’ ৪ কোটি টাকা জমা দেয়া দু’জনকে দুদকে তলব

এস কে সিনহার অ্যাকাউন্টে’ ৪ কোটি টাকা জমা দেয়া দু’জনকে দুদকে তলব


রাজধানীতে হঠাৎ ঝড়ের আঘাত, বিপাকে ঘরমুখো মানুষ

রাজধানীতে হঠাৎ ঝড়ের আঘাত, বিপাকে ঘরমুখো মানুষ