Tuesday, January 2nd, 2018
একমাসে ৩ খুন: বিক্ষোভ-মানববন্ধন-স্মারকলিপি
January 2nd, 2018 at 7:34 pm
একমাসে ৩ খুন: বিক্ষোভ-মানববন্ধন-স্মারকলিপি

বরিশাল: সদ্য বিদায় নেয়া ২০১৭ সালের বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে নগরীতে স্কুলছাত্র আবীর রবিদাস ও আবু সালেহ এবং গৃহবধু সাথী হত্যাকান্ডের আসামি গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে মঙ্গলবার বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন এবং সমাবেশ হয়েছে।

বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল(বাসদ)-এর উদ্যোগে নগরীতে একমাসে তিন হত্যাকান্ডের জন্য দায়ী আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে এ কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়।

এ কর্মসূচী অনুযায়ী নগরীর ফকির বাড়ি রোড থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে সদর রোডে অশ্বিনী কুমার হলের সামনে মানববন্ধনে মিলিত হয়ে বিক্ষোভ সমাবশ করে।

পরে কর্মসূচীতে অংশগ্রহণকারিরা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে জেলা প্রশাসক দপ্তরে গিয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ হাবিবুর রহমানের কাছে স্বারকলিপি দেন।

মানববন্ধনে নিহত তিনজনের মা, আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশী ও এলাকার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এসময় পিতা-মাতা ও স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে হত্যার বিচার দাবি করেন।

কর্মসূচীতে সভাপতিত্ব করেন- বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের জেলা সংগঠক ডা: মনীষা চক্রবর্তী। বক্তব্য রাখেন হত্যার শিকার হওয়া গৃহবধূ সাথীর পিতা মোঃ শাহজাহান, নিহত শিক্ষার্থী আবু সালেহ’র মা রহিমা বেগম এবং আবির দাশ রবির মাতা শেফালী দাশ, দলিত পরিষদ বরিশাল বিভাগীয় সভাপতি জীবন রবিদাশ, মহিলা পরিষদ নেত্রী পুষ্প চক্রবর্তী, শিশু সংগঠক শুভংকর চক্রবর্তী, জেলা বাসদ সদস্য বদরুদ্দোজা সৈকত, ছাত্রফ্রন্ট বরিশাল জেলা শাখার সভাপতি শন্তু মিত্র, সাধারণ সম্পাদক মুজাম্মেল হক সাগর, সাংগঠনিক সম্পাদক নীলিমা জাহান, শ্রমিক ফ্রন্টের সহ-সভাপতি দুলাল মল্লিক ও সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম।

বক্তারা বলেন, নগরীতে ঘটে যাওয়া তিনটি হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতরা বয়সে তরুন। তরুনদের মধ্যে যে অবক্ষয় ছড়িয়ে পড়ছে, এর মধ্যদিয়ে তাই প্রমানিত হয়।

তারা আরো বলেন, অপরাজনীতি, মাদকাসক্তি, জ্ঞানচর্চা ও সুষ্ঠ বিনোদনের অভাব, অপসংস্কৃতি, নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্বলতার কারনে একের পর এক এসব হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে এবং দিন দিন তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তাই তারা জনগণকে সম্পৃক্ত করে নগরীর ওয়ার্ডগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

তারা বলেন, আগামী সাত দিনের ভিতর এই তিন হত্যাকান্ডের পালিয়ে থাকা আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা না হলে প্রগতিশীল শক্তি ও সাধারন মানুষ একত্রিত হয়ে দূর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করতে প্রশাসনকে বাধ্য করবে।

৯ ডিসেম্বর নগরীর ফলপট্টি এলাকার বাসিন্দা এ কে স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র আবীর রবিদাসকে হত্যা করা হয় ক্রিকেট ব্যাটের আঘাতে। মামলা হওয়ার দুদিন পর এর আসামি মো: মিরাজ আদালতে আত্মসমর্পন করে।

চুরি যাওয়া মোবাইল ফেরৎ চাওয়ায় ১০ ডিসেম্বর এলাকার মাদক ব্যবসায়ী, চোর, ছিনতাইকারী, কিশোর সন্ত্রাসী রিদয় বাহিনী হত্যা করে নূরিয়া স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী আবু সালেহকে। শাবল দিয়ে মাথায় আঘাত করলে তার মৃত্যু ঘটে।

বিজয় দিবস ১৬ ডিসেম্বরে স্টেডিয়াম কলোনীর বাসিন্দা গৃহবধু সাথীকে স্বামী আরিফ পালোয়ান নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে ঘরের আঁড়ার ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যার প্রচারনা চালায়। মামলার পর আরিফ আত্মগোপনে রয়েছে।

আনিসুর স্বপন (বরিশাল), সম্পাদনা: ওয়াইএ


সর্বশেষ

আরও খবর

আকিফার মৃত্যু: বাস মালিক গ্রেফতার

আকিফার মৃত্যু: বাস মালিক গ্রেফতার


টেকনাফে ৯ লাখ পিছ ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফে ৯ লাখ পিছ ইয়াবা উদ্ধার


শ্রীনগরে পুলিশের ‘চেকপোস্টে হামলা’, ২ জন নিহত

শ্রীনগরে পুলিশের ‘চেকপোস্টে হামলা’, ২ জন নিহত


সিএনজি-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ৩

সিএনজি-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ৩


রংপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬

রংপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬


মিরসরাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বাসের ২ যাত্রী নিহত

মিরসরাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বাসের ২ যাত্রী নিহত


নেত্রকোনায় বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৪

নেত্রকোনায় বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৪


দিনাজপুরে বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে দুই চালক নিহত

দিনাজপুরে বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে দুই চালক নিহত


চট্টগ্রামে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২


বাসের ধাক্কায় আহত শিশুটি মারা গেছে

বাসের ধাক্কায় আহত শিশুটি মারা গেছে