Thursday, April 20th, 2017
এ যাত্রায় রক্ষা পেলেন নওয়াজ শরীফ
April 20th, 2017 at 5:12 pm
এ যাত্রায় রক্ষা পেলেন নওয়াজ শরীফ

ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে আনীত পানামা কেলেংকারি মামলায় আরো তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

নওয়াজ পরিবারের অন্ততঃ আটটি অফশোর কোম্পানিতে লগ্নি করা অর্থের উৎস খুঁজে বের করতে একটি ‘যৌথ তদন্ত দলে’র মাধ্যমে ৬০ দিনের মধ্যে উচ্চ আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ বেঞ্চের পাঁচ জন বিচারকের মধ্যে দুজন নওয়াজকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অযোগ্য ঘোষণার পক্ষে মতামত দিয়েছেন। পরে ৫ জন সর্বসম্মতভাবে ‘যৌথ তদন্ত দলে’র মাধ্যমে বৃহত্তর তদন্তের নির্দেশ দেন।

পানামা পেপারস ফাঁসের পর তীব্র হৈচৈ শুরু হয়ে গিয়েছিলো পাকিস্তানে। বিরোধী রাজনীতিক এবং সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান দেশজুড়ে বিক্ষোভের হুমকি দেন।

প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এবং তার পরিবার সবসময় টাকা পাচার বা অবৈধ লেনদেনের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

তবে বিরোধীদের ক্ষোভের মুখে গত বছরের শেষ নাগাদ পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট প্রধানমন্ত্রী শরিফের বিরুদ্ধে টাকা পাচারের অভিযোগ তদন্তের সিদ্ধান্ত নেয়।

তারপর থেকেই বলা হচ্ছিলো তদন্তে অভিযোগের কোনো সত্যতা পাওয়া গেলে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ক্ষমতা ধরে রাখা অসম্ভব হয়ে পড়বে।

আজ (বৃহস্পতিবার) সুপ্রিম কোর্টে রায় হবে- এ খবর জানার পর গত কদিন ধরে পাকিস্তানে প্রচুর জল্পনা চলছিলো। এমনকী শেয়ার বাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। আজ রায়ের দিন ইসলামাবাদে সুপ্রিম কোর্ট চত্বরে ১ হাজার ৫০০ পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

সরকারের দিক থেকে আশা প্রকাশ করা হয়েছিল নওয়াজ শরীফ সব অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাবেন।

গত বছর মে মাসে পানামা পেপার্স নামে পরিচিত ফাঁস হয়ে যাওয়া অফশোর অ্যাকাউন্টের তথ্যের একটি তালিকা অনলাইনে প্রকাশ করা হয়েছিলো।

নিজেদের ওয়েবসাইটে তথ্য প্রকাশে পর অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের সংগঠন আই সি আই জে বলেছিলো যে, এই ডেটাবেজে উল্লেখিত সবাই যে অবৈধ কাজ করেছে তা নয়, তবে এর মাধ্যমে অনেকে কর ফাঁকি বা আর্থিক তথ্য লুকানোর চেষ্টা করতে পারে।

আইনি প্রতিষ্ঠান মোজাক ফনসেকার ফাঁস হয়ে যাওয়া নথি, পানামা পেপার্সের মাধ্যমে বিশ্বের অনেক রাজনীতিবিদ, সরকারি কর্মকর্তা, রাষ্ট্রপ্রধান থেকে শুরু করে চিত্রতারকা এবং তারকা খেলোয়াড়দেরও গোপন সম্পদের খবর ফাঁস হয়ে যায়।

জার্মান একটি পত্রিকার কাছে ‘জন ডো’ নামে পরিচিত একটি সূত্র এই তথ্যগুলো ফাঁস করে দেয়।

পরবর্তীতে অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অফ ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্ট এই তথ্য প্রকাশ করে। তবে মোজাক ফনসেকা দাবি করছে, তারা বেআইনি কোনো কাজ করেনি। সূত্র: বিবিসি

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: জাহিদ

 


সর্বশেষ

আরও খবর

শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে স্বাগত জানাবেন মুন    

শুক্রবার ঐতিহাসিক বৈঠকে কিমকে স্বাগত জানাবেন মুন    


ইসরায়েলি সেনার গুলিতে আহত ফিলিস্তিনি সাংবাদিকের মৃত্যু

ইসরায়েলি সেনার গুলিতে আহত ফিলিস্তিনি সাংবাদিকের মৃত্যু


যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে মুসলিম দেশগুলির প্রতি আহ্বান  

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে মুসলিম দেশগুলির প্রতি আহ্বান  


রাজস্ব জালে সোয়া ৫ লাখ নতুন করদাতা

রাজস্ব জালে সোয়া ৫ লাখ নতুন করদাতা


মোবাইলে মৃত্যু

মোবাইলে মৃত্যু


মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু

মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে ঘুমন্ত মা-মেয়ের মৃত্যু


স্ত্রী-সন্তানের পর চলে গেলেন বাবাও

স্ত্রী-সন্তানের পর চলে গেলেন বাবাও


এস কে সিনহার অ্যাকাউন্টে’ ৪ কোটি টাকা জমা দেয়া দু’জনকে দুদকে তলব

এস কে সিনহার অ্যাকাউন্টে’ ৪ কোটি টাকা জমা দেয়া দু’জনকে দুদকে তলব


রাজধানীতে হঠাৎ ঝড়ের আঘাত, বিপাকে ঘরমুখো মানুষ

রাজধানীতে হঠাৎ ঝড়ের আঘাত, বিপাকে ঘরমুখো মানুষ


গ্রেফতারের পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ফাহিম মাসরুরকে

গ্রেফতারের পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ফাহিম মাসরুরকে