Tuesday, December 5th, 2017
খুলনার জয়ে চাপে ঢাকা ডায়নামাইটস
December 5th, 2017 at 5:17 pm
খুলনার জয়ে চাপে ঢাকা ডায়নামাইটস

স্পোর্টস ডেস্ক: হারুক বা জিতুক, পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থানেই থাকছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। লড়াইটা জমেছে ঢাকা ডায়নামাইটস ও খুলনা টাইটানসের মধ্যে। এলিমিনেটর পর্ব এড়াতে হলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুইয়ে থাকতে হবে। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে কুমিল্লার রাজত্ব। সেই তামিমদের হারিয়েই আজ দ্বিতীয় স্থানে উঠে এলো মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটানস। এই মুহূর্তে তাই দারুণ চাপে ঢাকা ডায়নামাইটস। নিজেদের শেষ ম্যাচে রংপুরের বিপক্ষে হারলে পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরে নেমে যাবে সাকিব আল হাসানের দল। জিতলে খুলনাকে সরিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠবে ঢাকা। এলিমিনেটর ঝামেলা এড়াতে শেষ ম্যাচটা যেকোনো মূল্যেই জিততে চাইবে ঢাকা ডায়নামাইটস।

আজ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ১৪ রানে হারিয়েছে খুলনা টাইটানস। প্রথমে ব্যাটিং করে ১৭৪ রানের বিশাল সংগ্রহ গড়ে মাহমুদউল্লাহরা। জবাবে ১৬০ রানে শেষ হয় কুমিল্লার ইনিংস। এই ম্যাচে হারলেও পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

১৭৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে প্রথম ওভারেই সুলেমান মিরেকে হারায় কুমিল্লা। এরপর অবশ্য তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েসের ব্যাটে তারুণভাবে ঘুরেও দাঁড়ায় দলটি। ৪৬ বলে এই দুজন সংগ্রহ করেন ৬৩ রান। ইমরুল ফিরতেই বদলে যায় ম্যাচের চেহারা। ১৯ বলে ২০ রান করেন তিনি।

খানিকবাদে ৩০ বলে ৩৩ রান করা তামিমও প্যাভিলিয়নমুখী হন। শোয়েব মালিক ও জস বাটলার ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেছিলেন। দলীয় ৯০ রানে ফিরে যান বাটলার। ১৬ বলে ১১ রান করেন এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি মালিকও। দলের রান তখন ১২৭, ইরফানের বলে মাহমুদউল্লাহর ক্যাচে পরিণত হন তিনি। এরপর আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি কুমিল্লা।

মারলন স্যামুয়েলস চেষ্টা করলেও দ্রুততম সঙ্গে রান নিতে পারেননি এই ক্যারিবীয় ক্রিকেটার। শেষ দুই ওভারে রকিবুল হাসান দ্রুত রান নেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে সেটিও যথেষ্ট ছিল না। রকিবুল ৯ বলে ১৭ ও স্যামুয়েলস করেন ২৫ রান।

খুলনার বোলারদের মধ্যে আবু জায়েদ ও বিনি হাওয়েল নেন দুটি করে উইকেট।

এর আগে শান্ত-আরিফুল-ব্রেথওয়েট ঝড়ে ১৭৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করায় খুলনা। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে দুর্দান্তভাবে শুরু করেছিল খুলনা টাইটানস। উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৫৫ রান। ২১ বলে ৩৭ রান করে আউট হন শান্ত। কিলিঞ্জারকে নিয়ে দারুণ খেলছিলেন মাহমুদউল্লাহ। তবে এ সময় খুলনার রানের চাকাটা স্থবির হয়ে যায়। কিলিঞ্জার ২৮ বলে ২৯ ও মাহমুদউল্লাহ ২৩ বলে করেন ২৩ রান।

উইকেটে এসে নিকোলাস পুরানও কিছু করতে পারেননি। ৮ রান করতে এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান খেলেন ১৩ বল। ইনিংসের শেষ দিকে ব্যাট হাতে দারুণ কার্যকর ভূমিকা পালন করেন কার্লোস ব্রেথওয়েট ও আরিফুল হক। ১২ বলে ২২ রান করেন ব্রেথওয়েট। অন্যদিকে আরিফুল করেন ২১ বলে ৩৫ রান। এ দুজনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে শেষ পর্যন্ত ১৭৪ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় খুলনা টাইটানস।

প্রকাশ: ওয়াইএ


সর্বশেষ

আরও খবর

জনপ্রিয় মৌসুমী খেলা ব্যাডমিন্টন

জনপ্রিয় মৌসুমী খেলা ব্যাডমিন্টন


ক্রিস গেইল ১৪৬ ঢাকা ১৪৯

ক্রিস গেইল ১৪৬ ঢাকা ১৪৯


ফাইনাল এবং টুর্নামেন্ট সেরা গেইল

ফাইনাল এবং টুর্নামেন্ট সেরা গেইল


বিপিএলের পাতায় শুধুই মাশরাফি

বিপিএলের পাতায় শুধুই মাশরাফি


বিপিএলের শিরোপা মাশরাফির হাতেই

বিপিএলের শিরোপা মাশরাফির হাতেই


গেইলের দানবীয় শতকে ‘এক গাদা রের্কড’

গেইলের দানবীয় শতকে ‘এক গাদা রের্কড’


গেইলের দানবীয় শতকে রংপুর ২০৬

গেইলের দানবীয় শতকে রংপুর ২০৬


আবারও গেইলের সেঞ্চুরি

আবারও গেইলের সেঞ্চুরি


টস হেরে ব্যাটিংয়ে মাশরাফির রংপুর

টস হেরে ব্যাটিংয়ে মাশরাফির রংপুর


এবার কি তাহলে চতুর্থবার? ‘দ্য ক্যাপ্টেন’

এবার কি তাহলে চতুর্থবার? ‘দ্য ক্যাপ্টেন’