Thursday, April 20th, 2017
ঘুরে আসুন ঢাকার কাছে কক্সবাজার থেকে
April 20th, 2017 at 6:03 pm
ঘুরে আসুন ঢাকার কাছে কক্সবাজার থেকে

এম কে রায়হান:

ঢাকার মধ্যে কক্সবাজার। শুনতে অবাক লাগছে? নগরবাসীর কাছে ঘোরাঘুরি পছন্দ হলেও নির্দিষ্ট কয়েকটি স্থান ছাড়া তেমন জায়গাই নেই ঢাকার মধ্যে। আমাদের দেশের প্রসিদ্ধ যেসকল দর্শনীয় স্থান আছে তা সবই ঢাকার বাইরে।

আর আমাদের দেশের পরিচিত কয়েকটা জায়গা ছাড়া আমরা তেমন কোথাও ঘুরতে যাই না। সময়ের চাহিদায় বেশ কিছু নতুন দর্শনীয় স্থান গড়ে উঠছে রাজধানীর আশেপাশে। ঠিক তেমনি নতুন একটি দর্শনীয় স্থান মৈনট ঘাট।

ঢাকার কাছেই পদ্মা নদীতে ঘুরে বেড়ানোর মজার একটি জায়গা মৈনট ঘাট। দোহারের পদ্মার পাড়ের এই এলাকা এরই মধ্যে বেড়ানোর জায়গা হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।রাজধানী থেকে দিনে গিয়ে দিনেই বেড়িয়ে আসা যায় বলে অনেকেই যাচ্ছেন সেখানে পরিবার পরিজন নিয়ে।

এখানে আসলে আপনি মুগ্ধ না হয়ে পারবেন না। গেলেই দেখতে পারবেন পদ্মা নদীর অপরূপ জলরাশি, পদ্মায় হেলেদুলে ভেসে বেড়ানো জেলেদের নৌকা আর পদ্মার তীরে হেঁটে বেড়ানো। সব মিলিয়ে কিছুক্ষণের জন্য আপনার মনে হবে আপনি এখন দোহারে নয়, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে আছেন। আর এ কারণেই অনেকে মৈনট ঘাটকে বলে থাকেন ছোট কক্সবাজার। এখানে এসে সড়কটির দুই পাশের চর দেখে অনেকেরই ভুল মনে হতে পারে। এটি কী নদীর চর, নাকি সমুদ্রের কোনো বেলাভূমি!

নানান কারণে মৈনট ঘাট এখন ঢাকার মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয়। এর প্রধান কারণ ঘাটের আশপাশে বিশেষ করে পূর্ব পাশে বিশাল চর আর সামনে বিস্তীর্ণ পদ্মা। এখান থেকে পদ্মা নদীতে নৌকায় ঘুরেও বেড়ানো যায় পাড় ধরে। এছাড়াও ঘাট থেকে পদ্মায় ঘুরে বেড়ানোর জন্য আছে স্পিড বোট।

মৈনট ঘাটে বেড়াতে গিয়ে পদ্মার মাছও কেনার সুযোগ আছে। নৌকা নিয়ে ঘুরতে ঘুরতে হঠাৎ দেখা হওয়া জেলে নৌকা থেকে মাছও কিনতে পারেন। তবে পদ্মার সেই টাটকা মাছের স্বাদ নিতে হলে দাম বেশ কিছুটা বেশিই গুনতে হবে।

কীভাবে যাবেন: গুলিস্তানের গোলাপশাহ মাজার থেকে দোহারের মৈনট ঘাটে সরাসরি বাস সার্ভিস আছে যমুনা পরিবহনের। ভাড়া ৯০ টাকা জনপ্রতি, সময় লাগে দুই থেকে আড়াই ঘণ্টা।মৈনটঘাট থেকে ঢাকায় ফেরার সর্বশেষ ট্রিপ সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়। তবে নবাবগঞ্জের সব জায়গা ও মৈনট ঘাটে ঘুরে বেড়ানোর জন্য নিজস্ব গাড়ি কিংবা কয়েকজন মিলে ভাড়া করা গাড়ি নিয়ে যাওয়া ভালো।

প্রয়োজনীয় তথ্য:মৈনট ঘাটে দুটি মাত্র রেস্তোরাঁ আছে। এগুলোতে মাঝেমধ্যে পদ্মার ইলিশ পাওয়া গেলেও ছুটির দিনগুলোতে মৈটন ঘাটে পর্যটকের ভিড় লেগে যায় বলে তা ভাগে পাওয়া দুষ্কর। তবে মৈনট ঘাটের কাছে কার্তিকপুর বাজারে তুলনামূলক ভালো খাবারের ব্যবস্থা আছে। এছাড়া মৈনট ঘাট থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে জয়পাড়া বাজারেও খাবারের ভালো ব্যবস্থা আছে। কার্তিকপুর বাজারের রণজিৎ ও নিরঞ্জন মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের মিষ্টির সুনাম রয়েছে।

মনে রাখবেন: সাঁতার না জানলে গোসল করার সময় পদ্মার বেশি গভীরে যাবেন না। সিগারেট অথবা খাবারের প্যাকেট, পানির বোতল অথবা যেকোনো প্রকার ময়লা যেখানে সেখানে ফেলবেন না। পাখি মারা থেকে বিরত থাকুন। খেয়াল রাখুন নিজের কোনো আচরণের দ্বারা কেউ বিরক্ত হলো কি না। কেউ মেয়েদের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করলে অথবা যেকোনো প্রকার সাহায্যের জন্য মৈনট ঘাটের একটু পাশেই অবস্থিত পুলিশ ফাঁড়িতে যোগাযোগ করুন।

প্রকাশ: প্রীতম


সর্বশেষ

আরও খবর

শেখ হাসিনাকে অধীনে নির্বাচন নয়: মোশাররফ

শেখ হাসিনাকে অধীনে নির্বাচন নয়: মোশাররফ


বু‌দ্ধিজীবী‌ স্মৃতিসৌধে খা‌লেদার শ্রদ্ধা

বু‌দ্ধিজীবী‌ স্মৃতিসৌধে খা‌লেদার শ্রদ্ধা


দেশে গণতন্ত্র হারিয়ে গেছে: ফখরুল

দেশে গণতন্ত্র হারিয়ে গেছে: ফখরুল


সামাদ তামিম চৌধুরীর সেকেন্ড ইন কমান্ড: পুলিশ

সামাদ তামিম চৌধুরীর সেকেন্ড ইন কমান্ড: পুলিশ


আপন জুয়েলার্সের ৩ মালিকের জামিন

আপন জুয়েলার্সের ৩ মালিকের জামিন


আমরা তোমাদের ভুলবো না

আমরা তোমাদের ভুলবো না


শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে আ.লীগের কর্মসূচি

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে আ.লীগের কর্মসূচি


অন্য কোনো সরকারের দুঃস্বপ্ন দেখে লাভ নেই

অন্য কোনো সরকারের দুঃস্বপ্ন দেখে লাভ নেই


রাষ্ট্রীয় গণতন্ত্র নির্বাসনে: খালেদা জিয়া

রাষ্ট্রীয় গণতন্ত্র নির্বাসনে: খালেদা জিয়া


সাংবাদিক পেটানো ভূমিমন্ত্রীর ছেলে জেলহাজতে

সাংবাদিক পেটানো ভূমিমন্ত্রীর ছেলে জেলহাজতে