Friday, December 1st, 2017
জিম্বাবুয়ের মন্ত্রিসভায় গুরুত্বপূর্ণ পদে সেনা কর্মকর্তারা  
December 1st, 2017 at 9:05 pm
জিম্বাবুয়ের মন্ত্রিসভায় গুরুত্বপূর্ণ পদে সেনা কর্মকর্তারা  

হারারে: জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট এমারসন নানগাগওয়া তার মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম প্রকাশ করার পর দেখা যাচ্ছে, বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাচ্ছেন সেনা কর্মকর্তারা। ফলে দীর্ঘদিনের স্বৈরশাসক রবার্ট মুগাবের পতনের পর যারা পরিবর্তনের আশায় ছিলেন সেনা কর্মকর্তাদের এই নিয়োগ দানে তারা হতাশা প্রকাশ করেছেন।

মুগাবের শাসনামলের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন নানগাগয়া গত সপ্তাহে জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট পদে অভিষিক্ত হন। সম্প্রতি তিনি ২২ জন সদস্যের নতুন মন্ত্রিসভা গঠন করেছেন। এই মন্ত্রিসভার অনেকেই মুগাবের সরকারের সময়ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় ছিলেন।

নানগাগওয়ার মন্ত্রিসভায় সেনা কর্মকর্তাদের গুরুত্বপূর্ণ পদ দেয়া হয়েছে। কিছুদিন আগে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট মুগাবেকে সরানোর জন্য সেনাবাহিনী জিম্বাবুয়ের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল। সেসময় টিভিতে সেনা নিয়ন্ত্রণের কথা যিনি ঘোষণা করেছিলেন সেই জেনারেল সিবুশিসো মোয়োকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়।

এদিকে বিমান বাহিনীর প্রধান পির‍্যানস শিরি কৃষি এবং ভূমিবিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান। গত শতাব্দীর আশির দশকের শুরুতে মাতাবেলেল্যান্ড অঞ্চলে রবার্ট মুগাবের বিরোধিতাকারীদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন পির‍্যানস শিরি। সামরিক বাহিনীর এই অভিযানে প্রায় ২০ হাজারের মত মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলেন।

এছাড়া ভূমি মন্ত্রী হিসেবে জিম্বাবুয়ের বিতর্কিত ভূমি সংস্কার কর্মসূচির দায়িত্বও তার উপর বর্তাবে।

নতুন মন্ত্রিসভা নিয়ে জিম্বাবুয়ের অনেকেই হতাশা প্রকাশ করেন। জিম্বাবুয়ের আল জাজিরার প্রতিবেদক হারু মুতাশা বলেন, সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হল, কোন কিছুরই পরিবর্তন ঘটছে না। রবার্ট মুগাবে যখন প্রেসিডেন্ট ছিলেন সেসময়ের সরকারের অনেক লোককে এখনো দেখতে পাওয়া যাচ্ছে।

জিম্বাবুয়ের একজন নাগরিক হতাশা প্রকাশ করে জানান, এটা সেই একই বাস, যদিও চালকের পরিবর্তন হয়েছে কিন্তু বাস এখনো একই রকম আছে।

তবে এতদসত্ত্বেও রবার্ট মুগাবের ৩৭ বছরের শাসনামল থেকে যে মুক্তি মিলেছে এতেই খুশি জিম্বাবুয়ের অনেক অধিবাসী। নতুন প্রেসিডেন্ট বাস্তবতা উপলব্ধি করে দেশ পরিচালনা করবেন বলে আশা করেন তারা। সূত্র: আল জাজিরা, বিবিসি

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: ফারহানা করিম

 


সর্বশেষ

আরও খবর

রোহিঙ্গা গণহত্যা তদন্তের কারণে রয়টার্সের সাংবাদিক আটক

রোহিঙ্গা গণহত্যা তদন্তের কারণে রয়টার্সের সাংবাদিক আটক


রোহিঙ্গাদের জীবন দুর্বিষহ করে রেখেছে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ

রোহিঙ্গাদের জীবন দুর্বিষহ করে রেখেছে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ


মার্কিন হামলায় সিরিয়ায় সরকারী বাহিনীর ১০০ জন নিহত

মার্কিন হামলায় সিরিয়ায় সরকারী বাহিনীর ১০০ জন নিহত


ব্রিটেনের প্রাচীন মানুষ কৃষ্ণাঙ্গ ছিল

ব্রিটেনের প্রাচীন মানুষ কৃষ্ণাঙ্গ ছিল


কারাগারে বিচারপতির সঙ্গে অসদাচরণ করা হচ্ছে

কারাগারে বিচারপতির সঙ্গে অসদাচরণ করা হচ্ছে


সিরিয়ায় ৪৮ ঘন্টায় নিহত ১৩৬

সিরিয়ায় ৪৮ ঘন্টায় নিহত ১৩৬


মালদ্বীপে জরুরী অবস্থা ঘোষণা

মালদ্বীপে জরুরী অবস্থা ঘোষণা


স্যামসাং প্রধানের মুক্তি

স্যামসাং প্রধানের মুক্তি


মালদ্বীপের সংসদ ভবন ঘেরাও সেনাবাহিনীর

মালদ্বীপের সংসদ ভবন ঘেরাও সেনাবাহিনীর


ইরানে হিজাব আইন লংঘন করায় ২৯ গ্রেফতার

ইরানে হিজাব আইন লংঘন করায় ২৯ গ্রেফতার