Monday, December 26th, 2016
নিরাপত্তা বলয়ে কাজে যোগ দিল শ্রমিকরা
December 26th, 2016 at 5:33 pm
নিরাপত্তা বলয়ে কাজে যোগ দিল শ্রমিকরা

ঢাকা: অবশেষে খুলে দেয়া হল শ্রমিক বিক্ষোভের মুখে বন্ধ থাকা আশুলিয়ার সব কারখানা। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তা বলয়ে খুলে দেয়া কারখানাগুলোতে এরই মধ্যে কাজে যোগ দিয়েছেন শ্রমিকরা। সোমবার আশুলিয়া পোশাক শিল্পাঞ্চল সরেজমিনে পরিদর্শনে এ চিত্র দেখা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত চারদিন ধরে বন্ধ থাকা আশুলিয়ার ৫৯ কারখানা সোমাবার খুলে দেয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি কারখানার সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুরো আশুলিয়া এলাকায় পুলিশের টহল চলছে। কোথাও কোনো বিশৃঙ্খলা দেখা যায়নি। শ্রমিকরা শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতিতে নিজ নিজ কাজে যোগ দিয়েছেন। পুলিশ টহলের সামনে নিজ পরিচয় দিয়ে তারা কারখানায় ঢুকছেন।

জানতে চাইলে শ্রমিক নেতা সিরাজুল ইসলাম রনি নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘সকাল থেকেই আশুলিয়া এলাকায় ছিলাম। সব শ্রমিক দলে দলে কারখানায় কাজে যোগ দিয়েছে। বেলা দুইটা পর্যন্ত কোন অপ্রতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানি। শ্রমিকরা শান্তিপূর্ণভাবে কাজ করছে। তবে পুলিশি পাহারায় শ্রমিকরা একটু বেশি ভোগান্তিতে পড়ছে। পরিচয় দেয়ার বিড়ম্বনায় কারখানায় ঢুকতে সময় বেশি লেগে যাচ্ছে।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ আশুলিয়ার বন্ধ কারখানাগুলো খোলার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়। পোশাক শ্রমিকদের আজ (সোমবার) সকাল থেকে কারখানায় যোগ দিতে অনুরোধ করেন বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান। বিজিএমইএর সভাপতি বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ, শ্রমিক ভাইবোনদের অনুরোধ ও সার্বিক অর্থনীতির দিক বিবেচনা করে আশুলিয়ার যে ৫৯ কারখানা বন্ধ আছে, সেগুলো সোমবার খুলে দেওয়া হবে।

মজুরি বৃদ্ধি, শ্রমিক ছাঁটাই না করা, বাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি না করাসহ বেশ কিছু দাবিতে ১১ ডিসেম্বর থেকে উত্তপ্ত হয়ে উঠে আশুলিয়ার পোশাক শিল্প এলাকা। ২০ ডিসেম্বর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে না পেরে বিজিএমইএ ৫৫টি কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয়। শ্রমিক অশন্তোষের কারণে বন্ধ থাকা ওই কারখানায় প্রতিদিন গড়ে ৮০ কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুক্ষিণ হয় মালিকপক্ষ। সে হিসাবে গত ১৫ দিনে প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে এ শিল্পে। শিল্প ও শ্রমিকের স্বার্থের দিকে খেয়াল রেখেই ২৬ ডিসেম্বর সোমবার থেকে কারখানা খুলে দেয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালিকপক্ষ।

অপরদিকে ৫৯টি কারখানা বন্ধে প্রায় ১ লাখ ৭৭ হাজার শ্রমিক বেকারত্বের আশঙ্কায় পড়েছেন বলে জানিয়েছেন রেডিমেট গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি লাভলী আক্তার। তিনি বলেন, ‘আশুলিয়ার ৫৯টি কারখানায় নোটিশ টানিয়ে দিয়েছেন কারখানা মালিকরা। এতে অনেক শ্রমিক কাজ যোগ দিতে এসে ফিরে গেছেন। আশুলিয়ার বন্ধ হওয়া ওই ৫৯ কারখানায় ন্যূনতম ৩ হাজার করে শ্রমিক ধরলেও ১ লাখ ৭৭ হাজার শ্রমিক এখন শঙ্কার মধ্যে আছে। কারণ কারখানা মালিকরা ঘোষণা দিয়ে কারখানা বন্ধ করে দিয়েছে। মালিকদের এই সিদ্ধান্ত শ্রমিকবান্ধব নয়।

প্রতিবেদক: রিজাউল করিম, সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

নেপালের কাছে হেরে বিদায় বাংলাদেশের, সেমিতে নেপাল-পাকিস্তান

নেপালের কাছে হেরে বিদায় বাংলাদেশের, সেমিতে নেপাল-পাকিস্তান


জনগণ ভোট দিলে আসবো, নাহলে আসবো না: প্রধানমন্ত্রী

জনগণ ভোট দিলে আসবো, নাহলে আসবো না: প্রধানমন্ত্রী


টেকনাফে ৯ লাখ পিছ ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফে ৯ লাখ পিছ ইয়াবা উদ্ধার


বিচার করার এখতিয়ার নেই আইসিসি’র: মিয়ানমার

বিচার করার এখতিয়ার নেই আইসিসি’র: মিয়ানমার


ট্রেনে ‘নির্বাচন যাত্রা’য় আওয়ামী লীগ

ট্রেনে ‘নির্বাচন যাত্রা’য় আওয়ামী লীগ


খালেদা জিয়াকে হত্যার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল

খালেদা জিয়াকে হত্যার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার: মির্জা ফখরুল


শ্রীনগরে পুলিশের ‘চেকপোস্টে হামলা’, ২ জন নিহত

শ্রীনগরে পুলিশের ‘চেকপোস্টে হামলা’, ২ জন নিহত


আইসিসিতে মিয়ানমারের বিচারের পথ খুলল

আইসিসিতে মিয়ানমারের বিচারের পথ খুলল


আকাশবীণা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আকাশবীণা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


জেনে নিন কলার গুণাগুণ

জেনে নিন কলার গুণাগুণ