Sunday, October 23rd, 2016
পরবর্তী সাধারণ সম্পাদকের অপেক্ষায় নেতাকর্মীরা
October 23rd, 2016 at 1:57 pm
পরবর্তী সাধারণ সম্পাদকের অপেক্ষায় নেতাকর্মীরা

প্রীতম সাহা সুদীপ, ঢাকা: ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দু’দিনব্যাপী সম্মেলনের শেষ দিনেও দলের সাধারণ সম্পাদক কে হচ্ছেন এই নিয়েই নেতাকর্মীদের মধ্যে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। কেউ বলছেন সৈয়দ আশরাফই থাকছেন, আবার কেউ বলছেন ওবায়দুল কাদেরই হতে চলেছেন পরবর্তী সাধারণ সম্পাদক।

শুধু তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মী নয়, কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যেও এ নিয়ে উৎসাহ উত্তেজনার শেষ নেই। রোববার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (মিডিয়া) মাহবুবুল হক শাকিলের ফেসবুকে পোস্ট করা একটি ছবি দেখে এমনটাই বোঝা যায়।

ছবিটির ক্যাপশন ছিল “পিকচার অব দ্য ডে, ফটো ক্রেডিট- মাই সেলফ।” ছবিতে দেখা যায় হাস্যোজ্জ্বল মুখে বসে আছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদের দুই দাবিদার সৈয়দ আশরাফ ও ওবায়দুল কাদের। তবে ছবিতে আশরাফের থেকে কাদেরের মুখখানা বেশি উজ্জ্বল ছিল।

status-about-asraf-kader

শনিবার কাউন্সিলের প্রথম অধিবেশনে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফের বক্তব্য শুনে অনেকেই ধারণা করেছেন এটা তার বিদায়ী ভাষণ ছিল। কারণ তার সে ভাষণে শোনা গেছে বিষাদের সুর।

কাউন্সিলের প্রথম অধিবেশনে সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট পেশ করতে গিয়ে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, “আমি দু’বার সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে দলে কোনও ‘ইজম’ তৈরি করিনি। দল ঐক্যবদ্ধ ছিল।”

এদিকে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সাথে বলে জানা গেছে তাদের বড় একটি অংশ এবারো সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সৈয়দ আশরাফকেই দেখতে চান। সাধারণ সম্পাদকের পদটি নিয়ে ধোঁয়াশাও তৈরি হয়েছে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও কাউন্সিলর ডেলিগেটদের মধ্যে। অনেককেই বলতে শোনা গেছে, আশরাফ ও কাদের কেউ নন, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এ পদে আসছেন তৃতীয় কোনও নেতা।

11

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নূহ-উল আলম লেনিন বলেন, ‘দলের আগামীর সাধারণ সম্পাদক কে হচ্ছেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। এই নিয়ে ধোঁয়াশা এখনও রয়েছে। তবে সময় হলেই এ ধোঁয়াশা কেটে যাবে। নেতা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ কখনও ভুল করেনি, এবারও ভুল করবে না।’

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দু’দিনব্যাপী ২০তম জাতীয় সম্মেলনের শেষ দিনে আজ রোববার ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউট এ কমিটি গঠনের অধিবেশন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে শুরু হয়। অধিবেশনের পুরো সময় সেখানে অবস্থান করবেন প্রধানমন্ত্রী।

ছয় হাজার ৭৫০ কাউন্সিলর নিয়ে বৈঠক হবে। কউন্সিলরদের বৈঠক শেষে হবে ভোট গ্রহণ এবং নেতৃত্ব নির্বাচন। এ জন্য গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যদের নির্বাচন কমিশন। যার প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন দলটির উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন ড. মসিউর রহমান ও রাশেদ উল আলম।

সম্পাদনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী


কাল দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

কাল দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


স্বাধীনতাবিরোধীদের সন্তানদের চাকরিতে অযোগ্য ঘোষণার দাবি

স্বাধীনতাবিরোধীদের সন্তানদের চাকরিতে অযোগ্য ঘোষণার দাবি


ছাত্রলীগকে নিয়ে আমরা নতুন করে ভাবছি: ওবায়দুল কাদের

ছাত্রলীগকে নিয়ে আমরা নতুন করে ভাবছি: ওবায়দুল কাদের


ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ফের রানওয়ে থেকে ছিটকে গেল বিমান

ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ফের রানওয়ে থেকে ছিটকে গেল বিমান


নানা-নানীর কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত রাজীব

নানা-নানীর কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত রাজীব


খালেদা জিয়া ভালো আছেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

খালেদা জিয়া ভালো আছেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


শেষ বিকেলে কালবৈশাখীর হানা

শেষ বিকেলে কালবৈশাখীর হানা


সিরিয়ায় একযোগে যুক্তরাষ্ট্র-ব্রিটেন-ফ্রান্সের হামলা

সিরিয়ায় একযোগে যুক্তরাষ্ট্র-ব্রিটেন-ফ্রান্সের হামলা


এশার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার ছাত্রলীগের

এশার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার ছাত্রলীগের