Thursday, January 12th, 2017
মৃত ব্যক্তিকে পলাতক দেখিয়ে বিচার ট্রাইব্যুনালের ক্ষোভ
January 12th, 2017 at 1:59 pm
মৃত ব্যক্তিকে পলাতক দেখিয়ে বিচার ট্রাইব্যুনালের ক্ষোভ

ঢাকা: মানবতা বিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত ময়মনসিংহের ওয়াজ উদ্দিনকে পলাতক দেখিয়ে বিচার শুরু করায় প্রসিকিউশন ও তদন্ত সংস্থার প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ট্রাইব্যুনাল। সঙ্গে সঙ্গে আসামি মারা যাওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে প্রসিকিউশন টিমকে মৌখিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে দুই সদস্যের অন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এই আদেশ দেন। এ সময় আদালতে চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপু, সৈয়দ হায়দার আলী, ঋষিকেষ সাহা, মো. মোখলেসুর রহমান বাদল, সায়েদুল হক সুমন, শেখ মুসফেক কবীর, জাহিদ ইমাম ও সাবিনা ইয়াসমিন খান মুন্নি, উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রসিকিউটর হায়দার আলী সাংবাদিকদের বলেন, ট্রাইব্যুনাল বলেছেন, মৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা চলতে পারে না। এটা আইন বিরুদ্ধ কাজ। তিনি বলেন, ‘আদালত আমাদের মৌখিকভাবে এ বিষয়ে যাদের গাফিলতি আছে তা খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দিয়েছেন।’

অপরদিকে আসামিপক্ষের রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী গাজী এম এইচ তামিম বলেন, মৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে বিচার শুরুর বিষয় ট্রাইব্যুনাল আমাকেও খতিয়ে দেখতে বলেছেন।’

এই মামলায় তিনজন আসামি ছিল, আসামিদের একজন মারা গেছেন, আসামি  রিয়াজ উদ্দিন ফকির  কারাগারে  আছেন। অপর আসামি পালাতক দেখিয়ে বিচার কার্যক্রম চলছিল।

এর আগে বেসরকারি চ্যানেল সময় টিভিতে ‘মৃত ওয়াজ উদ্দিনকে পলাতক ঘোষণা করে ট্রাইব্যুনালে বিচার চলছে’ শিরোনামে একটি  রিপোর্ট প্রচারিত হয়। প্রতিবেদনটি আজ ট্রাইব্যুনালের নজরে আসার পর ট্রাইব্যুনাল ক্ষোভ দেখায়। প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাইব্যুনালে ওয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের ৭ মাস আগেই মারা গেছেন তিনি। একাত্তরের হত্যা, গণহত্যা মামলার আসামি ওয়াজ উদ্দিন। তার বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের অক্টোবরে তদন্ত শুরু করে তদন্ত সংস্থা। শুরু থেকেই পলাতক দেখিয়ে তাকে ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে বলেও পুলিশের রিপোর্টে বলা হয়। গত ১১ ডিসেম্বর ওয়াজ উদ্দিনকে পলাতক ঘোষণা করে, তারপক্ষে রাষ্ট্রীয় খরচে আইনজীবী নিয়োগ দিয়ে বিচার শুরুর আদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মৃত্যু সনদে বলা হয়, প্রায় ৮ মাস আগে ২০১৬ সালের ৭ মে ওয়াজউদ্দিন মারা গেছেন। সবচেয়ে মজার ঘটনা হচ্ছে মৃত্যুর ৯ দিন পর তাকে আদালতে হাজিরে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির আদেশ আসে ট্রাইব্যুনাল থেকে। পরে তাকে হাজির করতে দুইটি জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। এই মামলার অপর আসামি রিয়াজ উদ্দিন ফকির কারাগারে আছেন।

মামলার বিবরণ: ২১ সেপ্টম্বর এই মামলায় দুজনের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনালে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) দাখিল করা হয়।দুই আসামির মধ্যে রিয়াজ উদ্দিন ফকির (৬৫) গ্রেফতার হয়ে কারাগারে রয়েছেন। আরেক আসামি ওয়াজউদ্দিন (৭০) পলাতক। এর আগে এক আসামি আমজাত আলী (৮৮) গ্রেফতারের পর দুর্ঘনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন, প্রসিকিউটর ঋষিকেষ সাহা ও শেখ মোসফেক কবির।

তদন্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান ২০১৪ সালের ১০ অক্টোবর তদন্ত শুরু করেন। ২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তদন্ত শেষে তাদের বিরুদ্ধে ৫টি অভিযোগ এনে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

২০১৫ সালের ১১ আগস্ট ফুলবাড়িয়া উপজেলার কেশরগঞ্জ গ্রাম থেকে আমজাদ হোসেন ও ভালুকজান গ্রামের রিয়াজ উদ্দিন ফকিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরদিন ১২ আগস্ট তাদের ঢাকায় নেয়ার পথে গাজীপুরে পুলিশের পিকআপের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাসের মুখমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুই আসামি ও ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমজাদ হোসেন ওরফে আমজাদ হাজী (৯০) মারা যান।

প্রতিবেদক: ফায়েজ, সম্পাদনা: জাবেদ


সর্বশেষ

আরও খবর

ক্রিকেটেও ‘লাল কার্ড’!

ক্রিকেটেও ‘লাল কার্ড’!


তুরস্কে মাধ্যমিকের পাঠ্যক্রম থেকে ডারউইনের তত্ত্ব বাদ

তুরস্কে মাধ্যমিকের পাঠ্যক্রম থেকে ডারউইনের তত্ত্ব বাদ


কাতারকে কড়া হুঁশিয়ারী আরব আমিরাতের

কাতারকে কড়া হুঁশিয়ারী আরব আমিরাতের


অবশেষে লংগদুর পাহাড়িরা সরকারি ত্রাণ নিল

অবশেষে লংগদুর পাহাড়িরা সরকারি ত্রাণ নিল


‘ঈদের পর বিএনপিকে আন্দোলনের সুযোগ দেওয়া হবে না’

‘ঈদের পর বিএনপিকে আন্দোলনের সুযোগ দেওয়া হবে না’


সৌদি আরবে ঈদ রোববার

সৌদি আরবে ঈদ রোববার


ঈদযাত্রায় সড়কে ঝরল ৩১ প্রাণ

ঈদযাত্রায় সড়কে ঝরল ৩১ প্রাণ


১০ হাজার ডাক্তার নিয়োগ দেবে সরকার

১০ হাজার ডাক্তার নিয়োগ দেবে সরকার


ফিলিপাইনে জঙ্গিদের মধ্যে ‘৩ বাংলাদেশি’

ফিলিপাইনে জঙ্গিদের মধ্যে ‘৩ বাংলাদেশি’


‘দেশে এখন বিচারের বাণী নিরবে-নিভৃতে কাঁদে’

‘দেশে এখন বিচারের বাণী নিরবে-নিভৃতে কাঁদে’