Wednesday, November 16th, 2016
স্কুল শিক্ষার্থীর হিজাব ছিঁড়লো আরেক শিক্ষার্থী  
November 16th, 2016 at 7:18 pm
স্কুল শিক্ষার্থীর হিজাব ছিঁড়লো আরেক শিক্ষার্থী  

শিকাগো: ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে মুসলিম, ল্যাটিনো এবং আফ্রিকান-আমেরিকানদের ক্রমাগত হেনস্তার খবর বিশ্বগণমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে। এই তালিকায় সম্প্রতি মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের একটি স্কুলে হিজাবধারী একজন শিক্ষার্থীর হিজাব ছিঁড়ে ফেলার ঘটনার খবর যুক্ত হয়েছে।

মিনেসোটার কুন র‍্যাপিডস এলাকার নর্থডেল মিডল স্কুলের একজন মুসলিম শিক্ষার্থী এই হয়রানির শিকার হয়। গত শুক্রবার মেয়েটির একজন সহপাঠী তার হিজাব ছিঁড়ে ফেলে দেয় এবং চুল ধরে টানাটানি করে। কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস এটিকে শারীরিক হামলার ঘটনা বলে উল্লেখ করেছে।

হয়রানির শিকার মেয়েটির পরিবার কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস এর কাছে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করেছে। তারা জানান, ক্লাসরুমে হিজাবধারী মেয়েটির পিছনে একজন শিক্ষার্থী এসে তার হিজাব টেনে ছিঁড়ে ফেলে এবং তা মাটিতে ফেলে দেয়। এরপর সবার সামনে তার মাথার চুল ধরে টানাটানি করে। কাউন্সিল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত শুক্রবার এই ঘটনাটি ঘটলেও মঙ্গলবার পর্যন্ত স্কুল ডিস্ট্রিক্ট এই বিষয়ে কোন প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক জিলানি হুসেন এক বিবৃতিতে বলেন, সব শিক্ষার্থীর ধর্মীয় বিশ্বাস সমুন্নত রাখা এবং একটি নিরাপদ শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখার জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষের এই বিষয়ে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত। তিনি উল্লেখ করেন, হামলাকারী কেবল একজন শিক্ষার্থীকে হয়রানি করেই ক্ষ্যান্ত হয়নি বরং আরো অনেক মুসলিম শিক্ষার্থীদের টার্গেট করেছে।

এদিকে আনোকা-হেনিপিন স্কুল ডিসট্রিক্টের মুখপাত্র জিম স্কেলি হিজাবের কারণে মুসলিম শিক্ষার্থী হেনস্তার ঘটনা তদন্ত করে দেখার কথা জানিয়েছে। তিনি এটিকে বিচ্ছিন্ন একটি ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেন।

প্রসঙ্গত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর নর্থডেল স্কুল ছাড়াও মিনেসোটার আরো অনেক স্কুলে মুসলিম শিক্ষার্থীরা হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে।

গত সপ্তাহে মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থীকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি হিজাব অপসারণ না করলে আগুন লাগিয়ে দেয়ার হুমকি দেয়।

এছাড়া জর্জিয়ায় হাই স্কুলের একজন শিক্ষিকাকে তার মাথার স্কার্ফ দিয়ে তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে একটি চিঠি পাঠানো হয়।

কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস কর্তৃপক্ষের দাবি, ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজয়ী হওয়ার ফলে হঠাৎ করে ইসলামোফোবিয়া বেড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে।সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

গ্রন্থনা: ফারহানা করিম, সম্পাদনা: জাহিদ


সর্বশেষ

আরও খবর

ভারতে বজ্রবৃষ্টি ও ধূলিঝড়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২৫

ভারতে বজ্রবৃষ্টি ও ধূলিঝড়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২৫


আত্মসমর্পণ করছে সিরিয়ার বিদ্রোহীরা  

আত্মসমর্পণ করছে সিরিয়ার বিদ্রোহীরা  


ভারতে ধুলোঝড় এবং ভারী বৃষ্টিপাতে নিহত ১০৮  

ভারতে ধুলোঝড় এবং ভারী বৃষ্টিপাতে নিহত ১০৮  


বিশ্বের তৃতীয় দূষিত নগরী ঢাকা

বিশ্বের তৃতীয় দূষিত নগরী ঢাকা


নাইজেরিয়ায় মসজিদে বোমা হামলায় নিহত ২৪

নাইজেরিয়ায় মসজিদে বোমা হামলায় নিহত ২৪


সিরিয়ায় আইএস দখলকৃত অঞ্চলে বিমান হামলায় নিহত ২৩

সিরিয়ায় আইএস দখলকৃত অঞ্চলে বিমান হামলায় নিহত ২৩


ট্রাম্পকে প্রভাবিত করার উদ্দেশ্যে মিথ্যা বলছে নেতানিয়াহু

ট্রাম্পকে প্রভাবিত করার উদ্দেশ্যে মিথ্যা বলছে নেতানিয়াহু


ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হলেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাজিদ জাভিদ  

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হলেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাজিদ জাভিদ  


আফগানিস্তানে বোমা হামলায় ৯ সাংবাদিকসহ নিহত ২৯

আফগানিস্তানে বোমা হামলায় ৯ সাংবাদিকসহ নিহত ২৯


গাজা বিক্ষোভ: ৩ ফিলিস্তিনি নিহত, আহত ৩৫০

গাজা বিক্ষোভ: ৩ ফিলিস্তিনি নিহত, আহত ৩৫০