Saturday, July 30th, 2016
অজিদের হারিয়ে শ্রীলংকার ইতিহাস
July 30th, 2016 at 7:05 pm
অজিদের হারিয়ে শ্রীলংকার ইতিহাস

ঢাকা: সাদা পোশাকে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে শ্রীলংকা। স্টিভেন স্মিথের দলকে তারা হারিয়েছে ১০৬ রানের বিশাল ব্যবধানে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এটি মাত্র শ্রীলংকার দ্বিতীয় টেস্ট জয়। ব্যাট হাতে এক কুশল মেন্ডিস আর বল হাতে রঙ্গনা হেরাথের ঘূর্ণির কাছেই পরাজয় বরণ করতে হলো অসিদের। দ্বিতীয় ইনিংসে কুশল মেন্ডিসের ব্যাটেই শ্রীলংকা ঘুরে দাঁড়ায়। ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরী হিসেবে ১৭৬ রান করে লংকানদের জয়ের ভিত রচনা করেন তিনি। এরপর জয়ের জন্য দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া যখন ২৬৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নামে রঙ্গণা হেরাথ আর লক্ষ্মণ সান্ধাকানের ঘূর্নির মুখে পড়ে স্টিভেন স্মিথের দল। ফলে মাত্র ১৬১ রানেই অলআউট হয়ে যায় সফকারীরা।

পাল্লেকেলেতে যেভাবে টেস্ট শুরু হয়েছিল, তাতে মনে হচ্ছিল ৩দিনেই সম্ভবত ম্যাচ জিতে নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দিন টস জিতে মাত্র ৩৪.২ ওভারে ১১৭ রানে অলআউট শ্রীলংকা। দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া অলআউট ২০৩ রানে। তবুও, তাদের লিড দাঁড়ালো ৮৬ রানের। দ্বিতীয় ইনিংসে শুরুতে যেভাবে উইকেট হারানো শুরু করেছিল লংকানরা, তাতে ইনিংস পরাজয় না হোক, বড় ব্যবধানে পরাজয়ই দেখতে শুরু করেছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু তৃতীয় দিনে এসে অবিশ্বাস্যভাবে অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের সামনে দাঁড়িয়ে যায় কুশল মেন্ডিস। ১৬৯ রানে তৃতীয় দিন অপরাজিত থাকেন তিনি এবং লংকানদের ১৯৬ রানের লিড এনে দেন। চতুর্থ দিন নিজের ইনিংস আর বেশি লম্বা করতে পারেননি কুশল। আউট হয়ে যান আর মাত্র ৭ রান যোগ করে। অথ্যাৎ ১৭৬ রানে। তবে ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, রঙ্গনা হেরাথদের দৃঢ়তায় শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৫৩ রানে অলআউট হয় শ্রীলংকা এবং তাদের লিড দাঁড়ায় ২৬৭ রান।

জয়ের জন্য ২৬৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে চতুর্থ দিন বিকালেই ৬৩ রানের মাথায় ৩ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ৩ উইকেটে ৭২ রান নিয়ে পঞ্চম দিন শুরু করে অসিরা। অ্যাডাম ভোজেস ১২, মিচেল মার্শ ২৫ এবং স্টিভেন স্মিথ ৫৫ রান করেন। বাকিদের কেউই আর দুই অংকের ঘর ছুঁতে পারেননি। যদিও শেষ দিকে ৩১ ওভার ব্যাট করে মাত্র ৪ রান করেন স্টিভেন ও’কেফি এবং পিটার নেভিল। শেষ পর্যন্ত মাত্র ১৬১ রানেই অলআউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। দিনের তখনও বাকি ছিল ২৮ ওভার।

রঙ্গনা হেরাথ ৫৪ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। লক্ষ্মণ সান্ধাকান নেন ৩ উইকেট। দিলরুয়ান পেরেরা এবং ধনঞ্জয়া ডি সিলভা নেন ১টি করে উইকেট। দুই ইনিংস মিলিয়ে রঙ্গনা হেরাথ ৯ উইকেটের পাশাপাশি ৪১ রান করলেও ১৭৬ রান করে শ্রীলংকাকে টেস্টে বাঁচিয়ে রাখার পুরস্কার হিসেবে ম্যাচ সেরা হয়েছেন কুশল মেন্ডিস।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালে স্টিভ ওয়াহর নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়াকে প্রথমবারেরমত হারিয়েছিল শ্রীলংকা। সেটা অবশ্যই নিজেদের মাটিতে। সেবার অসিদের প্রথম টেস্টে হারানোর পর বাকি টেস্টগুলো ভেসে যায় বৃষ্টিতে। ফলে সিরিজও জেতে শ্রীলংকা। এরপরই টানা ১৬টি টেস্ট জিতে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে অস্ট্রেলিয়া। মুত্তিয়া মুরালিধরন, চামিন্দা ভাস, জয়াবর্ধনে, সাঙ্গাকারা কিংবা জয়সুরিয়ারাও পারেনি অস্ট্রেলিয়াকে আর হারাতে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/টিএস


সর্বশেষ

আরও খবর

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডের জন্য ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডের জন্য ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা


করোনায় আক্রান্ত শচীন

করোনায় আক্রান্ত শচীন


৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কেকেআরে সাকিব

৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কেকেআরে সাকিব


ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট দল ঘোষণা

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট দল ঘোষণা


জয়ে শুরু বাংলাদেশের ক্রিকেট, প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

জয়ে শুরু বাংলাদেশের ক্রিকেট, প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন


বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজঃ ওয়ানডের দল ঘোষণা বিসিবির

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজঃ ওয়ানডের দল ঘোষণা বিসিবির


আইসিসির দশক সেরা ওয়ানডে দলে সাকিব

আইসিসির দশক সেরা ওয়ানডে দলে সাকিব


ব্র্যাডম্যানের টেস্ট ক্যাপ ৩ কোটি টাকায় বিক্রি

ব্র্যাডম্যানের টেস্ট ক্যাপ ৩ কোটি টাকায় বিক্রি


যুক্তরাষ্ট্র পৌঁছানোর আগেই শ্বশুরকে হারালেন সাকিব

যুক্তরাষ্ট্র পৌঁছানোর আগেই শ্বশুরকে হারালেন সাকিব


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ