Tuesday, January 15th, 2019
অবৈধ প্রবেশের সময় বাংলাদেশী যুবকের মৃত্যু, মৃতদেহ নিয়ে বিপাকে মার্কিন কর্তৃপক্ষ
January 15th, 2019 at 10:01 pm
অবৈধ প্রবেশের সময় বাংলাদেশী যুবকের মৃত্যু, মৃতদেহ নিয়ে বিপাকে মার্কিন কর্তৃপক্ষ

এম কে রায়হান;

ঢাকা: অবৈধপথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের সময় আরও এক বাংলাদেশী যুবকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। টেক্সাসের সীমান্তবর্তী রিও গ্র্যান্ড নদীতে ডুবে যাওয়ার তিন মাসেরও বেশি সময় অতিবাহিত হলেও ওই যুবকের পরিবার এখনও বিশ্বাসই করছেন না যুবকটি মারা গেছে। তাদের কথা, আমাদের লোক আছে, তারা জানিয়েছে কাজী আব্দুল আজিজ তারেক নিরাপদে আছে। যদিও পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছে বিগত মাসগুলোতে তারেকের সাথে তাদের কথা হয়নি।

এদিকে, মার্কিন ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষ মানবাধিকার কর্মীদের সহায়তায় ঐ যুবকের পরিচয় শনাক্ত করেছে। নিউইউর্কে কর্মরত এশিয়ান অভিবাসিদের নিয়ে কাজ করা ‘ড্রাম’ এর সদস্যদের কাছে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তারা লাশ গ্রহন করবেন না। সেক্ষেত্রে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে আমেরিকান কর্তৃপক্ষের ঐ বাংলাদেশী যুবকের মৃতদেহটি ধ্বংস করে দেয়া ছাড়া আর কোনো উপায় থাকবে না বলে জানিয়েছেন ‘ড্রাম’ এর পরিচালক কাজী ফৌজিয়া।

কাজী ফৌজিয়া জানান, ১১ অক্টোবর বাংলাদেশী এক যুবক রিও গ্র্যান্ড নদীর সিমান্তে ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে ধরা পরে। তখন সে জানায়, নীল শার্ট আর লাল শর্ট প্যান্ট পরা একটি ছেলে রিও গ্র্যান্ড নদীতে ভেসে গেছে। তার ঠিক পাঁচদিন পরেই একটি মৃতদেহ পাওয়া যায় নদীর তীরে।

আমেরিকা থেকে সরবরাহকৃত যুবকের ছবি; পরিবারের পক্ষ থেকে মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত করা হয়নি

বর্ডার অতিক্রমের সময় তারেকের সঙ্গে থাকা আরেক বাংলাদেশী জেলখানায় পুলিশকে জানায় তার একজন বন্ধু নদীতে ডুবে গেছে। ঐ যুবক জানায় ডুবে যাওয়ার সময় তারেকের পরনে ছিল নীল টি শার্ট ও লাল রঙের শর্টস। তার কথার সূত্র ধরেই ডাক্তার ড্রাম এর কর্মকর্তাকে ইমেইল জানতে চান বাংলাদেশী কমুনিটির কারো কোনো আত্মীয় নদী পার হচ্ছিল কিনা । ১৬ অক্টোবর ডাক্তার জানায় একটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে যার সাথে কারাগারে বন্ধী যুবকের দেওয়া তথ্যের মিল পাওয়া গেছে। পরবর্তীতে নিউইয়র্ক এ অনস্থানকারী নোয়াখালীর বব্যবসায়ী জাহিদ মিন্টু র সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ড্রাম কর্মকর্তাকে তারেকের ছবি পাঠায়। সেই ছবি আবারো পাঠানো হয় কারাগারে আটক যুবকের কাছে এবং সে তা পুনরায় সনাক্ত করে। আর পরিবার জাহিদ মিন্টু কে বলে নিখোঁজ যুবকের তার পেটে অপারেশন আর পায়ে ফোরার দাগ আছে, ডাক্তারকে এই তথ্য জানানোর পরে তিনিও তা নিশ্চিত করেন।


আমেরিকা থেকে সরবরাহকৃত যুবকের ছবি

এরপর তারেকের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হয়। দেশে পাঠানোর সকল প্রক্রিয়া শেষ হলে তারেকের পরিবার তার লাশ নিতে অস্বীকৃতি জানায়। তাদের দাবি এটা তাদের ছেলের লাশ নয়।

এ বিষয়ে তারেকের ভাই মান্নান নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, ‘আমার ভাই এখনও জীবিত আছে। আমার সাথে তার সরাসরি কথা না হলেও আমাদের লোক আছে সেখানে। তার সাথে তারেকের সব সময় কথা হচ্ছে। তারেক নিরাপদে আছে বলে আমাকে তারা জানিয়েছে।’

এ বিষয়ে কাজী ফৌজিয়া নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, ‘একজন মানবাধিকার কর্মী হিসেবে সীমান্তের কোনো হাসপাতাল থেকে কোনো ফোন আসলে পরিচয় বের করার জন্য আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করি। আমি কাজটি কোন অফিসিয়াল দায়িত্ব থেকে না বরং মানবতার জন্যই করি।’

উল্লেখ্য, মেক্সিকো হয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে গিয়ে গত ৫ মাসে টেক্সাসের লরেডো সীমান্তে অন্তত ২৩০ জন বাংলাদেশী আটক হয়েছে। শুধু গত ১৭ মে পৃথক দু’টি ঘটনায় সেখানে আটক হয়েছে ৮ জন। গত বছরের ১২ ও ১৪ মে দুইদিনের ব্যবধানে দুই বাংলাদেশী তরুণের মৃতদেহ পাওয়া যায় এই রিও নদীতে। ইউএস বর্ডার পেট্রোলের হিসেব, ১৯৯৮ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত অন্তত ৭,২১৬ জন অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিতে গিয়ে মারা গেছে।

সম্পাদনা: নজরুল ইসলাম


সর্বশেষ

আরও খবর

নুসরাত হত্যা মামলার আরেক আসামি শাকিল গ্রেপ্তার

নুসরাত হত্যা মামলার আরেক আসামি শাকিল গ্রেপ্তার


রাত ১২টা থেকে বন্ধ হচ্ছে ২০ লাখ সিম

রাত ১২টা থেকে বন্ধ হচ্ছে ২০ লাখ সিম


হিমু ভাই, দেখা হবেই – ‘মিস’ নাই ..

হিমু ভাই, দেখা হবেই – ‘মিস’ নাই ..


গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করলেন রানা প্লাজার ‘হিরো’ হিমু

গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করলেন রানা প্লাজার ‘হিরো’ হিমু


বনলতা এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

বনলতা এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী


শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর রহমান

শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর রহমান


ঢাকা-চট্টগ্রামসহ ৮৭ রুটে চলছে পরিবহন ধর্মঘট

ঢাকা-চট্টগ্রামসহ ৮৭ রুটে চলছে পরিবহন ধর্মঘট


বিরতিহীন ‘বনলতা এক্সপ্রস’

বিরতিহীন ‘বনলতা এক্সপ্রস’


সম্পদের নিরাপত্তাহীনতায় জিডি করলেন এরশাদ

সম্পদের নিরাপত্তাহীনতায় জিডি করলেন এরশাদ


চলে গেলেন অভিনেতা সালেহ আহমেদ

চলে গেলেন অভিনেতা সালেহ আহমেদ