Saturday, July 8th, 2017
অর্থপাচার রোধে দেশে জমির দাম বাড়ানো হবে: অর্থমন্ত্রী
July 8th, 2017 at 12:45 pm
অর্থপাচার রোধে দেশে জমির দাম বাড়ানো হবে: অর্থমন্ত্রী

সিলেট: সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমানো টাকা বৃদ্ধির বিষয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, দেশে কালো টাকা বেড়ে গেছে। আর জমির দাম কমার কারণে বিদেশে টাকা পাচার হচ্ছে। তবে পাচার বন্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে সরকার। খুব শিগগিরই জমির সরকারি দাম বাড়িয়ে বাজার দর করা হবে।

আজ শনিবার সকালে সিলেটের নাইওরপুলে একটি ফোয়ারা উদ্বোধন শেষে অর্থমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, পাচার সারা দুনিয়াতেই হয়। তবে রেটস অব গ্রোথ (পাচারের হার) আমাদের একটু বেশি। এর জন্য আমরাও দায়ী। আমাদের এখানে জমির সরকারি মূল্য কমিয়ে রেখেছি। তবে পাচার বন্ধে খুব শিগগিরই জমির সরকারি দাম বাড়িয়ে বাজার দর করা হবে।

রেমিটেন্স প্রবাহ কেন কমছে সে বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, দুটি কারণে কমতে পারে। প্রথমত যারা বিদেশে থাকছেন তাদের অনেকেই সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাসের প্রক্রিয়া করছেন। দ্বিতীয়ত তাদের একটি অভিযোগ আছে রেমিটেন্স পাঠানোর ফি অনেক বেশি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, এই ফি আমরা কমিয়ে আনার চিন্তা ভাবনা করছি, সম্ভবত আগামী মাস থেকে কমে যাবে এবং সেটা হবে নামমাত্র একটি ফি। তাতে রেমিটেন্স প্রবাহে গতি আসবে তিনি আশা করেন।

প্রসঙ্গত, সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে (সুইস ব্যাংক) বাংলাদেশি নাগরিকদের জমা টাকার পরিমাণ বেড়েই চলেছে। এক বছরে বাংলাদেশিদের জমা অর্থের পরিমাণ বেড়েছে ৪০ দশমিক ৭২ শতাংশ। যা দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারত এবং পাকিস্তানের পরই রয়েছে বাংলাদেশের অবস্থান। গত ১৫ জুন সুইজারল্যান্ডের কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে প্রায় ২ বছর ধরে রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়ের গতি নিম্নমুখী। গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রেমিট্যান্স কমেছে সাড়ে ১৪ শতাংশ। গত ৬ বছরে এটিই সর্বনিম্ন, যা উদ্বিগ্ন করছে সরকার, অর্থনীতিবিদ ও ব্যাংক কর্মকর্তাদের। এদিকে চলতি অর্থবছরে রেমিট্যান্স কমে যাওয়ার আশঙ্কা করছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)।

প্রতিনিধি, সম্পাদনা: জেডএইচ


সর্বশেষ

আরও খবর

মাশরাফির নেতৃত্বেই প্রথম শিরোপা, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

মাশরাফির নেতৃত্বেই প্রথম শিরোপা, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন


বাগেরহাটে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে গাছের ধাক্কায় নিহত ৬

বাগেরহাটে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে গাছের ধাক্কায় নিহত ৬


ইউরোপে মানবপাচার চক্রের তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব

ইউরোপে মানবপাচার চক্রের তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব


বিশ্বকাপের ধারাভাষ্যে আতহার আলি

বিশ্বকাপের ধারাভাষ্যে আতহার আলি


বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু, উপচেপড়া ভিড়

বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু, উপচেপড়া ভিড়


বিমানের বহরে পঞ্চম বোয়িং

বিমানের বহরে পঞ্চম বোয়িং


অভিযুক্তদের বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় নিল শোভন-রাব্বানী

অভিযুক্তদের বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় নিল শোভন-রাব্বানী


‘সন্তানের জন্য যা যা করতে হয় প্রধানমন্ত্রী তাই আমার জন্য করেছেন’

‘সন্তানের জন্য যা যা করতে হয় প্রধানমন্ত্রী তাই আমার জন্য করেছেন’


দাঙ্গার পর দ্বিতীয় রাতেও শ্রীলঙ্কাজুড়ে কারফিউ, গ্রেফতার ৬০

দাঙ্গার পর দ্বিতীয় রাতেও শ্রীলঙ্কাজুড়ে কারফিউ, গ্রেফতার ৬০


নাটোরে মা ও প্রতিবন্ধি সন্তানের মরদেহ উদ্ধার

নাটোরে মা ও প্রতিবন্ধি সন্তানের মরদেহ উদ্ধার