Sunday, September 25th, 2016
অর্থ আত্মসাৎ: সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তা গ্রেফতার
September 25th, 2016 at 8:48 am
অর্থ আত্মসাৎ: সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তা গ্রেফতার

বাগেরহাট: সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখা থেকে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জুনিয়র অফিসার (ক্যাশ) ও সিবিএ নেতা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন খলিফাকে (৫০) গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। শনিবার রাতের দিকে খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে ৭ আগস্ট রাতে একই অভিযোগে ওই ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপক শেখ মুজিবর রহমানকে (৫৫) গ্রেফতার করে দুদক। শেখ মুজিবর রহমান বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়নের চাকশ্রী গ্রামের প্রয়াত শেখ হাসান আলীর ছেলে।

ব্যবস্থাপক শেখ মুজিবর রহমান ও জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবুকে ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সাময়িক বরখাস্ত করে। তবে মো. জাহাঙ্গীর হোসেন খলিফা এখনো চাকরিতে বহাল রয়েছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের (বাগেরহাট-খুলনা-সাতক্ষীরা) সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক (এডি) আবুল হাশেম কাজী জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জাহাঙ্গীর হোসেন খলিফাকে খুলনা মহানগরের সোনাডাঙ্গা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি বেশ কিছুদিন ধরে ব্যাংকেও অনিয়মিত ছিলেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রোববার খুলনার সোনাডাঙ্গা থানায় সোপর্দ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, ২০১২ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত বাগেরহাট শহরের রেল রোডের সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক থাকা অবস্থায় শেখ মুজিবর রহমান ও তার ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবু ও আরেক কর্মকর্তাসহ অন্তত ১২ জন ব্যাংক গ্রাহককে সঙ্গে নিয়ে পরস্পর যোগসাজশে ওই ব্যাংকের ১৫০ জন গ্রাহকের এসওডির (সিকিউর ওভার ড্রাফট) বিপরীতে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে তাদের হিসাব থেকে চার কোটি ৪৯ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন।

এই ঘটনায় ২০১৫ সালের ১ অক্টোবর সোনালী ব্যাংকের নতুন যোগদান করা ব্যবস্থাপক খান বাবলুর রহমান বাদী হয়ে ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমানের নাম উল্লেখ করে বাগেরহাট মডেল থানায় অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারণার অভিযোগে একটি মামলা করেন। ওই বছরের ২৪ ডিসেম্বর আমি ওই মামলার তদন্ত শুরু করি।

দুদকের প্রাথমিক তদন্তে টাকা আত্মসাতের প্রমাণ মিলেছে। অর্থ আত্মসাতের সঙ্গে ব্যাংকের তিন কর্মকর্তা ও ১২ জন গ্রাহকের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ব্যাংকের পলাতক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শেখ মাহফিজুর রহমান বাবু আত্মসাৎ করা ৩৫ লাখ টাকা ফেরত দিয়েছেন। তবে এখনো তাকে গ্রেফতার করা যায়নি। এদের সবার বিরুদ্ধে ১৯৪৭ সালের ২নং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় অভিযোগপত্র দেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৩ সেপ্টেম্বর সোনালী ব্যাংকের খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয়ের অভ্যন্তরীণ অডিট নিরীক্ষাকালে সোনালী ব্যাংক বাগেরহাট প্রধান শাখার ওই অর্থ আত্মসাতের তথ্য ফাঁস হয়। এরপর ঘটনা তদন্তে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ পৃথক দুটি কমিটি গঠন করে।

প্রতিবেদন: প্রতিবেদক, সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ


করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


দুবাই পাচারকালে হিথ্রো বিমানবন্দরে ১২ লক্ষ পাউন্ড সহ দুই চেকরিপাবলিক নাগরিককে আটক করেছে ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন

দুবাই পাচারকালে হিথ্রো বিমানবন্দরে ১২ লক্ষ পাউন্ড সহ দুই চেকরিপাবলিক নাগরিককে আটক করেছে ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন


লন্ডনে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে দুই ব্রিটিশ বাঙ্গালীর ৩৬ বছরের কারাদন্ড

লন্ডনে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে দুই ব্রিটিশ বাঙ্গালীর ৩৬ বছরের কারাদন্ড


দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির

দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে