Tuesday, August 23rd, 2016
অ্যামোনিয়ায় মরে যাচ্ছে মাছ, শুকিয়ে যাচ্ছে গাছ
August 23rd, 2016 at 4:41 pm
অ্যামোনিয়ায় মরে যাচ্ছে মাছ, শুকিয়ে যাচ্ছে গাছ

চট্টগ্রাম: শহরের আনোয়ারায় ডাই অ্যামোনিয়া ফসফেট ডিএপি কারখানায় ট্যাংকার বিস্ফোরণের ১২ ঘন্টার মাথায় কারখানাটির আশপাশের খামারের মাছ ব্যাপক হারে মরে গেছে। মঙ্গলবার সকাল আটটার পর থেকে স্থানীয় মৎস্য খামারীরা তাদের খামারের মাছ মরে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে আবু সৈয়দ নামের একজন খামারী তার খামারের মৃত বিভিন্ন প্রজাতির মাছ সংগ্রহ করে ডিএপি কারখানার প্রধান ফটকের সামনে এনে রাখেন। এসময় তিনি সাংবাদিকদের মৃত মাছ দেখিয়ে বলেন, ‘গ্যাস ছড়িয়ে পড়ায় খামারের মাছগুলোর অধিকাংশই মরে গেছে, এখন এসব মাছ তুলে অনত্র্য ফেলে দিতে হবে।’

আবু সৈয়দ আমের জানান, তার খামারের আশপাশের সব খামারের মাছই মরে গেছে, খামারের পাড়ে থাকা গাছগুলোর পাতা জ্বলে গেছে, এসব গাছগুলোও মরে যাবে, আশংকা প্রকাশ করেন তিনি।

ডিএপি কারখানার আশপাশের বেশ কয়েকটি খামারে পানি ফেলে দিয়ে মাছ ধরতে দেখা গেছে স্থানীয়দের। এসময় খামারের তীরে দাড়িয়ে থাকা মানুষদেরকে নাক চেপে অ্যামোনিয়ার ঝাঝালো গন্ধ থেকে রক্ষা পাওয়ার চেষ্টা করতে দেখা গেছে।

এদিকে পরিবেশ অধিদপ্তরের বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মাছ ও অনান্য প্রানী এবং উদ্ভিদ মারা যাওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

চট্টগ্রাম পরিবেশ অধিদপ্তরের সিনিয়র কেমিষ্ট্র মোহাম্মদ কামরুল হাসান জানিযেছেন, ‘অ্যামেনিয়ার কারণে পানির মধ্যে ক্ষারের পরিমান বৃদ্ধি পেয়ে দ্রবিভূত অক্সিজেন ডিও কমে যাবে, এই কারণে মাছ ও অনান্য প্রানি মরে যেতে পারে, মাছ মরে যাওয়া খামারের পানির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে, পরীক্ষার পর বলা যাবে কেন মাছ মরে গেলো।’

সোমবার রাত রাত দশটার দিকে এই বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পানির প্রবাহ দিয়ে গ্যাসের বিষক্রিয়া নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। গ্যাস নি:সরন অনেক কমে গেলেও মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত তা অব্যাহত ছিলো।

বিস্ফোরণে ডিএপি কারখানার এক নং ইউনিটের ৩টি ট্যাংকারের মধ্যে একটি ট্যাংকার ফেটে গেছে, প্রায় ৫’শ টন ধারন ক্ষমতার ট্যাংকারটিতে ২শ টনের বেশি তরল অ্যামোনিয়া ছিলো। বিস্ফোরনের পর অপর ট্যাংকারগুলোর সংযোগ লাইন থেকেও গ্যাস বের হয়েছে।

এদিকে, গ্যাস ছড়িয়ে পড়ার প্রভাবে আশপাশের এলাকায় মাছ মরে যাওয়া প্রসঙ্গে আনোয়ারার উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা গৌতম বাড়ৈয় জানান, ‘মাছ কিংবা অনান্য প্রানি মারা যাওয়ার বিষয়ে আমারা কাছে কোন খবর নেই, তবে কিছু কিছু গাছ মরে যাচ্ছে বলে খবর পেয়েছি।’

এদিকে, খামারীদের মাছ মারা যাওযার প্রসঙ্গে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন জানিয়েছেন, তদন্ত কমিটি ক্ষয়ক্ষতি নিরুপনের পর ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনায় নেয়া হবে।

প্রতিনিধি, সম্পাদনা: তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা


শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন

শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন


জাতীয় পার্টির ‘ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন’ বিরোধী সমাবেশ

জাতীয় পার্টির ‘ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন’ বিরোধী সমাবেশ


চোরের চিরকুট!

চোরের চিরকুট!


সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যার প্রতিবাদে লন্ডনে ‘আমরা সিলেট বাসীর’ মানব বন্ধন

সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যার প্রতিবাদে লন্ডনে ‘আমরা সিলেট বাসীর’ মানব বন্ধন


গালিগালাজের ভয়েস নিজের না দাবি নিক্সন চৌধুরীর

গালিগালাজের ভয়েস নিজের না দাবি নিক্সন চৌধুরীর


এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় চারজনের ছাত্রত্ব বাতিল

এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় চারজনের ছাত্রত্ব বাতিল


মধ্যরাতে গৃহিণীকে তুলে নিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ, আটক ৮

মধ্যরাতে গৃহিণীকে তুলে নিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ, আটক ৮


নোয়াখালীতে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪

নোয়াখালীতে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪


কিশোরগঞ্জে রিভলবারসহ আ.লীগ নেতার ছেলে আটক

কিশোরগঞ্জে রিভলবারসহ আ.লীগ নেতার ছেলে আটক