Sunday, September 16th, 2018
আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখা উন্নয়নের পূর্বশর্ত: প্রধানমন্ত্রী
September 16th, 2018 at 4:31 pm
আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখা উন্নয়নের পূর্বশর্ত: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা এবং আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা একটি দেশের উন্নয়নের অন্যতম পূর্বশর্ত।

রোবার সকালে রংপুর ও গাজীপুর পুলিশের দু’টি পৃথক মেট্রোপলিটন ইউনিটের উদ্বোধনকালে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সরকারি কর্মকর্তা, স্থানীয় জনগণ এবং রংপুর ও গাজীপুর পুলিশ লাইন্সের সঙ্গে সংযুক্ত থেকে এই ইউনিট দু’টির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রংপুর ও গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ইউনিটের উদ্বোধন করছি এই জন্য যে, মানুষের সেবাটা যাতে নিশ্চিত হয়। কারণ দেশের উন্নয়ন করতে হলে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তাটা নিশ্চিত করা দরকার।

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় পুলিশ-র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে যেখানে জঙ্গিবাদ একটি বড় সমস্যা সেখানে বাংলাদেশের মতো একটি ঘণবসতিপূর্ণ দেশে আমরা জঙ্গিবাদ দমনে সাফল্য অর্জন করেছি। পুলিশ বাহিনীকে আমি ধন্যবাদ জানাই, তারা সময়োচিত পদক্ষেপ নিয়েছেন বলেই আজকে আমরা এই জঙ্গিবাদ দমনে সক্ষম হয়েছি। কারণ, তারা আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেছেন। কোনো একটি ঘটনা ঘটলে দিনরাত যখনই হোক, ফোন করলে তাদের সাড়া পেয়েছি।

উত্তরবঙ্গ এক সময় অবহেলিত ছিল উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতিমধ্যে আমরা সেখানে ইপিজেড করেছি, বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করছি। রংপুরকে যেহেতু একটা বিভাগ করেছি, সেখানে বিভাগীয় সুযোগ-সুবিধাটাও যেন স্থানীয় জনগণ পায় সেভাবেই আমরা পদক্ষেপ নিচ্ছি। আজ রংপুর এবং গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের যাত্রা শুরু হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে এই দু’অঞ্চলের মানুষের শান্তি ও নিরাপত্তাটা নিশ্চিত হবে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের পর আপামর জনগোষ্ঠীর ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি। পরিবর্তন হয়েছিল মুষ্ঠিমেয় কিছু মানুষের ভাগ্যের, যারা সংবিধান লঙ্ঘন করেছিল তারাসহ কিছু মানুষের জীবনের উন্নয়ন হয়েছিল। সাধারণ মানুষের কথা কেউ ভাবেনি, তারা দারিদ্র্যসহ বিভিন্ন সমস্যায় নিমজ্জিত ছিল। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের প্রায় ছয় বছর পর আমি দেশে আসি। ১৯৭৫ সালের পর আমাকে দেশে আসতে দেওয়া হতো না। অনেক প্রতিবন্ধকতা ছিল। একপর্যায়ে একরকম জোরকরেই আমি দেশে ফিরেছি। এরপর সারাদেশ ঘুরেছি। ১৯৯৬ সালে সরকার গঠনের পর আমরা জাধারণ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কাজ শুরু করি। তখন থেকেই সাধারণ মানুষের উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছি।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ২০ সেপ্টেম্বর লালমনিরহাট জেলার কালেক্টরেট মাঠে এক বিশাল জনসভাস্থল থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৮৫০ মিটার দৈর্ঘ্য সেতু নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর ফলক উদ্বোধন করেন। ২০১৪ সালের ৩১ জুন নির্মাণ কাজ শেষ করার কথা থাকলেও দুই দফায় সময় বৃদ্ধি করে ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর নির্মাণ কাজ শেষে লালমনিরহাট স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের নিকট হস্তান্তর করেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স নাভানা কন্সট্রাকশন-ডব্লিউএমসিজি। এছাড়া আলাদা প্রজেক্টের মাধ্যমে শেখ হাসিনা তিস্তা সেতুর উত্তরপ্রান্ত থেকে লালমনিরহাটের কাকিনা মোড় পর্যন্ত ৫ দশমিক ২৮ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ, ৩টি কালভার্ট ও ২টি ব্রিজ নির্মাণ করা হয়। অপরদিকে শেখ হাসিনা তিস্তা সেতুর দক্ষিণপ্রান্ত থেকে রংপুরের বাংলাদেশ ব্যাংক মোড় পর্যন্ত ৫ দশমিক ৬৩ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ, ১টি ব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে। এদিকে, বাঞ্ছারামপুরের প্রায় ৭৭১ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ৮ দশমিক ১০ মিটার প্রস্থের সেতুটিও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে নামকরণ করা হয়েছে। সেতু নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৯৯ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। সেটি চালু হওয়ার মাধ্যমে বাঞ্ছারামপুর, কুমিল্লা জেলার হোমনা, মুরাদনগর এলাকার অন্তত পাঁচ লাখ মানুষ উপকৃত হবে বলে জানা গেছে।

জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন ও পুলিশের আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাভেদ পাটোয়ারি অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। ভিডিও কনফারেন্সটি সঞ্চালনা করেন মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার


নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু