Sunday, December 24th, 2017
‘আগে জানলে মুক্তিযুদ্ধই করতাম না’
December 24th, 2017 at 8:32 pm
‘আগে জানলে মুক্তিযুদ্ধই করতাম না’

ঢাকা: ‘আমি যদি জানতাম স্বাধীনতার এত বছর পর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের শহীদ মিনারে এসে অনশন করতে হবে তাহলে আমি মুক্তিযুদ্ধই করতাম না’ বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী।

রোববার বিকেলে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের আমরণ অনশনে যোগ দিয়ে এই মন্তব্য করেন তিনি।

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের এই সভাপতি বলেন, ‘দুঃখে বুক ফেটে যায়, যারা মানুষ গড়ার কারিগর তাদের বৈষ্যমের শিকার হতে হয়। তাদের অধিকার আদায়ের জন্য রাস্তায় নামতে হয়। শহীদ মিনারে রাত কাটাতে হয়। অনশন করতে হয়। এটা একটি সভ্য দেশের জন্য লজ্জার।’

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকেরা বেতন স্কেলের বৈষম্য কমানো ও পদমর্যাদা বৃদ্ধির দাবিতে আজ দ্বিতীয় দিনের মতো আমরণ অনশন করছেন। এতে কমপক্ষে ২৫ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়েছেন। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে এই কর্মসূচি শুরু হয়ে এখনো চলছে। রাতেও শিক্ষকেরা শহীদ মিনারে অবস্থান করছেন।

শিক্ষকদের আটটি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক মহাজোটের ডাকে এই কর্মমসূচি পালিত হচ্ছে। প্রধান শিক্ষকের পরের ধাপে তাদের বেতন কাঠামোর নির্ধারণের জন্য এই অনশন পালিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজের সভাপতি আনিসুর রহমান যৌক্তিক আন্দোলন করছেন দাবি করে বলেন, ‘আন্দোলনে কমপক্ষে ২৫ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের মধ্যে অধিকাংশকেই ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

আনিসুর রহমান আরো বলেন, ‘গতকাল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক একটি প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছিলেন। সরকারি সব নিয়ম কানুন মেনে তারা আমাদের দাবি উত্থাপন করবেন বলে জানিয়েছেন। কিন্তু আমরা তা মানি না। যতক্ষণ না প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে আমাদের আশ্বস্ত করা হবে ততক্ষণ আমাদের অনশন চলতে থাকবে।’

জাতীয় প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোসাম্মৎ শাহীনুর আকতার বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ আজ সন্ধ্যার পরে আমার সাথে দেখা করতে চেয়েছেন। তিনি আমাদের কথা শুনবেন। তারপর প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলবেন। দেখা যাক কী হয়। তবে আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা অনশনে থাকব।’

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কে এম সানোয়ার হোসেন অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। বিছানায় শুয়েই তিনি বলেন, ‘আমাদের দাবি না মানলে মরে গেলেও আমি অনশন ভাঙবে না। সুস্থ হয়ে আবার দাবিতে সোচ্চার হব।’

মুন্সীগঞ্জের ইছামতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. রবিউল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের দাবি যৌক্তিক। মানতেই হবে, না মানলে আমরা আরো কঠোর হব। আমাদের সাথে বৈষম্য করে আমাদের অপমান করা হচ্ছে।’

প্রকাশ: ওয়াইএ


সর্বশেষ

আরও খবর

চাঁদাবাজদের দৌড়ের ওপর রেখেছে পুলিশ: ডিএমপি কমিশনার

চাঁদাবাজদের দৌড়ের ওপর রেখেছে পুলিশ: ডিএমপি কমিশনার


একুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী খালিদ হোসেন আর নেই

একুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী খালিদ হোসেন আর নেই


চাল আমদানিতে শুল্ক বাড়ল দ্বিগুণ

চাল আমদানিতে শুল্ক বাড়ল দ্বিগুণ


রূপপুর প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলীকে প্রত্যাহার

রূপপুর প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলীকে প্রত্যাহার


এফআর টাওয়ার দুর্ঘটনা: তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী ৬৭ জন

এফআর টাওয়ার দুর্ঘটনা: তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী ৬৭ জন


‘সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবে’

‘সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবে’


দেশে ফিরলেন ভূমধ্যসাগরে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি

দেশে ফিরলেন ভূমধ্যসাগরে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি


ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি গ্রহণযোগ্য নয়: শেখ হাসিনা

ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি গ্রহণযোগ্য নয়: শেখ হাসিনা


ঈদকে সামনে রেখে এবারের প্রস্তুতি আগের চেয়ে ভালো: কাদের

ঈদকে সামনে রেখে এবারের প্রস্তুতি আগের চেয়ে ভালো: কাদের


বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু, উপচেপড়া ভিড়

বাসের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু, উপচেপড়া ভিড়