Thursday, December 15th, 2016
আজকের সম্পাদকীয়
December 15th, 2016 at 9:11 am
আজকের সম্পাদকীয়

ডেস্ক: সাঁওতাল বসতিতে আগুন দেওয়ার ভিডিও! শিরোনামে প্রথম আলো লিখেছে, “গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতালদের বসতিতে পুলিশের আগুন দেওয়ার ভিডিওচিত্র দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে। গত ৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় চিনিকল কর্তৃপক্ষ উচ্ছেদ অভিযান চালায়। চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারীদের সঙ্গে পুলিশ-র্যা বের বিপুলসংখ্যক সদস্য উচ্ছেদে অংশ নেন। এতে সাঁওতাল সম্প্রদায়ের তিনজন মারা যান। হত্যার পাশাপাশি ঘরবাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনায় পুলিশের দায় নিয়ে যে অভিযোগ ও সাক্ষ্যপ্রমাণ আসছে, তা কোনো বিচার-বিবেচনা ছাড়া অস্বীকার করা সত্যের ও ন্যায়বিচারের বরখেলাপ হবে।

চিনিকলের ইজারাকৃত পূর্বপুরুষের জমি থেকে সাঁওতালদের যে কায়দায় উচ্ছেদ করা হয়েছে তা যে আইনসংগত হয়নি, গোড়া থেকেই আমরা তা বলে আসছি। কিন্তু গোড়া থেকেই গোবিন্দগঞ্জ ও গাইবান্ধার পুলিশ কর্তৃপক্ষ এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, বিষয়টি প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এখন ভিডিওচিত্রের কল্যাণে পুলিশের এই ভূমিকার প্রমাণ দেশের বাইরেও প্রদর্শিত হচ্ছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কি প্রতিশ্রুতি মোতাবেক কঠোর ব্যবস্থা নেবেন?

একের পর এক বিভিন্ন ঘটনায় পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি দারুণভাবে সংকটে পড়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের সুরক্ষায় নিষ্ক্রিয়তার বিপরীতে গোবিন্দগঞ্জে দেখা গেল আগুন দেওয়ার মতো বেআইনি তৎপরতা! পুলিশ কোথায় সুরক্ষা দেয়, কোথায় নিষ্ক্রিয় থাকে এবং কোথায় আইনের তোয়াক্কা না করে ঝাঁপিয়ে পড়ে, তা দিয়েই রাষ্ট্রের বলপ্রয়োগের চরিত্র চেনা যায়।”

ইসি গঠন নিয়ে আলোচনা শিরোনামে কালের কণ্ঠ লিখেছে, “২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে এরই মধ্যে সংশ্লিষ্ট মহলে নানামুখী আলোচনা চলছে।

কমিশন গঠন নিয়ে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রথম দফায় বিএনপিসহ পাঁচটি রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। ১৮ ডিসেম্বর বিএনপির সঙ্গে আলোচনা করবেন রাষ্ট্রপতি। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য দলের সঙ্গে রাষ্ট্রপতি আলোচনায় বসবেন। এর আগের নির্বাচন কমিশন গঠনের সময়ও রাষ্ট্রপতি রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন।

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গঠন বা প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্যান্য কমিশনার নিয়োগের এখতিয়ার রাষ্ট্রপতির। এ নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করা বাধ্যতামূলক নয়। আগামী সাধারণ নির্বাচন এগিয়ে আসছে। সার্চ কমিটি, নাকি সরাসরি নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে, এ বিষয়টিই এখন রাজনৈতিক মহলে প্রধান আলোচ্য বিষয়। গণমাধ্যমে আসা খবরে বলা হয়েছে, আলোচনায় আমন্ত্রণ পাওয়া দলগুলো মনে করছে, বৈঠকের পর রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি গঠনের উদ্যোগ নিতে পারেন; যদিও আমন্ত্রণপত্রে সার্চ কমিটি গঠন নিয়ে কোনো কথা উল্লেখ করা হয়নি। বিএনপি চেয়ারপারসন এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে ১৩ দফা প্রস্তাব দিয়েছেন। আমাদের দেশে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে পারস্পরিক আস্থাহীনতা রয়েছে। এই অবস্থায় রাষ্ট্রপতির উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে। রাষ্ট্রপতির এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে সংসদের বাইরে থাকা রাজনৈতিক দল বিএনপি। তারা মনে করছে সরকারও নির্বাচন কমিশন গঠনের ব্যাপারে আন্তরিকতার পরিচয় দেবে।”

নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতির উদ্যোগ নিয়ে জট খুলুক বঙ্গভবনে শিরোনামে সমকাল লিখেছে, “নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে যখন বিতর্ক ও অস্বস্তি চলছে, তখন বঙ্গভবন থেকে বিভিন্ন দলের সঙ্গে পৃথক বৈঠকে সংলাপের পদক্ষেপ ইতিবাচক ও আশাব্যঞ্জক। সংসদের বাইরে থাকা দেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপি সব দলের সঙ্গে আলোচনা করে ঐকমত্যের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রস্তাব করলে ক্ষমতাসীন দল তা সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যাখ্যান করার ফলে রাজনীতিতে উত্তাপের সৃষ্টি হয়। বিএনপি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করে তাদের কথা বলতে চেয়েছে এবং ইতিমধ্যে তাদের প্রস্তাবটি রাষ্ট্রপতির দপ্তরে পেঁৗছে দিয়েছে। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে বৈঠকের আমন্ত্রণপত্র বঙ্গভবন থেকে ইতিমধ্যে পাঁচটি দলের কাছে গেছে এবং সব দল এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে। ১৮ ডিসেম্বর প্রথম বৈঠকটি হবে বিএনপির সঙ্গে। সংবিধানে নির্বাচন কমিশন গঠনের এখতিয়ার সুস্পষ্টভাবে রাষ্ট্রপতিকে দেওয়া হলেও কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া নিয়ে বিতর্কের কারণ দেশের সমকালীন রাজনৈতিক বাস্তবতার মধ্যে নিহিত।”

ঝুঁকিপূর্ণ গ্যাস সিলিন্ডার শিরোনামে ইত্তেফাক লিখেছে, “সিএনজি চালিত যানবাহন এখন অনেক ক্ষেত্রেই জন-আতঙ্কে পরিণত হইয়াছে। পরিবহনে নিম্নমানের ত্রুটিযুক্ত এবং অপরীক্ষিত ও মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডারের ব্যবহার ক্রমশই অনাকাঙ্ক্ষিত এই ঝুঁকিকে প্রকট করিয়া তুলিতেছে। অনেক ক্ষেত্রেই গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণজনিত দুর্ঘটনায় প্রাণহানির মতো ঘটনাও ঘটিতেছে। পত্রিকান্তরে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদন হইতে জানা যায়, দেশে গত পাঁচ বত্সরে প্রায় ৩০০টিরও অধিক সিএনজি সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটিয়াছে। এইসব বিস্ফোরণজনিত দুর্ঘটনায় প্রায় দুই শতাধিক মানুষ প্রাণ হারায়।

এই ধরনের দুর্ঘটনার পর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সাময়িক কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করিলেও তাহা প্রতিরোধকল্পে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে দেখা যায় না। অধিকন্তু ব্যবহূত সিলিন্ডারগুলি পাঁচ বত্সর মেয়াদান্তে পুনঃপরীক্ষার বিধান থাকিলেও ৮৮ শতাংশ সিলিন্ডারের ক্ষেত্রেই তাহা করা হয় না। জানা যায় যে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতাকে পুঁজি করিয়াই অনেকে নিম্নমানের সিলিন্ডার বাজারজাত করেন। পাশাপাশি অনেক পরিবহন মালিকও দুর্ঘটনার ঝুঁকিকে আমলে না লইয়া এইসব সিলিন্ডার তাহাদের গাড়িতে ব্যবহার করিতেছেন। সরকার অনুমোদিত সিএনজি রূপান্তরকারী প্রতিষ্ঠানের টেস্ট রিপোর্টের সহিত সিলিন্ডারের গায়ে প্রদত্ত তথ্য মিলাইয়া ক্রয়ের বিধান থাকিলেও এ ব্যাপারে অনেকেই অসচেতন। অনেকেই আবার অক্সিজেনের জন্য ব্যবহূত সিলিন্ডার সিএনজি সিলিন্ডার হিসাবে পরিবহনে ব্যবহার করেন। ইহাও অনাকাঙ্ক্ষিত বিপদ ডাকিয়া আনিতে পারে। কারণ, এই ধরনের সিলিন্ডার অধিক চাপে গ্যাস ভরিবার সময়ই বিস্ফোরিত হইবার প্রবল আশঙ্কা থাকে।”

গ্রন্থনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করুন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করুন


কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর

কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর


সৈয়দ আবুল মকসুদঃ মৃত জোনাকির থমথমে চোখ

সৈয়দ আবুল মকসুদঃ মৃত জোনাকির থমথমে চোখ


গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা যাওয়ার ৬০ ঘন্টা পরে পরিবারের মামলা

গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা যাওয়ার ৬০ ঘন্টা পরে পরিবারের মামলা


৯ মাস পর কারামুক্ত হলেন সাংবাদিক কাজল

৯ মাস পর কারামুক্ত হলেন সাংবাদিক কাজল


জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে ধাপ্পার অভিযোগ ভারতীয় লেখকের!

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে ধাপ্পার অভিযোগ ভারতীয় লেখকের!


বিদায় কিংবদন্তি যুদ্ধ সাংবাদিক রবার্ট ফিস্ক

বিদায় কিংবদন্তি যুদ্ধ সাংবাদিক রবার্ট ফিস্ক


মুজিববর্র্ষে লন্ডনে জয় বাংলা ব্যান্ডের রঙ্গিন ভালবাসা

মুজিববর্র্ষে লন্ডনে জয় বাংলা ব্যান্ডের রঙ্গিন ভালবাসা


গণমাধ্যম, স্বাধীনতা এবং মিডিয়া মালিকানা

গণমাধ্যম, স্বাধীনতা এবং মিডিয়া মালিকানা


তাসের ঘর : দুর্দান্ত স্বস্তিকায় নারীমুক্তি?

তাসের ঘর : দুর্দান্ত স্বস্তিকায় নারীমুক্তি?