Thursday, April 13th, 2017
‘আজ মানুষও বেশি বিক্রিও বেশি’
April 13th, 2017 at 4:22 pm
‘আজ মানুষও বেশি বিক্রিও বেশি’

ঢাকা: রাত পোহালেই বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। আরেকটি নতুন বছরকে বরণ করে নেবে জাতি। এই উৎসব ঘিরে রাজধানীর বিপণিবিতানগুলো সেজেছে বৈশাখী সাঁজে। আর মাত্র ১ দিন বাকি থাকায় একই সঙ্গে সব বয়সী মানুষ বাঙালি সাজে নিজেকে সাজাতে বিভিন্ন শপিং সেন্টার, ফ্যাশন হাউসগুলোতে ভিড় জমাচ্ছেন। ফলে নিউমার্কেট, আজিজ, গাউছিয়া, চাঁদনী চক, এলিফ্যান্ট রোডসহ রাজধানীর বিপণিবিতান গুলোতে কেনাকাটা জমজমাট।

এবারও লাল, সাদা, নীলসহ বাহারি রঙে নারী-পুরুষসহ সব বয়সী মানুষের পোশাকে দেশীয় ঐতিহ্য ফুটিয়ে তুলেছেন ডিজাইনাররা। নিজেদের পছন্দের শাড়ি, জামার সঙ্গে মানানসই মালা, দুল কিনতে অনেকে আবার ভিড় করছেন গয়নার দোকানে। এদিকে গত বছর থেকে বৈশাখ উপলক্ষে সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারী, সশস্ত্র বাহিনী ও বিজিবি সদস্য, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের চাকরিজীবী এবং এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের নববর্ষ ভাতা নামে বোনাস দিচ্ছে। যে কারণে বৈশাখের কেনাকাটায় নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে।

আজিজ সুপার মার্কেটের এক বিক্রেতা নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘এবার বৈশাখে গত ২ বছরের তুলনায় ক্রেতার ভিড় বেশি মনে হচ্ছে। আর আজকে শেষ দিন হওয়ায় বেশি মানুষ আসছেন এবং কিনছেন। আগে মানুষ আসলেও তেমন বিক্রি ছিলনা, তবে আজকে মানুষ যেমন বেশি কেনাবেচাও তেমন বেশি।’

আরেক বিক্রেতা নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘প্রতিবারের মতো এবারও মেয়েদের পোশাকই বেশি বিক্রি হচ্ছে। ছেলেদের অল্প কিছু পাঞ্জাবি বিক্রি হয়েছে। আর মেয়েদের সাড়ি আর বিভিন্ন ধরনের গহনা বিক্রি হচ্ছে। এখানে কাতান, তাঁত, টাঙ্গাইল ও বুটিকস, সিল্ক, জামদানি, কোটাসহ নানা ধরনের শাড়ি পাওয়া যাচ্ছে। শাড়িগুলো মিলবে পাঁচশ’ থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে। আর পাঞ্জাবি পাওয়া যাচ্ছে ১ হাজার ৫০০ থেকে ৩ হাজারের মধ্যে।’

গাউছিয়া সুপার মার্কেটের এক ক্রেতা নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘পহেলা বৈশাখ আমাদের প্রাণের উৎসব। এ উৎসবকে আমরা নানা আয়োজনের মাধ্যমে পালন করে থাকি। তাই সময়ের সাথে মিলিয়ে নতুন ধরনের পোশাক কিনি।’ এদিকে জামা কাপড়ের দাম নিয়ে তিনি বলেন, ‘জামা কাপড়ের দাম খুব বেশি না আবার কমও না। তবে গতবারের থেকে একটু বেশি। আর এবার সিঙ্গেল জামা পাওয়া যাচ্ছে আর তাই ওড়না আর পাজামা না কিনলেও হচ্ছে, তবে সাড়ির দাম আগের বারের থেকে অনেক বেশি।’

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ও ইডেন মহিলা কলেজের সামনের ফুটপাতসহ নানা জায়গায় দেখা যাচ্ছে বৈশাখ উপলক্ষে নানা রঙের নকশা করা চুড়ির পসরা। জানা যায় চুড়ির দাম সব সময়ই এক থাকলেও শুধু বৈশাখে প্রতি ডজনে ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশি নেয়া হয়। কারণ পাইকারি মূল্যও বেড়ে যায়। কাচের প্লেইন চুড়ি বিক্রি হয় ডজন ৪০ থেকে ৫০ টাকা করে, আর নকশা করা চুড়ি বিক্রি ৬০ টাকায়।

প্রতিবেদন: এম কে রায়হান, সম্পাদনা: জাহিদ


সর্বশেষ

আরও খবর

ইগলু আইসক্রিমকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা

ইগলু আইসক্রিমকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা


বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় দেশে ফিরছেন ওবায়দুল কাদের

বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় দেশে ফিরছেন ওবায়দুল কাদের


খ্রিস্ট ধর্মীয় অনুভূতি: কবি ও সাংবাদিক হেনরী স্বপন গ্রেপ্তার

খ্রিস্ট ধর্মীয় অনুভূতি: কবি ও সাংবাদিক হেনরী স্বপন গ্রেপ্তার


কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩

কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৩


ভূমধ্যসাগরে নিহত ২৭ বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে

ভূমধ্যসাগরে নিহত ২৭ বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে


ফুট ওভার ব্রীজ ব্যবহারে অনীহা

ফুট ওভার ব্রীজ ব্যবহারে অনীহা


দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী


আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা

আগামী তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা


বাগদাদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৮

বাগদাদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৮


সঙ্কটে বাংলাদেশ বিমান: শিডিউল বিপর্যয়

সঙ্কটে বাংলাদেশ বিমান: শিডিউল বিপর্যয়