Sunday, September 18th, 2016
আত্মঘাতী জঙ্গি তানভীরের ছেলে রিমান্ডে
September 18th, 2016 at 8:44 pm
আত্মঘাতী জঙ্গি তানভীরের ছেলে রিমান্ডে

ঢাকা: রাজধানীর আজিমপুরে জঙ্গি আস্তানায় আত্মঘাতী জঙ্গি তানভীর কাদেরীর ছেলে তাহরিম কাদেরী ওরফে রাসেলের (১৪) তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার ঢাকার ১ম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রুহুল আমীর তার রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে সন্ত্রাস দমন আইনে করা মামলায় সুষ্ঠু তদন্তের জন্য রাসেলকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ।

১০ সেপ্টেম্বর রাতে আজিমপুরের ২০৯/৫ লালবাগ রোডে দারুল হুদা ইন্টারন্যাশনাল ক্যাডেট মাদ্রাসার ছয় তলা ভবনের ২য় তলার একটি বাসায় অভিযান চালায় পুলিশ।

অভিযানের আগেই জঙ্গি তানভীর নিজের গলায় ছুরি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে জানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। আজিমপুরের ওই বাসা থেকে তানভীরের ছেলে রাসেলকে উদ্ধার করে পুলিশ। এছাড়া আহত অবস্থায় আরো তিন নারীকে আটক করা হয়।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আটক তিন নারী জঙ্গির মধ্যে আফরিন ওরফে প্রিয়তি (২৫) গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড নুরুল ইসলাম মারজানের স্ত্রী। আর আবেদাতুল ফাতেমা ওরফে খাদিজার (৩৫) স্বামীর নাম তানভির কাদেরী ওরফে জমশেদ ওরফে আব্দুল করিম ওরফে শামসেদ হোসেন এবং শায়লা আফরিনের (২৩) স্বামী জামান ওরফে বাসারুজ্জামান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তানভীরের গ্রামের বাড়ি গাইবান্ধার সদর উপজেলার বোয়ালি ইউনিয়নের পশ্চিম বাটিকামারি গ্রামে। সে ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের সাবেক সিনিয়র অফিসার। গুলশান হামলাকারীদের বসুন্ধরায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে দিয়েছিল এই ব্যক্তিই।

পরিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তানভীরের বাবা এস এম বাতেন কাদেরী আগে বাংলাদেশ টেলিফোন অ্যান্ড টেলিগ্রাফ বিভাগে চাকরি করতেন। পরে চাকরি ছেড়ে তিনি দীর্ঘদিন মধ্যপ্রাচ্যেও ছিলেন। তবে এখন তিনি জর্দার ব্যবসা করেন। ২০১৪ সালে সপরিবারে হজ করে আসার পর বাবা-মাসহ অন্যরা তানভীরের মধ্যে ধর্মীয় উগ্রতা লক্ষ্য করেন। তবে তার জঙ্গি কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ার বিষয়টি মানতে পারছেন না পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে নির্ভরযোগ্য একটি সূত্রের দাবি, জঙ্গিনেতা তামিম চৌধুরী ও মেজর জাহিদুল ইসলামের পর জেএমবির হাল ধরতে চেয়েছিল আজিমপুরে নিহত এই তানভির কাদেরী। সে নিহত জঙ্গিদের স্ত্রী সন্তানদের সাহায্য-সহযোগিতা করে আসছিল। গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড মারজানের স্ত্রী প্রিয়তি, মেজর জাহিদের স্ত্রী শীলা ও দুই মেয়ে তার হেফাজতেই ছিল।

প্রতিবেদন: প্রীতম সাহা সুদীপ, সম্পাদনা: সজিব ঘোষ


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


দুবাই পাচারকালে হিথ্রো বিমানবন্দরে ১২ লক্ষ পাউন্ড সহ দুই চেকরিপাবলিক নাগরিককে আটক করেছে ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন

দুবাই পাচারকালে হিথ্রো বিমানবন্দরে ১২ লক্ষ পাউন্ড সহ দুই চেকরিপাবলিক নাগরিককে আটক করেছে ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন


লন্ডনে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে দুই ব্রিটিশ বাঙ্গালীর ৩৬ বছরের কারাদন্ড

লন্ডনে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে দুই ব্রিটিশ বাঙ্গালীর ৩৬ বছরের কারাদন্ড


দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির

দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ