Sunday, August 21st, 2016
আফসানা আত্মহত্যা করেছেন!
August 21st, 2016 at 1:00 pm
আফসানা আত্মহত্যা করেছেন!

ঢাকা: মিরপুর সাইক পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী ও ছাত্র ইউনিয়নের কর্মী আফসানা ফেরদৌস আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছেন ময়নাতদন্তকারী কর্মকর্তা ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক আবুল খায়ের মো. সফিউজ্জামান। রোববার দুপুরে সাংবাদিকদের তিনি এমন তথ্য জানান।

সফিউজ্জামান বলেন, ‘আফসানার শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। শুধু গলায় দাগ ছিল। আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে এটা হত্যা নয়, আফসানা আত্মহত্যা করেছেন। ভিসেরা রিপোর্ট এলে বাকিটা বোঝা যাবে। সেটার জন্য সময় লাগবে।’

এদিকে ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকের এমন বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে নিহত আফসানার পরিবার। আফসানার মামা তৌফিক ইলাহী অভিযোগ করেন, ছাত্রলীগ নেতা রবিন আর তার সহযোগীরাই আফসানাকে খুন করেছে। এখন তাদের অপরাধ ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘রবিনের সঙ্গে আফসানার বন্ধুত্ব ছিল। কিছুদিন আগে এ বন্ধুত্বে ফাটল ধরে। এর জের ধরে রবিনসহ আরো কয়েকজন মিলে আফসানাকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছে।’

তৌফিক ইলাহী বলেন, ‘আত্মহত্যার কোন কারণই নেই। আমরা চাই ঘটনার সঠিক তদন্ত হোক। হত্যাকাণ্ডের সাথে যারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করে শাস্তির বিধান করা হোক। যেসব ফোন নাম্বার থেকে আমাদের ফোন করা হয়েছে, তারা একেক বার একেকটা নাম বলেছে। এরা কারা তা খুঁজে বের করলেই খুনিকে ধরা যাবে।’

আফসানার ভাই ফজলে রাব্বী বলেন, ‘আমার বোন কখনো আত্মহত্যা করতে পারে না। আর তার সঙ্গে আমার শেষ কথা হয়েছে, সে আমার সঙ্গে ঈদের পরিকল্পনা পর্যন্ত করেছে। এখন আমি কি করে বিশ্বাস করবো যে, সে আত্মহত্যা করেছে।’

এদিকে, আফসানা ফেরদৌস নিহত হওয়ার পর থেকেই  ছাত্রলীগের তেজগাঁও কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান রবিনকে খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিরপুর বিভাগের উপকমিশনার মাসুদ আহম্মেদ নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘অভিযুক্ত রবিন ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এখনো তাদের খুঁজে পাওয়া যায়নি। এছাড়া হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ থেকে দু’জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের খুঁজে বের করতেও পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘কাউকে আড়াল করা কিংবা বাঁচানোর চেষ্টা নয় তদন্তে যা বের হয়ে আসবে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। আশা করছি শিগগিরই ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে।’

১৩ আগস্ট (শনিবার) রাত নয়টার দিকে একটি অপরিচিত নাম্বার থেকে আফসানার মা সৈয়দা ইয়াসমিনের কাছে ফোন আসে। তাকে বলা হয় আফসানা আত্মহত্যা করেছেন, লাশ ধানমন্ডির বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আছে। খবর শুনে তারা সেখানে যান, কিন্তু সেখানে আফসানাকে পাওয়া যায়নি।

পরে মুঠোফোনে আরেক অপরিচিত ব্যক্তি জানান যে, আফসানার লাশ মিরপুরের আল-হেলাল হাসপাতালে আছে। তখন তারা ওই হাসপাতালে যান। হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, কাফরুল থানায় লাশটি নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কাফরুল থানায় গেলে পুলিশ জানায়, লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরে রাত তিনটার দিকে তারা মর্গে গিয়ে আফসানার লাশ শনাক্ত করেন। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে দাফন করা হয়।

প্রতিবেদন: প্রীতম সাহা সুদীপ, সম্পাদনা: মাহতাব শফি/সাইফুল ইসলাম


সর্বশেষ

আরও খবর

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ১১ লাখ

বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ১১ লাখ


করোনা: আরও ২৩ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩০৮

করোনা: আরও ২৩ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩০৮


সেনাপ্রধান ফেইসবুকে নেই: আইএসপিআর

সেনাপ্রধান ফেইসবুকে নেই: আইএসপিআর


ধর্ষণের সাজা মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত অনুমোদন

ধর্ষণের সাজা মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত অনুমোদন


করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু


বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক


সাগরে ৪ নম্বর সংকেত, বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে আরও দুই দিন

সাগরে ৪ নম্বর সংকেত, বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে আরও দুই দিন


দু-তিন দিনের মধ্যে আলুর দাম কমবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

দু-তিন দিনের মধ্যে আলুর দাম কমবে: বাণিজ্যমন্ত্রী


সারা দেশের নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার

সারা দেশের নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার


অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা