Thursday, July 21st, 2016
আমাক’কে হত্যার ভিডিও পাঠায় হাসনাত
July 21st, 2016 at 7:30 pm
আমাক’কে হত্যার ভিডিও পাঠায় হাসনাত

প্রীতম সাহা সুদীপ, ঢাকা: গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জিম্মি বিদেশিদের নৃশংসভাবে জবাই করে হত্যার ছবি ও ভিডিও চিত্র জঙ্গিদের পরামর্শে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক একটি উগ্রপন্থী সংগঠনের মুখপত্র ‘আমাক’ নিউজ এজেন্সির কাছে পাঠিয়েছিলেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক হাসনাত করিম।

গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, গুলশানে হামলার ঘটনায় হাসনাতের সম্পৃক্ততা এখন অনেকটাই স্পষ্ট। সেই সাথে তদন্তের জালে আটকা পড়েছেন আরেক জিম্মি কানাডা প্রবাসী শিক্ষার্থী তাহমিদ হাসিব খানও। রেস্টুরেন্টের সিসিটিভি ফুটেজ ও জঙ্গিদের ধারণ করা মোবাইলের ভিডিও থেকে যেসব তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে তা থেকে বেরিয়ে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, জঙ্গিদের পরামর্শে হাসনাত ফোনসেট থেকে ‘উইকার ও থ্রিমা’ নামক মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করেন। আর ওই অ্যাপসের মাধ্যমেই বিদেশিদের নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ছবি ও ভিডিওচিত্র ‘আমাক’ নিউজ এজেন্সির কাছে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ওইসব ছবি ও ভিডিও চলে যায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বেসরকারি গোয়েন্দা সংস্থা সাইট ইন্টেলিজেন্সের স্বত্বাধিকারী রিটা কাৎসের কাছে।

hasnat karim 2এ প্রসঙ্গে হাসনাত করিম গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন, জঙ্গিদের চাপে তিনি অ্যাপস ডাউনলোড করেন যা ব্যবহার করে হত্যাকাণ্ডের ছবি ও ভিডিও পাঠানো হয়। তবে এতবড় হত্যাকাণ্ডের মধ্যে তাকে সপরিবারে জীবিত রাখা এবং পুরো সময় তাকে কেন স্বাভাবিক দেখা গেছে,সে প্রশ্নের কোনো সদুত্তর তিনি দিতে পারেননি।

এদিকে হাসনাত ও তাহমিদকে ইঙ্গিত করে বৃহস্পতিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘গুলশানের ওই রেস্টুরেন্ট থেকে আমরা ৩২ জনকে উদ্ধার করেছি, যাদের বেশিরভাগই সে দিন খাবার খেতে সেখানে গিয়েছিল। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে দু’তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, আমরা দু’তিনজনকে সন্দেহ করছি। জঙ্গি হামলার ঘটনায় আদৌ তাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে কিনা,নাকি তারা পরিস্থিতির শিকার হয়ে জঙ্গিদের মদদ দিয়েছে- বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাই এই মুহূর্তে সুস্পষ্টভাবে মন্তব্য করা যাচ্ছে না।

hasnat karim 3গুলশান হামলার তদন্তে অগ্রগতি হয়েছে উল্লেখ করে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটি) ইউনিট মামলাটি তদন্ত করছে। তদন্তাধীন মামলায় এমন অনেক তথ্য থাকে যা প্রকাশ করলে তদন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তবে আমরা বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলামত সংগ্রহ করেছি। তিনটি আস্তানাও খুঁজে পেয়েছি। তাই এক কথায় বলা যায় তদন্তে অগ্রগতি হয়েছে।’

এছাড়া দশ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে রেকর্ড হওয়া একাধিক সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ থেকে আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ ক্লু পেয়েছে গোয়েন্দারা। ফুটেজে দেখা গেছে, কিলিং মিশন শেষে জঙ্গি নিবরাস ইসলাম হাস্যোজ্জ্বল ভঙ্গিমায় রেস্তোরাঁটির ছাদে হাসনাত ও তাহমিদের সাথে কথা বলছেন।

এসব ভিডিও ফুটেজের একটি খন্ডিত অংশই র‌্যাব সম্প্রতি অফিসিয়ালি প্রকাশ করেছে। যেখানে হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন আরো ৪ জনের ছবি রয়েছে। শুধু তাই নয় গত মঙ্গলবার সরকারের শীর্ষপর্যায়ের এক বৈঠকেও গুলশান হামলার তদন্তে এই অগ্রগতিগুলো সবিস্তারে তুলে ধরা হয়েছে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/পিএসএস/জাই

 


সর্বশেষ

আরও খবর

শনাক্ত আবারও হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৩০

শনাক্ত আবারও হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৩০


করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে


২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫

২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫


গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা

গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা


আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড


পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে শেষ মুহূর্তেও ভিড়

পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে শেষ মুহূর্তেও ভিড়


ঈদের দিন হতে পারে হালকা বৃষ্টি

ঈদের দিন হতে পারে হালকা বৃষ্টি


করোনায় আরও ৪০ জনের মৃত্যু

করোনায় আরও ৪০ জনের মৃত্যু


বায়তুল মোকাররমে পাঁচটি ঈদের জামাত

বায়তুল মোকাররমে পাঁচটি ঈদের জামাত