Tuesday, July 12th, 2016
আমাদের নীরব থাকতে দাও
July 12th, 2016 at 11:36 pm
প্রয়াত প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপনের স্ত্রী ডা. রাজিয়া রহমান জলি ১২ জুলাই রাত এগারটায় নিজের ফেসবুক পাতায় এই লেখাটি প্রকাশ করেন।
আমাদের নীরব থাকতে দাও

ডা. রাজিয়া রহমান জলি: দীপনকে ছাড়া দিনগুলি পাড়ি দেবার যে কষ্ট সেটা নিয়ে এক সাংবাদিক একবার প্রশ্ন করেছিলেন। আমি বলেছিলাম, ‘এটা কোন গল্প নয় যে আমি বলে যেতে পারবো, এটা বুঝতে হলে আপনাকে আমার জায়গায় এসে দাঁড়াতে হবে।’ আমি চাইনা কাউকে আমার জায়গায় দাঁড়াতে হোক, চাইনা কেউ আমার মতো কষ্ট পাক কখনো, কিন্তু কি লাভ দু’কলাম কষ্টের গল্প লিখে, গল্প বেচে আমাকে আরও বেশী নিমজ্জিত করার?

মেহের আফরোজ শাওন আমাকে বলেছিলো,‘আপা,এরা অনুভূতি ব্যবসায়ী।’ মানলাম, কিন্তু আমি কেন আমার অনুভুতি বেচবো? ঈদ এর আগে পরে ফোন আসতেই থাকলো, ঘুরে ফিরে প্রশ্ন একই প্রশ্ন… ‘দীপন ভাই ছাড়া প্রথম ঈদ, কি কি পরিকল্পনা করেছেন? কেমন কাটাচ্ছেন? কিভাবে কাটল?’ আমি কিছু বলি আর না বলি দু কলাম গল্প দাঁড়িয়ে যায়।

আজ ১২ই জুলাই, দীপন ছাড়া দীপনের ১ম জন্মদিন! অনুভূতি ব্যবসায়ীদের সমস্ত প্রশ্নের উত্তরে আজ নিশ্চুপ থেকেছি। একটা নিস্তব্ধ ভেজা রাত পার হয়ে রোদ ঝলমলে ১২ই জুলাই এর আজকের দিনটি আমি ও আমরা দীপনের স্মৃতিতে গভীরভাবে নিমগ্ন ছিলাম। কেউ কোন কথা বোলোনা, আমাদের নীরব থাকতে দাও। আয়োজন বা উৎসবের সময়টা আারও সামনে পড়ে আছে, আজকোর দিনটা নির্বাক থাকুক। দেশের চলমান পরিস্থিতি আমাদের নির্জনতাকে গাঢ় অন্ধকার দিয়েছে, সজন হারানো আরও কিছু মানুষের মুখ ১২ই জুলাইকে আরেকটু বেশী মৌন করেছে। এখন মৃত্যুর আগমন কতো সহজ, সচরাচর। মৃত্যুর মিছিলে যেন হারিয়ে যাচ্ছে দীপনের জন্মদিনের টুং টাং সুর… ‘Happy Birthday to you…’।

রিদাত যখন ৬ বছরের, ক্লাস ওয়ানে পড়তো, ১২ই জুলাই ঘুম থেকে উঠেই আমাকে বলে, ‘মা,আজকে না বাবার জন্মদিন, বাবার জন্মদিনে বাচ্চাকে স্কুলে যেতে হয় না’। রিদাতের মা হেসে খুন, সারা বাড়ি জারি হলো সেই থিওরি। রিদাত এখন নাইনে পড়ে, গতকাল থেকে শুরু হওয়া half yearly exam এর আজকে ২য় দিন। ভোরবেলা উঠে নামাজ পড়েছে, তারপর পড়াশুনা, পরীক্ষা ছিলো ১১.৩০-২.৩০টা। রিদমাটা সারারাত ঘুমাতে পারেনি, মায়ের সাথে বৃষ্টি দেখে কেটেছে রাত, অঝোর ধারায় কাঁদছিল আকাশ আমাদের দুজনের সাথে সাথে। ১১ ই জুলাইটা যখন ১২ই জুলাইতে প্রবেশ করছিল, আমি ছিলাম প্রার্থনায়, ঐ মুহূর্তে ছোটবেলার বন্ধু লর্ণা ফোন করেছিলো ইংল্যান্ড থেকে, ওর আর দীপনের একই দিনে জন্ম তাই শৈশবের সব স্মৃতিতে ১২ই জুলাই ছিলো যৌথ উদযাপনের। লর্নার সাথে ৪০ মিনিটের গল্প-কান্নার ঝাঁপি বন্ধ করতেই রিদমার সাথে শুরু হলো স্মৃতিচারণ… গতবছর রোজা ছিলো ১২ তারিখ।

১১ তারিখ আমি আর রিদমা একটা হালকা গোলাপী শার্ট খুঁজতে এলিফ্যান্ট রোড চষে ফেলেছিলাম। খুব শখ হয়েছিলো, দীপনতো গোলাপী রঙ পরেনি কখনও, তাই!

১১ তারিখ আমি আর রিদমা একটা হালকা গোলাপী শার্ট খুঁজতে এলিফ্যান্ট রোড চষে ফেলেছিলাম। খুব শখ হয়েছিলো, দীপনতো গোলাপী রঙ পরেনি কখনও, তাই! অবশেষে Artisti থেকে নিয়েছিলাম। রিদমা বাবার জন্য card বানাতো নিজ হাতে। বেশ রাত করে বাড়ি ফিরেছিলো দীপন। বারোটায় wish করা, gift দেয়া,খানাপিনা সেরে সাহরী পর্যন্ত চলেছে চারজনের party। পরদিন আমার আর দীপনের ঢাকাস্থ সব কাজিন এবং ভাইবোনদের আন্ডাবাচ্চাসহ আমরা ইফতার খেতে চলে গেলাম গুলশানের Pizza Hut এ। হালকা গোলাপী শার্টে দীপন ছিলো মধ্যমণি, unlimited offer-এ রিদাতের সাথে পাল্লা দিয়ে পিজ্জা খেয়েছিলো।

খুটিনাটি সবগুলো শব্দ, কথা আমি যেন চোখ বুজলেই শুনতে পাচ্ছি। ২০ জনের টিম, সন্ধ্যা থেকে রাত অব্দি তুমুল আড্ডা। খুশি হলেও দীপন আমার কাঁধ ছুয়ে বলেছিলো, ‘ইশ, জলি, তোমার কত্তগুলা টাকা চলে গেলো।’ আমি হাসি, ঈদের বোনাসে পকেট গরম, এইটুকু উদযাপন দীপনের জন্য করাই যায়। আমি কি আর জানি… ঐ দিনের পর থেকে সবগুলো ১২ই জুলাই বর্ণহীন হয়ে যাবে? মুনিমের দেয়া শার্টটা দীপন একবারো পরেনি, তার আগেই চলে যেতে হলো। উৎসবের সব রঙ সাথে করে নিয়ে চলে গেলো। আমাকে সাদাকালো কারাগারে রেখে চলে গেলো।

পৃথিবীর সব প্রান্ত থেকে আজকে স্মরন করা হয়েছে দীপনকে। আমি সবার কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই। আমাদের ১২ই জুলাই এ বছর নিস্তব্ধ থাকুক। আমরা এখনও শোকাহত। আমার শোক কালের স্রোতে ভেসে ভেসে যতটা শক্তি উতপন্ন করেছে তা দিয়ে এতদিনে ‘জাগৃতি’কে একটা shape এ দাঁড় করাতে পেরেছি। পরবর্তী পরিকল্পনা একটা ‘দীপনপুর’। আলো হাতে চলিয়াছে আঁধারের যাত্রী। আজকে শোভন ভাই বলেছেন আমি একা নই, ঠিক। আমার শৈশবে পাওয়া কিছু শুভবুদ্ধির মানুষ আমার পাশে আছে, থাকবে। এই প্রিয় শহরেই একটা ‘দীপনপুর’ হবে। মানুষকে হত্যা করা যায়,তাঁর আদর্শকে নয়।

১২ই জুলাই ২০১৬


সর্বশেষ

আরও খবর

আমি বাংলার, বাংলা আমার, ওতপ্রোত মেশামেশি…

আমি বাংলার, বাংলা আমার, ওতপ্রোত মেশামেশি…


শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন: ‘পুতুল’ খেলার আঙিনায় বেজে উঠুক ‘জয়’র বাঁশি

শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন: ‘পুতুল’ খেলার আঙিনায় বেজে উঠুক ‘জয়’র বাঁশি


বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর আগেই পাকিস্তান ক্ষমা চাইবে ?

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর আগেই পাকিস্তান ক্ষমা চাইবে ?


শেখ হাসিনা কতোখানি চ্যালেঞ্জিং এখনো?

শেখ হাসিনা কতোখানি চ্যালেঞ্জিং এখনো?


প্রণব মুখোপাধ্যায় : বিশ্ব-রাজনীতির মহাপ্রাণ

প্রণব মুখোপাধ্যায় : বিশ্ব-রাজনীতির মহাপ্রাণ


দয়া করে ক্রসফায়ারের স্ক্রিপ্টটি ছিঁড়ে ফেলুন

দয়া করে ক্রসফায়ারের স্ক্রিপ্টটি ছিঁড়ে ফেলুন


দক্ষিণ এশিয়াঃ সীমান্তবিহীন এক অবিভাজিত অচলায়তন

দক্ষিণ এশিয়াঃ সীমান্তবিহীন এক অবিভাজিত অচলায়তন


লুণ্ঠন ঢাকতে বারো মাসে তেরো পার্বণ

লুণ্ঠন ঢাকতে বারো মাসে তেরো পার্বণ


লেটস্ কল অ্যা স্পেড অ্যা স্পেড!

লেটস্ কল অ্যা স্পেড অ্যা স্পেড!


পররাষ্ট্রনীতিতে, ম্যারেজ ইজ দ্য এন্ড অফ লাভ

পররাষ্ট্রনীতিতে, ম্যারেজ ইজ দ্য এন্ড অফ লাভ