Sunday, August 7th, 2016
‘আমি ও সেলিম ওসমান পরিস্থিতির শিকার’
August 7th, 2016 at 4:02 pm
‘আমি ও সেলিম ওসমান পরিস্থিতির শিকার’

ঢাকা: নারায়ণগঞ্জের পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে কান ধরে ওঠ-বস করানোর ঘটনাটি উত্তেজিত জনতার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আকস্মিকভাবে ঘটেছে। ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গত ১৩ মে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে লাঞ্ছনার ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনার জন্য শ্যামল কান্তি ভক্ত ও স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান দুইজনই উদ্ভূত পরিস্থিতির শিকার। এতে প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট কারোর বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই এবং উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে আকস্মিক এ ঘটনা ঘটে মর্মে হাইকোর্টে দাখিল করা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার ও বন্দর থানার ওসি (তদন্ত) দাখিলকৃত প্রতিবেদনে এ তথ্য ওঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কান ধরে উঠ-বস করানো ঘটনায় কেউ দায়ী নয় বলে পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত।

বন্দর থানার এসআই মো. মোকলেছুর রহমানের লিখিত জবানবন্দিতে শ্যামল কান্তি বলেন, কান ধরে উঠ-বস করার ঘটনাটি আকস্মিকভাবে ঘটেছে। এত উশৃঙ্খল জনতা কিছুটা শান্ত হয়।

আমি এবং সংসদ সদস্য সেলিম ওসলাম মহোদয় উদ্ভূত ঘটনায় পরিস্থিতির শিকার। একটি মিথ্যা গুজব ঘটনার কারণে এই অনাকাঙ্খিত ঘটনাটি ঘটে। এই ঘটনায় আমি কাউকে দোষারূপ করছি না এবং এই ঘটনায় আমার কারো বিরুদ্ধে কোনো রূপ অভিযোগ নেই। এই ঘটনায় পুলিশ বা আদালতে কোনো অভিযোগ বা মামলা করব না।

শ্যামল কান্তি ভক্তকে লাঞ্ছনার ঘটনায় রোববার হাইকোর্টে পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়। ওই তদন্ত প্রতিবেদনে পুলিশের কাছে দেয়া জবানবন্দিতে শ্যামল কান্তি এসব কথা বলেন। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু প্রতিবেদনটি আদালতে জমা দিলে আদালত এ বিষয়ে আগামী ১০ আগস্ট আদেশের জন্য দিন ধার্য করেন।

রোববার হাইকের্টের বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি আশিষ রঞ্জণ দাসের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনায় শ্যামল কান্তি ভক্ত কাউকে দোষী করছেন না। এমন কি আদালত বা পুলিশের কাছে অভিযোগ করবেন না বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। ফলে এ ঘটনায় কারোর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া যায়নি।

গত ১৩ মে ইসলাম ইসলাম ধর্ম অবমাননার অভিযোগে স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের উপস্থিতিতে শ্যামল কান্তি ভক্তকে কান ধরে ওঠবস করানো হয়। এরপর বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির তাকে স্কুল থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে।  এ ঘটনায় সারা দেশে নিন্দার ঝড় ওঠে। আইনজীবী এমকে রহমান শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনাটি আদালতের নজরে আনলে সেলিম ওসমানসহ দোষীদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না জানতে চেয়ে গত ১৮ মে স্বপ্রণোদিত রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ রুল জারির নির্দেশনা দেন। একইসঙ্গে এ ঘটনায় আইনগত কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে সে বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক, এসপি ও বন্দর থানার ওসিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলে। জেলা প্রশাসক ও এসপি প্রতিবেদন জমা দিলেও পুলিশের পক্ষ থেকে সময় চাওয়া হয়। প্রতিবেদন দিতে আদালত ৪ আগস্ট পর্যন্ত সময় দেয় পুলিশকে।  এ বিষয়ে  আজ শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত। আদেশ অনুযায়ী আজ পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হয়।

পুলিশের কাছে দেয়া জবানবন্দিতে শ্যামল কান্তি বলেন, আমি কল্যান্দী পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। গত ১৩ মে ১০টার সময় বিদ্যালয়ের উন্নয়ন সংক্রান্ত ম্যানেজিং কমিটির সভা চলাকালে কে বা কাহারা মসজিদের মাইক থেকে ঘোষণা দেয় আমি ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি করেছি। মাইকে ঘোষণা দেয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই স্থানীয় জনগণ মারমুখী হয়ে বিদ্যালয়ের দিকে ছুটে আসতে থাকে। উচ্ছশৃংখল জনতার মধ্যে থেকে অপরিচিত কয়েকজন আমাকে নাজেহাল (লাঞ্ছিত) করে। ম্যানেজিং কমিটির লোকজন উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। লোকজন বেশি হওয়ায় কমিটির লোকেরা সামলাতে না পেরে পুলিশ ও জনপ্রতিনিধিদের জানালে পুলিশ, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান, বন্দর ইউএসও এবং মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাগণ বিদ্যালয়ে আসেন। এরপর স্থানীয় এমপি সেলিম ওসমান মহোদয় বিদ্যালয়ে আসলে উশৃঙ্খল জনতা উত্তেজিত হয়ে আমার বিচার দাবিতে স্লোগান দিতে থাকে এবং আমাকে জুতার মালা দিয়ে ঘুরাতে ও কান ধরে উঠ-বস করানোর দাবি করে।

উশৃঙ্খল জনতার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এবং তাদের শান্ত করার জন্য উক্ত উদ্ভূত কান ধরে উঠ-বস করার ঘটনাটি আকস্মিকভাবে ঘটে। এত উশৃঙ্খল জনতা কিছুটা শান্ত হয়। আমি এবং এমপি সেলিম ওসলাম মহোদয় উদ্ভূত ঘটনায় পরিস্থিতির শিকার। একটি মিথ্যা গুজব ঘটনার কারণে এই অনাকাঙ্খিত ঘটনাটি ঘটেছিল।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এফএইচ/জাই

 


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনা: আরও ২৩ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩০৮

করোনা: আরও ২৩ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩০৮


সেনাপ্রধান ফেইসবুকে নেই: আইএসপিআর

সেনাপ্রধান ফেইসবুকে নেই: আইএসপিআর


ধর্ষণের সাজা মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত অনুমোদন

ধর্ষণের সাজা মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত অনুমোদন


করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু


বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক


সাগরে ৪ নম্বর সংকেত, বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে আরও দুই দিন

সাগরে ৪ নম্বর সংকেত, বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে আরও দুই দিন


দু-তিন দিনের মধ্যে আলুর দাম কমবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

দু-তিন দিনের মধ্যে আলুর দাম কমবে: বাণিজ্যমন্ত্রী


সারা দেশের নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার

সারা দেশের নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার


অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা


করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের

করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের