Wednesday, May 20th, 2020
আম্পানে বিদ্যুৎহীন দক্ষিণাঞ্চলের অর্ধকোটি পরিবার; সাতক্ষীরা-খুলনায় তাণ্ডব চলছে
May 20th, 2020 at 11:38 pm
আম্পানে বিদ্যুৎহীন দক্ষিণাঞ্চলের অর্ধকোটি পরিবার; সাতক্ষীরা-খুলনায় তাণ্ডব চলছে

বিশেষ প্রতিনিধি;

ঢাকা: ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে বাংলাদেশের উপকূলীয় জেলাগুলোর বেশিরভাগই অন্ধকারে নিমজ্জিত রয়েছে।

দক্ষিণাঞ্চলের ৫০ লাখেরও বেশি পরিবারের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন।

“আমরা ক্ষতির সঠিক মাত্রা এখনো জানি না। তবে ক্ষতিটি বিপুল বলে মনে হচ্ছে। দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোর প্রচুর বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে গেছে,” নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন তিনি।

সাতক্ষীরা ও খুলনা অঞ্চল দিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। ঝড় চলাকালেই ওইসব এলাকার বাসিন্দা মোবাইলে তাদের অবস্থার কথা জানিয়েছেন।

রাত নয়টা ২০ মিনিটে সাতক্ষীরার তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রনব ঘোষ বাবলু মোবাইলে নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “এখানকার অবস্থা খুবই খারাপ। হালকা বৃষ্টি হচ্ছে, তবে প্রবল বেগে ঝড় বইছে। অনেক গাছ, বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে পড়েছে। অনেকগুলো মাটির ঘরও পড়ে গেছে খবর পেয়েছি,।”

এর আগে রাত সাড়ে আটটায় সাতক্ষীরার শ্যামনগরের বসবাসকারী উন্নয়নকর্মী মোহন কুমার মণ্ডল নিউজনেক্সটবিডিকে বলে, “প্রচণ্ড বেগে ঝড় হচ্ছে এখন। গাবুরা এবং পদ্মপুকুরের ইউনিয়নের অবস্থা খুবই ঝূঁকিপূর্ণ।” কথা বলতে বলতেই সংযোগটি বিচ্ছিন্ন হলে পরবর্তীতে তাঁর মোবাইল আর কল ঢোকেনি।

“সিডর, আইলা বা ফনির তূলণায় এই ঝড়ের গতিবেগ বেশী,” জানিয়ে প্রনব বলেন, “সবচেয়ে বাজে অবস্থা শ্যামনগরের গাবুরা, কলারোয়া, আশাশুনি, তালা আর সাতক্ষীরা সদরের একটি অংশের।” পুরো জেলার দুই লাখ ৮৯ হাজার নয়শ মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে উঠে গেছে বলেও তিনি জানান।

অন্যদিকে রাত নয়টার দিকে খুলনার পাইকগাছার বাসিন্দা আইনজীবি প্রশান্ত মণ্ডল নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “প্রবল ঝড় আর পানির পাইকগাছার মেদবুনিয়া এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বাঁধ প্রায় ভেঙে যায় যায় অবস্থা। এছাড়া কয়রায় পাউবোর বাঁধের ওপর দিয়ে নদীর পানি বইছে।”

“উপকূলে যারা বসবাস করে তারা সন্ধ্যার দিকেই পাইকগাছা সদরের স্কুলগুলোতে আশ্রয় নিয়েছেন। ঝড়ের গতি দেখে মনে হচ্ছে সিডরের মতোই অবস্থা। দুপুর থেকেই বিদ্যুৎ নেই,” বলেন তিনি। 

এছাড়া খুলনার সদরের কাছাকাছি এলাকা থেকে স্থানীয় সাংবাদিক মোনালিসা নিপা নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “এখানেও প্রচন্ড ঝড়ো বাতাস হচ্ছে, আর হালকা বৃষ্টি। এছাড়া জোয়ারের পানি বেড়ে কিছু এলাকা বিকালেই প্লাবিত হয়েছে।” খুলনা জেলার কয়রা, দাকোপ আর সাতক্ষীরার শ্যামনগরের অবস্থা খারাপ বলে তিনি জানতে পেরেছেন।

পৌনে নয়টার দিকে বরিশালে শহরেও ঝড়ো হাওয়া বইছিল। সেখানকার সাংবাদিক ও সংগঠক তন্ময় তপু নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “আবহাওয়া অফিসে জানিয়েছে রাত নয়টার পরে বরিশাল বিভাগের সব নদীতেই বৃদ্ধি পাবে। বরিশাল এবং এর আশেপাশে ১০-১৫ ফুট উচ্চতার জলোচ্চাস হতে পারে।”

তিনি জানান, বরিশালেও দুপুর থেকে বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দিয়েছে। নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। বিভাগের পটুয়াখালী জেলাতেতে একজন সেচ্ছাসেবী উদ্ধারকর্মী পানিতে ডুবে মারা গেছেন। এছাড়া বরিশাল জেলার এক লাখ ১০ হাজার মানুষকে তাদের গবাদি পশুসহ আশ্রয় কেন্দ্রে নেওয়ার কথা জানিয়েছে প্রশাসন।

“করোনার বিষয়টি মাথায় রেখেই লোকজনকে আশ্রয় কেন্দ্রে রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক,” বলেন তপু।


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত ব্যক্তিকে যেকোনো কবরস্থানে দাফন করা যাবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর

করোনায় মৃত ব্যক্তিকে যেকোনো কবরস্থানে দাফন করা যাবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর


সচেতন না হলে সরকার আবারও কঠোর হবে: কাদের

সচেতন না হলে সরকার আবারও কঠোর হবে: কাদের


করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫

করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫


পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা

পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা


দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী

দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী


করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১


‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’

‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’


এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%

এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%


বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী

এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী