Tuesday, October 4th, 2016
আসছে উড়াল ফুটপাত
October 4th, 2016 at 8:12 pm
আসছে উড়াল ফুটপাত

ঢাকা: এবার আর উড়াল সড়ক নয় হচ্ছে উড়াল ফুটপাতও। ১১৫ কোটি টাকা সম্ভাব্য ব্যয়ে রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় সড়কের ওপর ‘উড়াল ফুটপাত’ নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)৷ হংকং শহরের একটি উড়াল ফুটপাতের মডেলে এটি তৈরি হবে বলে জানা গেছে।

প্রস্তাবিত এই ফুটপাতের দৈর্ঘ্য এক কিলোমিটারের বেশি৷ পথচারীদের সুবিধার জন্য এতে একই সঙ্গে চলন্ত সিঁড়ি এবং সাধারণ সিঁড়ি থাকবে। ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে প্রকল্পটির কাজ শুরু হবে। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

উড়াল ফুটপাতটি সচিবালয়ের সামনে থেকে জিরো পয়েন্ট, বায়তুল মোকাররম, গুলিস্তান, আহাদ পুলিশ বক্স, গোলাপ শাহ মাজার, বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ পর্যন্ত নির্মাণ করা হবে। প্রাথমিকভাবে এর প্রশস্ততা ধরা হয়েছে আট ফুট। উড়াল ফুটপাত থেকে সড়কের সুবিধাজনক স্থানে পথচারীদের ওঠানামার জন্য থাকবে ২৬টি সিঁড়ি। এর মধ্যে ১০টি হবে চলন্ত।

ডিএসসিসির ট্রাফিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ জানায়, দেশের প্রথম এই উড়াল ফুটপাত (এলিভেটেড ওয়াকওয়ে) নির্মাণ প্রকল্প প্রস্তাব ২১ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকার বিভাগে পেশ করা হয়েছে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পটি পাস হলে নির্মাণকাজ শুরু হবে। আর এর অর্থায়ন করবে সরকার। এছাড়া প্রকল্পটি সফল হলে পরবর্তী সময়ে নিউমার্কেট, সদরঘাট, মতিঝিলসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় উড়াল ফুটপাত নির্মাণের পরিকল্পনা নেবে ডিএসসিসি৷

তবে ব্যয়বহুল এই প্রকল্প না করে গুলিস্তান ও আশপাশের এলাকার বিদ্যমান ফুটপাত দখলমুক্ত, প্রশস্ত এবং পথচারীবান্ধব করা জরুরি বলে মনে করেন নগর বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, উড়াল ফুটপাত পরিবেশবান্ধব নয় বলে তা অগ্রহণযোগ্য, আর উড়াল ফুটপাত হকারেরা দখল করবে না, তার নিশ্চয়তা কী?

বিষয়টি সম্পর্কে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে নগর পরিকল্পনাবিদ ও স্থপতি ইকবাল হাবিব বলেন, ‘গুলিস্তানে উড়াল ফুটপাত নির্মাণ করলে নিচের ফুটপাত আরো বেশি বেহাল হবে৷ তাই উড়াল ফুটপাত না করে নিচের ফুটপাত পথচারীবান্ধব করা জরুরি৷ এতে বিনিয়োগ অনেক কম লাগবে৷’

এ প্রসঙ্গে মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, ‘ওই এলাকা থেকে হকারদের উচ্ছেদে ব্যর্থ হয়ে এ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। হকারদের কারণে এই এলাকার ফুটপাত দিয়ে নারী, শিশু ও বৃদ্ধরা ঠিকমতো চলাচল করতে পারেন না। এ ক্ষেত্রে এলিভেটেড ওয়াকওয়ে বিকল্প হতে পারে। তা বাস্তবায়িত হলে চারজন লোক স্বচ্ছন্দ্যে পাশাপাশি হাঁটতে পারবেন। এতে সড়কে যানজট ও দুর্ঘটনার হার কমে যাবে।’

সাঈদ খোকন বলেন, ‘গুলিস্তান ও আশপাশের এলাকার ফুটপাত হকারমুক্ত রাখতে অসংখ্যবার উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে ডিএসসিসি৷ কিন্তু তা দখলমুক্ত রাখা যাচ্ছে না৷ এই দখলের সঙ্গে পুলিশের কিছু সদস্য ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নামধারী নেতা-কর্মীরা জড়িত৷ তাই পথচারীদের নিরাপদ ও স্বচ্ছন্দ্যে চলাচলের জন্য বাধ্য হয়ে উড়াল ফুটপাত নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে৷ ফুটপাতের অবৈধ দখল উচ্ছেদে অভিযানও চলবে।’

তবে মেয়রের বক্তব্যের জবাবে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার শেখ মোহাম্মদ মারুফ হাসান বলেন, ‘ডিএমপির কোনো পুলিশ সদস্য ফুটপাত-বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত নন৷ তারপরও কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে৷’

তিনি বলেন, ‘ফুটপাত দখলমুক্ত রাখার দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের৷ তারপরও নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন সময় হকারদের উচ্ছেদ অভিযান চালায় ডিএমপি৷ এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানে বিভিন্ন সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে যৌথ পরিকল্পনা দেয়া দরকার৷’

গুলিস্তান, বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ, ফুলবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকার দুই শতাধিক অবৈধ দোকানপাট ও স্থাপনা বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেয় ডিএসসিসি। ইতিমধ্যে অন্তত ১০ বার এই এলাকাগুলোর সড়ক ও ফুটপাত দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে ডিএসসিসি। কিন্তু কয়েক দিন না যেতেই উচ্ছেদের জায়গাগুলো আবার দখল হয়ে গেছে।

সম্প্রতি গুলিস্তান এলাকায় দেখা যায়, তিনটি প্রধান সড়কসহ সব ফুটপাত দখল করে রেখেছে হকাররা। হরদম বেচাকেনা চলছে। কোথাও কোথাও পথচারীদের হাঁটার জায়গা একটুও নেই।

ডিএসসিসির ট্রাফিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী রাজিব খাদেম বলেন, ‘প্রকল্পটি একনেকের সভায় অনুমোদন পেলে নির্মাণকাজ শুরু হবে। প্রকল্পটির নকশা তৈরিসহ অন্যান্য কাজ এগিয়ে নেয়ার জন্য একটি পরামর্শক প্রতিষ্ঠানকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।’

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল বলেন, ‘নাগরিকদের ফুটপাতে চলাচল নির্বিঘ্ন ও স্বাচ্ছন্দ্যময় করতে দেশে প্রথমবারের মতো রাজধানীর গুলিস্তানে এলিভেটেড ওয়াকওয়ে বা উড়াল ফুটপাত তৈরির পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। হংকং শহরেও এ ধরনের উড়াল ফুটপাত রয়েছে।’

প্রতিবেদন: ইয়াসিন রানা, সম্পাদনা: সজিব ঘোষ


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে


গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী


২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫

২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫


২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা

গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা


ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ

ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ


সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া

সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া


আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড