Tuesday, January 7th, 2020
ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে বিভ্রান্তি
January 7th, 2020 at 1:59 pm
ইরাকের পার্লামেন্টে বিদেশী সেনাসদস্যদের ইরাক ছাড়ার বিষয়ে রেজুলেশন পাশ হবার পর দেশটি থেকে মার্কিন সৈন্যদের সরে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। মার্কিন একজন জেনারেলের একটি চিঠি নিয়ে এই বিভ্রান্তি তৈরি হয়, যাতে বলা হয়েছিলো যে মার্কিন সৈন্যরা ইরাক ছাড়তে শুরু করেছে।
ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে বিভ্রান্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ইরাকের পার্লামেন্টে বিদেশী সেনাসদস্যদের ইরাক ছাড়ার বিষয়ে রেজুলেশন পাশ হবার পর দেশটি থেকে মার্কিন সৈন্যদের সরে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। মার্কিন একজন জেনারেলের একটি চিঠি নিয়ে এই বিভ্রান্তি তৈরি হয়, যাতে বলা হয়েছিলো যে মার্কিন সৈন্যরা ইরাক ছাড়তে শুরু করেছে। পরে আবার এই খবর প্রত্যাখ্যান করেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার। ওই চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, “ইরাকি এমপিরা মার্কিনীদের ইরাক ছাড়ার আহবান জানানোর পর সামনের দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রকে তার সৈন্যদের অবস্থান পরিবর্তন করতে হবে”।

চিঠির ভাষা পড়ে মনে হয়, চিঠিটি পাঠিয়েছেন ইরাকে মার্কিন ফোর্সের প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল উইলিয়াম এইচ সিলি। আর চিঠিটি পাঠানো হয় ইরাকে জয়েন্ট ফোর্সের ডেপুটি ডিরেক্টর আব্দুল আমিরের কাছে। এতে বলা হয়, “স্যার, ইরাকের সার্বভৌমত্ব এবং পার্লামেন্ট ও ইরাকি প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে কম্বাইন্ড জয়েন্ট টাস্ক ফোর্স সামনের দিনগুলোতে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বাহিনীর অবস্থান নতুন করে সাজানো হবে”।

চিঠিতে বলা হয় ইরাকের বাইরে নিরাপদে যাওয়ার জন্য এয়ার ট্রাফিক বাড়ানো সহ কিছু পদক্ষেপ ‘ডার্কনেস আওয়ারে’ করা হবে। এছাড়া বাগদাদে গ্রিন জোনে নতুন কোয়ালিশন ফোর্স আনা হচ্ছে বলে যে ধারনা তৈরি হয়েছে তাও দুর করা হয় এই চিঠিতে।

এই চিঠির বিষয় জানাজানি হলে মার্কিন মিস্টার এসপার ওয়াশিংটনে সংবাদ সম্মেলন ডেকে বলেন, “ইরাক ছাড়ার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। চিঠির বিষয়ে আমি জানিনা। এটি কোথা থেকে এলো আমরা তা নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছি। কিন্তু ইরাক ছাড়ার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি”।

এদিকে, ইরাক থেকে জার্মানি তাদের সৈন্য সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে এএফপি জানিয়েছে। ইরানি কমান্ডার কাসেম সোলেমানিকে হত্যার পর আমেরিকান সৈন্যদের উদ্দেশ্য করে দেয়া হুমকির মধ্যেই এই বিভ্রান্তি তৈরি হয়। শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে তাকে হত্যা করা হয়, যা ওই অঞ্চলে উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে দেয়। ইরানীরা এই হত্যাকাণ্ডের কঠিন প্রতিশোধ নেয়ার অঙ্গীকার করেছে। মঙ্গলবার সোলেমানির শেষকৃত্যানুষ্ঠান হবার কথা রয়েছে, যেখানে ইরানের অন্ততঃ ৭০ লাখ মানুষ জড়ো হয়েছে বলে জানিয়েছে আল-জাজিরা।


সর্বশেষ

আরও খবর

কুমিল্লার মণ্ডপে কোরআন রাখা ব্যক্তি শনাক্ত

কুমিল্লার মণ্ডপে কোরআন রাখা ব্যক্তি শনাক্ত


কুমিল্লার মূল অভিযুক্ত পালিয়ে বেড়াচ্ছে, দ্রুতই গ্রেপ্তার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কুমিল্লার মূল অভিযুক্ত পালিয়ে বেড়াচ্ছে, দ্রুতই গ্রেপ্তার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


হামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

হামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ


দেবীগঞ্জের অগ্নিকাণ্ড নিছক দূর্ঘটনা: ইউএনও

দেবীগঞ্জের অগ্নিকাণ্ড নিছক দূর্ঘটনা: ইউএনও


সাম্প্রদায়িক নৈরাজ্যে আক্রান্ত ২৩ জেলা

সাম্প্রদায়িক নৈরাজ্যে আক্রান্ত ২৩ জেলা


ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ

ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ


ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু


পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড


মিরপুরে খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার

মিরপুরে খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার


কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী

কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী