Wednesday, July 13th, 2016
ইসলামের অসম্মান বরদাশত করবে না সরকার
July 13th, 2016 at 7:24 pm
ইসলামের অসম্মান বরদাশত করবে না সরকার

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ইসলাম শান্তির ধর্ম। আমাদের এই পবিত্র ধর্মকে কেউ হেয় করবে, এটা আমরা বরদাশত করব না।’ সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদি গোষ্ঠী প্রকৃত অর্থে ইসলাম ধর্মেরই ক্ষতি সাধণ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি- মুসলমান হয়ে মুসলমানকে হত্যা করে এই পবিত্র ইসলাম ধর্মটাকেই আজকে হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে।’

প্রধানামন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার গণভবন থেকে ১৫টি জেলার সরকারি কর্মকর্তা, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, সমাজকর্মী, এনজিও কর্মী, সাংবাদিক, মুক্তিযোদ্ধা ও শিক্ষকদের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে এসব কথা বলেন। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সচেতনতা গড়ে তোলার অংশ হিসেবে অনুষ্ঠিত এ কনফারেন্সে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বান্দরবন, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি, ব্রাক্ষণবাড়িয়া, কুমিল্লা, নোয়াখালি, চাঁদপুর, ফেনী ও লক্ষীপুরের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সাথে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম এবং তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন সিকদার ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো.আবুল কালাম আজাদ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শোলাকিয়ায় ঈদের জামায়াতের আগে পুলিশের ওপর হামলা করা হয়। গুলশানের হামলাতেও দুই পুলিশ সদস্য মারা গেছেন। তিন বাংলাদেশিসহ ২০ জন সাধারণ মানুষ ওই হামলায় মারা গেছেন।এই ঘটনাগুলো বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক। এটা ঘৃণ্য অপরাধ যারা এ ঘটনা ঘটাচ্ছে তারা নামি দামি বিশ্ববিদ্যালয় বা স্কুল কলেজের ছাত্র। উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তান। তাদের কোনো চাহিদা তো অপূরণ থাকে না। তাহলে এসব কাণ্ড কেন।’

আওয়ামী লীগ সরকার বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের কোনো স্থান দেবে না উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ যখন বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বব্যাপী এত উজ্জ্বল, যখন আমরা আলোর পথে যাত্রা শুরু করেছি সেই সময় এই ঘটনা ঘটিয়ে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিকে নষ্ট করা, উন্নয়ন-অগ্রযাত্রা ব্যাহত করা, দেশকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দেয়ার একটা ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। কাজেই আমি মনে করি আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ দমন করতে হবে ,বাংলাদেশকে এই সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থেকে মুক্ত করতে হবে, মানুষের জীবনে শান্তি ফিরিয়ে আনতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মনে করি- আমাদের মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনসহ ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ, শিক্ষকবৃন্দ, অভিভাবকবৃন্দ, প্রশাসনে যারা কর্মরত, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারি সংস্থা, জনপ্রতিনিধিরা আছেন এবং সমাজসেবক, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার যারা আছেন; সকলকেই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এই জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে।’

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসকে


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ


মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার

মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার


বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি

বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি


মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার

মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার


করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি

করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি