Saturday, August 10th, 2019
ঈদযাত্রায় ভোগান্তি: শিডিউল বিপর্যয়ে ট্রেন
August 10th, 2019 at 11:09 pm
ঈদযাত্রায় ভোগান্তি: শিডিউল বিপর্যয়ে ট্রেন

ঢাকা: ঈদযাত্রার চতুর্থ দিনে ভেঙে পড়েছে ট্রেনের শিডিউল। প্রতিটি আন্তঃনগর ট্রেন ৮ থেকে ১৫ ঘণ্টা পর্যন্ত দেরিতে ছাড়ছে। কর্তৃপক্ষ বলছে ট্রেনে অতিরিক্ত যাত্রী থাকায় ধীরগতি তৈরি হয়েছে, এতে ট্রেন বিলম্বে স্টেশনে আসছে।

কমলাপুর স্টেশনে ট্রেন আসার পরই আবারও গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে শিডিউল বিপর্যয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন নারী ও শিশু যাত্রীরা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত স্টেশনে অবস্থান করায় ক্লান্ত হয়ে অনেকেই ঘুমিয়ে পড়েন।

স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, এদিন কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে মোট ৫৫টি ট্রেন দেশের বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। এর মধ্যে ৩৪টি আন্তঃনগর, ৩টি ঈদ স্পেশাল, বাকিগুলো মেইল ট্রেন। মেইল ট্রেন সময়মতো স্টেশন ছাড়লেও শিডিউল বিপর্যয়ে পড়ে আন্তঃনগর ও ঈদ স্পেশাল।

রংপুর এক্সপ্রেস সকাল ৯টায় স্টেশন ছাড়ার কথা থাকলেও এটি ছাড়ার সম্ভাব্য সময় দেওয়া হয়েছে রাত ৯টায়। লালমনি ঈদ স্পেশাল সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে স্টেশন ছাড়ার কথা থাকলেও এটি ছাড়ার সম্ভাব্য সময় দেওয়া হয়েছে রাত সাড়ে ১০টা, সিল্ক সিটি দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে ছাড়ার কথা থাকলেও এটি ছাড়ার সময় দেওয়া আছে রাত ১১টা ৫৫ মিনিট, খুলনা অভিমুখী চিত্রা এক্সপ্রেস সন্ধ্যা ৭টায় ছাড়ার কথা থাকলেও এটি ছাড়ার সম্ভাব্য সময় দেওয়া হয়েছে রাত ১টা ৪০ মিনিট, দ্রুতযান এক্সপ্রেস রাত ৮টায় ছাড়ার কথা থাকলেও এখনও সেটি ছাড়ার কোনো সময় দেওয়া হয়নি।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ আমিনুল হক জানান, এবার ট্রেনের ঈদযাত্রা ছিলো নির্দিষ্ট সময়ে। তবে শুক্রবার একটা এক্সিডেন্ট হওয়ায় ৬ ঘণ্টা বিলম্ব তৈরি হয়। তাছাড়া ট্রেনে অতিরিক্ত যাত্রীর চাপ থাকায় দেরিতে স্টেশনে ট্রেন পৌঁছাচ্ছে। আর স্টেশনে ট্রেন আসার পর এখানে কোনো দেরি হচ্ছে না, দ্রুত সময়ে আবার গন্তব্যে চলে যাচ্ছে।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: এম কে আর


সর্বশেষ

আরও খবর

রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনে মার্কিন চাপ অব্যাহত রয়েছে: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনে মার্কিন চাপ অব্যাহত রয়েছে: মার্কিন রাষ্ট্রদূত


বিআরটিসির দুর্নীতি বন্ধে কঠিন হবে সরকার: কাদের

বিআরটিসির দুর্নীতি বন্ধে কঠিন হবে সরকার: কাদের


ফরিদপুরে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত

ফরিদপুরে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত


টেকনাফে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যার অভিযোগ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে

টেকনাফে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যার অভিযোগ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে


সাতক্ষীরায় দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে নিহত ১

সাতক্ষীরায় দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে নিহত ১


এএফসি কাপে দুরন্ত জয় পেল আবাহনী

এএফসি কাপে দুরন্ত জয় পেল আবাহনী


গ্রেনেড হামলার আপিল শুনানি এ বছরেই শুরু হবে: আইনমন্ত্রী

গ্রেনেড হামলার আপিল শুনানি এ বছরেই শুরু হবে: আইনমন্ত্রী


আমি মরলে খালেদা জিয়া শোক দেবে, সেটাও তৈরি ছিল: প্রধানমন্ত্রী

আমি মরলে খালেদা জিয়া শোক দেবে, সেটাও তৈরি ছিল: প্রধানমন্ত্রী


আবারও বিয়ে করলেন ‘দ্য রক’

আবারও বিয়ে করলেন ‘দ্য রক’


অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে: হাইকোর্ট

অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে: হাইকোর্ট