Saturday, October 20th, 2018
উন্নয়নের ধারাবাহিকতার জন্য শিক্ষকদের সমর্থন চাইলেন প্রধানমন্ত্রী
October 20th, 2018 at 10:36 pm
উন্নয়নের ধারাবাহিকতার জন্য শিক্ষকদের সমর্থন চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আমি আপনাদের সহযোগিতা চাই, যাতে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের চলমান গতি বজায় থাকে এবং আমাদের শুরু করা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডগুলো শেষ করা যায়। কারণ, ২০০১ সালে ক্ষমতায় আসতে না পারার কারণে আমাদের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডগুলো পরবর্তী বিএনপি-জামায়াত সরকার বন্ধ করে দিয়েছিল।

শনিবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ফেডারেশন (এফবিইউটিএ) আয়োজিত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, নির্বাচনে জনগণ যদি ভোট দেয় তাহলে হয়তো নির্বাচিত হয়ে আসবো। আর যদি নাও দেয় তাহলেও কোন আফসোস থাকবে না কারণ, বাংলাদেশে উন্নয়নের যে ধারাটা আমরা শুরু করেছি সেটা যেন অব্যাহত থাকে তা আপনারাই নিশ্চিত করবেন, সেটাই আমি চাই।

৩২শ’ মেগাওয়াট থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা ২০ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করায় তার সরকারের সাফল্য তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া গ্রাম-গঞ্জের মানুষ এখন যে পাচ্ছে, মানুষের আর্থিক স্বচ্ছলতা যে বেড়েছে সেটা ধরে রাখতে হবে। কাজেই বাংলাদেশের জনগণ যদি মনে করে উন্নয়নের এই ধারা ধরে রাখতে হবে- আমি আশাকরি হয়তো তারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে তাদের আবার সেবা করার সুযোগ দেবে।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মুক্ত রাখায় তার সরকারের অঙ্গীকারের উল্লেখ করে তার সরকারের গড়ে তোলা সামাজিক প্রতিরোধ আন্দোলন জোরদার করার ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বলেন, সেটা করতে হলে শিক্ষক, অভিভাবক, মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন জনপ্রতিনিধি, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সকলে মিলেই করতে হবে, সরকারের একার পক্ষে সম্ভব হবে না, সমগ্র সমাজকেই দায়িত্ব নিতে হবে।

তার সরকারের কওমী মাদ্রাসা শিক্ষাকে মূলধারায় নিয়ে আসার উদ্যোগ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে ১৪/১৫ লাখ ছেলে-মেয়ে মাদ্রাসা শিক্ষায় সম্পৃক্ত। তারাও যেন উচ্চশিক্ষা পায়, তারাও যেন ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি পার্থিব শিক্ষার মাধ্যমে মানুষের মত মানুষ হয়ে নিজেদেরকে কর্মপেযোগী করে গড়ে তুলতে পাওে, সেটাও আমরা ব্যবস্থা করেছি।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। এফবিইউটিএ’র সভাপতি অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শিবলী রুবায়তুল ইসলাম অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন।

দেশের শিক্ষা সম্প্রসারণে বর্তমান সরকারের উদ্যোগ সমুহ নিয়ে অনুষ্ঠানের শুরুতে একটি প্রামাণ্য চিত্রও পরিবেশিত হয়।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

বিরোধী দলে থাকার সিদ্ধান্ত জাতীয় পার্টির

বিরোধী দলে থাকার সিদ্ধান্ত জাতীয় পার্টির


মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে বিএনপি নেতারা

মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে বিএনপি নেতারা


শনিবার বিকেলে আসবে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ

শনিবার বিকেলে আসবে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ


সৈয়দ আশরাফ আর নেই

সৈয়দ আশরাফ আর নেই


কারচুপির অভিযোগ এনে ইসিতে স্মারকলিপি দিল ঐক্যফ্রন্ট

কারচুপির অভিযোগ এনে ইসিতে স্মারকলিপি দিল ঐক্যফ্রন্ট


সাংবাদিক হেদায়েত হোসেন জামিনে মুক্ত

সাংবাদিক হেদায়েত হোসেন জামিনে মুক্ত


নবনির্বাচিত এমপিদের শপথ গ্রহণ

নবনির্বাচিত এমপিদের শপথ গ্রহণ


নতুন মন্ত্রিপরিষদের শপথ সোমবার

নতুন মন্ত্রিপরিষদের শপথ সোমবার


সুবর্ণচরে ধর্ষণের ঘটনায় কেউ পার পাবে না: কাদের

সুবর্ণচরে ধর্ষণের ঘটনায় কেউ পার পাবে না: কাদের


দেশ ও জনগণের প্রতি দায়িত্ব আরও বেড়ে গেছে: শেখ হাসিনা

দেশ ও জনগণের প্রতি দায়িত্ব আরও বেড়ে গেছে: শেখ হাসিনা