Friday, June 14th, 2019
এই বাজেটে বৃহত্তর জনগোষ্ঠী অর্থনৈতিক চাপে পড়বে: বিএনপি
June 14th, 2019 at 8:49 pm
এই বাজেটে বৃহত্তর জনগোষ্ঠী অর্থনৈতিক চাপে পড়বে: বিএনপি

ঢাকা: ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বিপুল ব্যয়ের আকাঙ্ক্ষা থাকলেও সরকারের আয়ের সামর্থ্য কমে গেছে বলে মনে করছে বিএনপি। প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের পক্ষ্য থেকে এমন অভিমত ব্যক্ত করেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার ‘উচ্চাভিলাষী বাজেট’ ঘোষণা করেছেন– মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, বাজেটের আকার বড় করার চমক সৃষ্টির প্রতিযোগিতায় নেমেছেন যেন অর্থমন্ত্রী। কিন্তু বাজেট বৃদ্ধির এ প্রগলভতা বছর শেষে চুপসে যেতে দেখা যায়। বাজেটের আকার কত বড় এ নিয়ে আর জনমনে কোনো উচ্ছাস নেই।

ঋণের পরিমাণ ক্রমাগত বৃদ্ধির ফলে সুদ-আসল পরিশোধ করতেই বিশাল ব্যয় হচ্ছে– উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ খাতে রাজস্ব ব্যয়ের ১৮ শতাংশ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ফলে দেশের গুণগত সার্বিক রূপান্তরে অত্যধিক প্রয়োজনীয় মানব পুঁজি বা দক্ষ শ্রমশক্তি বিনির্মাণে, তথা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে সরকারি বিনিয়োগ বাড়ছে না।

প্রস্তাবিত বাজেটে ৮ দশমিক ২ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, চলতি অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ অর্জিত হবে বলে আশা করা হয়েছে। যদিও অর্থবছরের শুরুতে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধরা ছিল ৭ দশমিক ১ শতাংশ, যা প্রশ্নবিদ্ধ। জিডিপি প্রবৃদ্ধির সঙ্গে সামষ্টিক অর্থনীতির ইনডেক্সগুলোর কোনো সামঞ্জস্য নেই। ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হলে রফতানি বাণিজ্য, শিল্প প্রবৃদ্ধি ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও বেকারত্ব যে হারে হ্রাস পাওয়ার কথা বাস্তব চিত্র তার চেয়ে ভিন্ন। জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ১৩ হলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষ কেন সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে সলিল সমাধি হচ্ছে? দেশের ব্যালেন্স অব পেমেন্ট অবস্থান ইতোমধ্যে নেতিবাচক অবস্থায় চলে গেছে। লেনদেনের ভারসাম্য নিদারুণ ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। শিক্ষা খাত প্রায় ধ্বংস হয়ে গেছে। সংখ্যায় বাড়লেও শিক্ষার গুণগত মানে ধস নেমেছে। শিক্ষা খাতে ব্যয় মোট জিডিপির ৩ দশমিক ২ শতাংশেরও কম। স্বাস্থ্য খাতে ১ শতাংশেরও কম। মানবসম্পদ আশানুরূপভাবে উন্নত হয়নি। দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যাংকগুলোকে করের টাকা দিয়ে ক্ষতির রাষ্ট্রীয়করণ করা হচ্ছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, আওয়ামী লীগ ও তাদের সুবিধাভোগীদের জন্য এ বাজেট। দুর্নীতির সব পথ এখন উন্মুক্ত। স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আব্দুল মঈন খান বলেন, বাজেটের মাধ্যমে জনগণ করের বোঝা পেয়েছে।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: এম কে আর


সর্বশেষ

আরও খবর

রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনে মার্কিন চাপ অব্যাহত রয়েছে: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

রোহিঙ্গাদের স্থায়ী প্রত্যাবাসনে মার্কিন চাপ অব্যাহত রয়েছে: মার্কিন রাষ্ট্রদূত


বিআরটিসির দুর্নীতি বন্ধে কঠিন হবে সরকার: কাদের

বিআরটিসির দুর্নীতি বন্ধে কঠিন হবে সরকার: কাদের


ফরিদপুরে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত

ফরিদপুরে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত


টেকনাফে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যার অভিযোগ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে

টেকনাফে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যার অভিযোগ রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে


সাতক্ষীরায় দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে নিহত ১

সাতক্ষীরায় দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে নিহত ১


এএফসি কাপে দুরন্ত জয় পেল আবাহনী

এএফসি কাপে দুরন্ত জয় পেল আবাহনী


গ্রেনেড হামলার আপিল শুনানি এ বছরেই শুরু হবে: আইনমন্ত্রী

গ্রেনেড হামলার আপিল শুনানি এ বছরেই শুরু হবে: আইনমন্ত্রী


আমি মরলে খালেদা জিয়া শোক দেবে, সেটাও তৈরি ছিল: প্রধানমন্ত্রী

আমি মরলে খালেদা জিয়া শোক দেবে, সেটাও তৈরি ছিল: প্রধানমন্ত্রী


আবারও বিয়ে করলেন ‘দ্য রক’

আবারও বিয়ে করলেন ‘দ্য রক’


অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে: হাইকোর্ট

অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে: হাইকোর্ট