Sunday, February 26th, 2017
একি ‘ডুব’র ‘নোংরা’ প্রচারণা?
February 26th, 2017 at 8:42 pm
একি ‘ডুব’র ‘নোংরা’ প্রচারণা?

আসিফ আলম, ঢাকা:

ডুবছে না ‘ডুব’র আলোচনা। আনন্দবাজার থেকে শুরু; বাংলার বাজার ছাড়িয়ে আলোচনার রেশ ঠেকেছে সুদূর আমেরিকাতে। যদিও ঘটনার সূত্রপাত ‘ডুব’ নিয়ে নয় কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহামেদকে কেন্দ্র করে। কেন না কেউ বলছেন, সিনেমার গল্প গড়ে উঠেছে তার জীবনকে কেন্দ্র করে। তবে নির্মাতার দাবি মৌলিক গল্পেই সিনেমার ভিত্তি গড়ে উঠেছে। তারপর থেকেই বহুপক্ষে ঘুরছে ‘ডুব’র কথা। তাই অনেকের মনেই এখন জন্মেছে এক সাধারণ প্রশ্ন, ‘একি সিনেমা প্রচারণার কৌশল’? কেউ কেউ একে আবার ‘নোংরা’ প্রচারণার অংশ হিসেবেও আখ্যা দিতে দ্বিধা বোধ করছেন না।

মোস্তফা সোরয়ার ফারুকী নির্মিত ছবি ‘ডুব’। যার অধিকাংশ তথ্যই দেশিয় গণমাধ্যম পেয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের হাত ধরে। কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদক ইন্দ্রনীল রায়ের দাবি, তার কাছে নির্মাতা ফারুকী বলেছেন সিনেমাটি হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে। যদিও দেশিয় গণমাধ্যমে এমন কথা মানছেন না ফারুকী।

এদিকে নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা স্বীকার করেছেন ছবিতে মায়া চরিত্রে অভিনয় করা রোকেয়া প্রাচী। আর হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে ছবিটি এমন অভিযোগ করেছেন তার স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন।শাওনের পাশাপাশি প্রকাশক সমিতিও ‘ডুব’ মুক্তিতে আপত্তি জানিয়েছেন। সত্যি কি হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে ‘ডুব’ নাকি শুধুই সম্মিলিত স্টানবাজি?


রোকেয়া প্রাচী ও ইন্দ্রনীল রায়ের স্বীকারোক্তি

রোকেয়া প্রাচী ছবির গল্প প্রসঙ্গে নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘গল্পের শুরুতে মায়াকে একজন সাধারণ হাউজ ওয়াইফ হিসেবে দেখা যাবে। তার স্বামীর নাম জাভেদ। তাদের সংসার জীবনটা বেশ সুন্দর। হাজবেন্ড লেখালেখি করেন। তিনি একজন ফিল্মমেকার। মায়া ও জাভেদের প্রেমের বিয়ে। জাভেদ আর মায়ার মধ্যে বয়সের একটু ব্যবধান আছে। তারা পালিয়ে বিয়ে করে। সুখের দাম্পত্য জীবন যেতে যেতে এক মেয়ের জন্ম হয়। সেই মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছে তিশা। তিশার প্রিয় বান্ধবীর ভূমিকায় অভিনয় করেছে কলকাতার পার্নোমিত্র। সে মাঝে মাঝেই আমাদের বাসায় আসে। আমার স্বামী মেয়ের বান্ধবীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে যায়। এই প্রেমকে ঘিরে আমাদের দাম্পত্য জীবনে একটা ঝড় ওঠে। ছবিতে আমি যতদূর পর্যন্ত অভিনয় করেছি, যে ঘটনাগুলোর মুখোমুখি হয়েছি; তাতে নিশ্চিতভাবে বলতে পারি এটি হুমায়ূন আহমেদেরই জীবন কাহিনী।’

আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদক ইন্দ্রনীল রায়ের বক্তব্য প্রকাশিত হয়েছে। যেখানে ‘ডুব’কে হুমায়ূন আহমেদের জীবনী বলে প্রতিবেদককে ফারুকীর তথ্য সরবরাহের দাবি করেছেন ইন্দ্রনীল। ফারুকী এই তথ্য গোপন রাখারও কথা নিয়েছিলেন ইন্দ্রনীলের কাছ থেকে। সাক্ষাৎকারে ‘ডুব’র ভেতরের তথ্য আনন্দবাজারে প্রকাশের দায়ভার ফারুকী আকারে-ইঙ্গিতে চাপিয়ে দিয়েছেন ভারতের অংশীদার প্রযোজকের উপর।

শাওনের আপত্তি

‘ডুব’ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন প্রয়াত হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন। গেল ফেব্রুয়ারির ১৩ তারিখ শাওন একটি চিঠি সেন্সরবোর্ডে দেয়। চিঠিতে শাওন লিখেন, ‘আমি যেই আশঙ্কাগুলো করছি, ছবিটি দেখার সময় সেই বিষয় গুলো যাচাই বাছাই করে যেন তারা সিদ্ধান্তে উপনীত হন। এ ছবিতে যদি কোনো আপত্তিকর বিষয় থাকে, সেগুলো যেন যথাযথভাবে পরিবর্তন এবং পরিশোধন করে মুক্তি দেয়া হয়।’

প্রথমে সেন্সর বোর্ড ছবিটি মুক্ততিতে অনাপত্তি চিঠি দিলেন পরবর্তীতে আবার তারা আপত্তি জানান ও ছবিটি মুক্তি নিষিদ্ধ করেন।

এরপরই শাওন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমি ‘ডুব’ চলচ্চিত্রটি বন্ধের জন্য কোনো আবেদন করিনি। শুধু বলেছি, ছবিটিতে যদি হুমায়ূন জীবনী নিয়ে আপত্তিকর কিছু থেকে থাকে তাহলে তা যেন পরিবর্তন করে মুক্তি দেয়া হয়।’

আমেরিকা প্রবাসীর ভিডিও ও শাওনের মামলা

আমেরিকা প্রবাসী বান্টি মীর নামের এক ব্যক্তির ভিডিও চিত্রকে কেন্দ্র করে ফের নতুন মোর নেয় ‘ডুব’র আলোচনা। ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘মোস্তফা সোরয়ার ফারুকী নির্মিত ছবি ‘ডুব’র গল্প কাল্পনিক বলে জানিয়েছেন নির্মাতা কিন্তু শাওন তা তার জীবনের সাথে এক করে ফেলেছেন। কারণ, চোরের মন পুলিশ পুলিশ।’ তিনি জানান, বাংলাদেশে ‘ডুব’ মুক্তির দায়িত্ব নিবেন তিনি।

বান্টি মীরের ভিডিওর পর ধানমন্ডি থানায় শুক্রবার জিডি করেছেন শাওন। এতে বান্টি মীর নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তিনি। এরপর রোববার  আইসিটি অ্যাক্ট ৫৭ ধারায় আমেরিকা প্রবাসী বান্টি মীরের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন শাওন।

প্রকাশক সমিতির আপত্তি

‘ডুব’ মুক্তিতে আপত্তি জানিয়েছে বই প্রকাশকদের সংগঠন বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতি। সংগঠনটির পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সম্প্রতি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকে প্রাপ্ত তথ্যে আমরা জানতে পেরেছি যে, মোস্তফা সোরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’ চলচ্চিত্রটি কিংবদন্তি কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জীবনকে ঘিরে নির্মিত হয়েছে।’

‘এই চলচ্চিত্রে হুমায়ূন আহমেদের জীবনের এমন কিছু প্রসঙ্গ রয়েছে, যেগুলোর সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন আছে। হুমায়ূন আহমেদের মতো কিংবদন্তির জীবনভিত্তিক ছবি নির্মাণ করতে হলে আমরা মনে করি, অবশ্যই তার পরিবারের সম্মতিতে হওয়া উচিৎ।’

ডুব নিয়ে এইসব নাটকীয়তার পর কি ভাবছেন নির্মাতারা? ডুব প্রসঙ্গ নিয়ে কথা হয় দেশের কয়েকজন চলচ্চিত্র নির্মাতার সাথে।

পরিচালক মতিন রহমান

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত পরিচালক মতিন রহমান বলেন, ‘কোনো বিখ্যাত মানুষের জীবন কাহিনী নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করলে অবশ্যই তার পরিবারের অনুমতি প্রয়োজন। যদি কাল্পনিকভাবে কোনো সিনেমা নির্মাণ করা হয় আর তা যদি কারো জীবনের সঙ্গে মিলে যায় বা সত্য ঘটনার সঙ্গে মিলে যায় তা আইনত দণ্ডণীয়।’

‘ঋতুপর্ণ ঘোষ নির্মিত সিনেমা ‘আবহমান’। আমার বিশ্বাস, এই সিনেমাটি সত্যজিৎ রায়ের জীবনের একটি গল্প। ওই গল্পটি মনে হয়, তার জীবনের গল্প কিন্তু ধরার উপায় নাই। পরিচালক তার নির্মাণশৈলি, তার বোধ শক্তি থেকে এমনভাবে একটা কল্পনার জগৎ সৃষ্টি করেছেন যা স্পর্শ করা যায় না, অনুভব করা যায়। কিন্তু ‘ডুব’ স্পর্শ করা যায়। স্পর্শ করা যায় এমন উপাদান সবসময়ই আইনের আওতায় পড়ে। সিনেমার সঙ্গে জড়িতরাও বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিভিন্ন কথা বলেছেন। এটা নিয়ে ওরা নিজেরাই বির্তকের সৃষ্টি করছে। ‘ডুব’ বির্তক তাদের উভয়ের সম্মিলিত স্টান্টবাজি কিনা, তার ব্যাখ্যা আপনারা খুঁজে বের করুন।’

নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান

‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ খ্যাত পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান বলেন, ‘যে কারো জীবনী নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করতে হলে তাদের পরিবারের অনুমতি নিয়েই নির্মাণ করতে হবে। আর বিখ্যাত ব্যক্তি হলে তার জন্য আরো বেশি অনুমতি জরুরি। তার পরিবার অনুমতি দিয়ে সিনেমার পুরো বিষয়টি দেখবেন।’

‘হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ এরইমধ্যে আপত্তি জানিয়েছেন। চলচ্চিত্র একটি শক্তিশালী মাধ্যম। দর্শকদের মধ্যে অনেক হুমায়ূন ভক্ত আছেন। নতুন প্রজন্মের এমন অনেক দর্শক আছেন যারা হুমায়ূন আহমেদ পড়া শুরু করেছেন মাত্র। তারা ছবিটি দেখে ভুল তথ্য পাবেন হুমায়ূন আহমেদকে নিয়ে। এই বিভ্রান্তিকর তথ্যে ভরা কাহিনীচিত্রটি পরবর্তীতে হুমায়ূন আহমেদের জীবনী হিসেবে ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে উপস্থাপিত হবে। হুমায়ূনের এবং আমার দু’টি ছোট সন্তান আছে। তাদেরও ভবিষ্যত আছে। বিভ্রান্তিমূলক তথ্যের মধ্যে তারা কেন বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়বে! এসব বিবেচনায় হুমায়ূন আহমেদের জীবন নিয়ে নির্মিত সিনেমার ব্যাপারে আমার আশঙ্কা করার যথেষ্ট কারণ আছে।’

‘ডুব’ সিনেমায় কিছু দৃশ্য আছে যা অশ্লীল এবং অসঙ্গতিপূর্ণ। এই দৃশ্যগুলো বাদ দিয়ে সিনেমাটি মুক্তি দেয়া হোক। এটা মেনে নিয়ে সিনেমাটি মুক্তি দিলেই কোনো সমস্যা নেই। আমার কথা হলো- আপত্তিকর দৃশ্যগুলো বাদ দিয়ে রিশুট করে সিনেমাটি মুক্তি দেয়া হোক। হুমায়ূন স্যারকে নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করে চিরঞ্জয়ী করে রাখতে পারাটা ভালো কিন্তু পরিবারের অনুমতি নিয়ে। একজন মানুষের ভালো মন্দ দুটি দিকই থাকে। সব খারাপই তুলে ধরতে হবে এটা একেবারেই ঠিক না। একজন বিখ্যাত মানুষকে অবশ্যই ছোট করতে পারি না।’

উল্লেখ্য, সিনেমাটি জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে প্রযোজনা করছে ভারতের এসকে মুভিজ ও ইরফান খানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আইকে কোং। মোস্তফা সোরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘ডুব’ ছবিতে অন্যান্যের মধ্যে অভিনয় করেছেন বলিউড স্টার ইরফান খান, তিশা, পর্ণোমিত্র ও রোকেয়া প্রাচী।

 

সম্পাদনা: সজিব ঘোষ


সর্বশেষ

আরও খবর

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার


নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু