Saturday, November 5th, 2016
এখনো শঙ্কায় নাসিরনগর, গ্রেফতার আরো ৩৩
November 5th, 2016 at 9:15 am
এখনো শঙ্কায় নাসিরনগর, গ্রেফতার আরো ৩৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: নাসিরনগরে হিন্দুদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আরও ৩৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগতরাত থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

নাসিরনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবু জাফর গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, হিন্দুদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়েরকৃত দুই মামলায় ওই ৩৩ জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এ নিয়ে গ্রেফতারের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৪ জন। তবে গ্রেফতারকৃতদের নাম-পরিচয় এখনো জানায়নি পুলিশ।

1

যদিও আইন-শৃংখলা বাহীনির তৎপরতায় এলাকার পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে। কিন্তু এখনো নাসিরনগরের মানুষের শঙ্কা কাটেনি। নিরাপত্তা বজায় রাখতে এবং অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওই এলাকায় র‌্যাবের অস্থায়ী ক্যাম্প বসানো হয়েছে।

এদিকে ওই ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে স্থানীয় আওয়ামী লীগের তিন নেতা আবুল হাশেম, ফারুক মিয়া ও সুরুজ আলীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। শুক্রবার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর দ্বিতীয়বার হামলার পর সন্ধ্যায় তাদের বহিষ্কার করা হয়।

উল্লেখ্য, ইসলাম অবমাননার প্রতিবাদের নামে ৩০ অক্টোবর নাসির নগরের ১৫টি মন্দির এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের দেড় শতাধিক ঘর ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়। ওই ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসনের গাফিলতি ছিল বলে অভিযোগ ওঠে। ওই এলাকার একাধিক সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সদস্য অভিযোগ করেন, নাসিরনগরের ইউএনও মোয়াজ্জেম ও ওসি আবদুল কাদেরের উপস্থিতিতে একটি সমাবেশে ‘উসকানিমূলক’ বক্তব্যের পরই ওই হামলা চালানো হয়।

ঘটনার পর সহস্রাধিক লোককে আসামি করে দুটি মামলা হয়।গঠন করা হয় তিনটি তদন্ত কমিটি। মন্দিরসহ বাড়িঘরে হামলার পাঁচ দিনের মাথায় পুলিশি নিরাপত্তার মধ্যেই শুক্রবার ভোরে উপজেলা সদরের পশ্চিমপাড়া এলাকায় সংখ্যালঘুদের বেশ কয়েকটি ঘরবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা।

এমন অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘ভোরে (শুক্রবার) কে বা কারা উপজেলা সদরের পশ্চিমপাড়া এলাকায় সংখ্যালঘুদের ৫টি গোয়াল ও রান্নাঘরে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। কারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

প্রতিবেদন- ময়ূখ, সম্পাদনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

সকালে কন্যা সন্তানের জন্ম, বিকালেই করোনায় মায়ের মৃত্যু

সকালে কন্যা সন্তানের জন্ম, বিকালেই করোনায় মায়ের মৃত্যু


করোনায় দেশে একদিনে শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড

করোনায় দেশে একদিনে শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড


করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ১০ হাজার

করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ১০ হাজার


জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা


লকডাউনের নামে সরকার ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে: ফখরুল

লকডাউনের নামে সরকার ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে: ফখরুল


আসামে বন্দী রোহিঙ্গা কিশোরীকে কক্সবাজারে চায় পরিবার

আসামে বন্দী রোহিঙ্গা কিশোরীকে কক্সবাজারে চায় পরিবার


ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক

ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক


ঢাকা-দিল্লি ৫ সমঝোতা স্মারক সই

ঢাকা-দিল্লি ৫ সমঝোতা স্মারক সই


করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু

করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু


করোনায় আক্রান্ত শচীন

করোনায় আক্রান্ত শচীন