Tuesday, February 11th, 2020
করোনাভাইরাসঃ হাজার ছাড়ালো মৃত্যু, অবহেলার দায়ে বরখাস্ত অনেক কর্মকর্তা
February 11th, 2020 at 12:09 pm
সব মিলিয়ে চীনে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০১৬ জনে, আর আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪২ হাজার ৬৩৮ জনে
করোনাভাইরাসঃ হাজার ছাড়ালো মৃত্যু, অবহেলার দায়ে বরখাস্ত অনেক কর্মকর্তা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রয়টার্স জানিয়েছে যে, সোমবার একদিনেই এই ভাইরাসে মারা গেছেন ১০৮ জন; এর মধ্যে ১০৩ জনের মৃত্যু হয়েছে হুবেই প্রদেশে। সব মিলিয়ে চীনে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০১৬ জনে। আর চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে এ পর্যন্ত ফিলিপিন্স ও হংকংয়ে দুই চীনা নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে নতুন এ ভাইরাসে।

চীনের মূল ভূখণ্ডে এ পর্যন্ত যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে একজন জাপানি ও একজন মার্কিন নাগরিক রয়েছেন, বাদবাকি সবাই চীনা নাগরিক।

গত বছরের শেষ দিন এই হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম এ ভাইরাস সংক্রমণের বিষয়টি ধরা পড়ার পর থেকে এক দিনে এত বেশি মৃত্যুর খবর আর আসেনি।

তবে করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমে এসেছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য কমিশন। কিছু এলাকায় চলাফেরায় কড়াকড়ি শিথিল করায় আতঙ্ক নিয়েই বিভিন্ন দপ্তর ও কারখানায় কাজে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ।

এদিকে, সোমবার নতুন ২৪৭৮ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় চীনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪২ হাজার ৬৩৮ জনে। চীনের বাইরে অন্তত ২৫টি দেশে আড়াইশর বেশি মানুষের দেহে এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩ হাজার ছাড়িয়ে গেছে বলে তথ্য দিয়েছে সিএনএন।

আর, চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ৩ হাজার ৯৯৬ জন ভালো হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

সিঙ্গাপুরপ্রবাসী এক বাংলাদেশির শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ায় গত রোববার তাকে নেওয়া হয়েছে আইসোলেশন ইউনিটে। তবে বাংলাদেশে কারও মধ্যে অথবা চীনে অবস্থানরত কোনো বাংলাদেশির মধ্যে এ ভাইরাস সংক্রমণের খবর আসেনি এখনও।

বিভিন্ন দেশে মানুষ থেকে মানুষে নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার খবর আসতে থাকায় গত ৩০ জানুয়ারি এ ভাইরাস নিয়ে বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে প্রাথমিক উপসর্গ হয় ফ্লু বা নিউমোনিয়ার মত। কিন্তু বয়স্ক এবং অন্য অসুস্থতা থাকা ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এ সংক্রামক রোগ হয়ে উঠতে পারে প্রাণঘাতী। এর কোনো প্রতিষেধকও মানুষের জানা নেই। আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে যেসব উপসর্গ দেখা দেয়, সাধারণভাবে সেগুলো সারানোর জন্যই চিকিৎসা দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। অবস্থা গুরুতর হলে নেওয়া হচ্ছে বিশেষ ব্যবস্থা।

২০০২-০৩ সালে করোনাভাইরাস পরিবারের আরেক সদস্য সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিনড্রোমে (সার্স) মৃত্যু হয়েছিল সব মিলিয়ে ৭৭৪ জনের। সার্স সে সময় ছড়িয়ে পড়েছিল বিশ্বের দুই ডজন দেশে; আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৮ হাজার ১০০ জনের কাছাকাছি।

ওদিকে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় কর্তব্যে অবহেলার কারণে বেশ কিছু সিনিয়র কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছেন হুবেই হেলথ কমিশনের পার্টি সেক্রেটারি ও কমিশনের প্রধান। এ ছাড়া পদ হারিয়েছেন আরো অনেক কর্মকর্তা।

করোনা ভাইরাস নিয়ে এ পর্যন্ত এটাই সবচেয়ে বড় পদের কোনো কর্মকর্তাকে সরিয়ে দেয়ার ঘটনা। সরিয়ে দেয়া হয়েছে রেডক্রসের উপ-পরিচালককে। তিনি দাতব্যকাজে ব্যবহারের দান পরিচালনায় কর্তব্যে অবহেলা করেছেন বলে এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি।

রাষ্ট্রীয় মিডিয়ার মতে, হুবেই ও অন্যান্য প্রদেশে শত শত মানুষকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। কারো বিরুদ্ধে তদন্ত করা হয়েছে। কাউকে সতর্ক করা হয়েছে। এসবই করা হয়েছে এই মহামারি চলাকালীন। শুধু যে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে এমন নয়। একই সঙ্গে ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি থেকে তাদেরকে শাস্তি দেয়া হয়েছে। এমন ঘটনার শিকার হয়েছেন রেডক্রসের উপপ্রধান ঝাং কিন। তাকে আন্তঃপার্টির তরফ থেকে সিরিয়াস সতর্কতা দেয়া হয়েছে। এ মাসের শুরুর দিকে উহানে পরিসংখ্যা ব্যুরোর উপপ্রধানকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। মুখের মাস্ক বিতরণে সংশ্লিষ্ট বিধি লঙ্ঘনের জন্য তার বিরুদ্ধে গুরুত্বর প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। উহানের হুয়াংগাংয়ের স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিশনের প্রধানকেও চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে করোনা ভাইরাস মোকাবিলা নিয়ে ক্রমবর্ধমান সমালোচনার মুখে রয়েছে চীন কর্তৃপক্ষ। যে চিকিৎসক প্রথম দিকে করোনা ভাইরাস ইস্যুতে সতর্কতা দিয়েছিলেন, কর্তৃপক্ষ তাকে চাপ প্রয়োগ করে নিষ্পেষণ করেছে। তার মৃত্যুতে জনগণের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

অন্যদিকে, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় এবার রোবট মোতায়েন করেছে চীন। দেশটির হুবেই প্রদেশের উহান শহরের প্রধান প্রধান হাসপাতালগুলোতে সাংহাই এন্টারপ্রাইজ দ্বারা নকশা করা ও উৎপাদিত ৩০টি রোবট মোতায়েন করা হয়েছে।

বর্তমানে আইসোলেশন ওয়ার্ড, আইসিইউ, নিয়ন্ত্রণ কক্ষ এবং উহান শহরের বড় বড় হাসপাতালগুলোতে রোগীদের বিভিন্ন সেবা দেওয়ার জন্য এই জাতীয় রোবটগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে। এই মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য দেশের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা খাতকে (এআই) প্রযুক্তি দিয়ে সহায়তা করার আহ্বান জানিয়েছে চীন সরকার।

গত বুধবার স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে ২১টি রোবট ও ১০টি স্বয়ংক্রিয় বেড অনুদান দিয়েছে চীনের সবচেয়ে বড় রোবট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সিয়াসুন। এছাড়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ এবং নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে জনসাধারণকে অবহিত করার জন্য সাংহাইয়ের রাস্তা ও পার্কগুলোতে টহল দেওয়া শুরু করেছে বেশ কয়েকটি রোবট।


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনাভাইরাসঃ সিঙ্গাপুরে আক্রান্ত এক বাংলাদেশির অবস্থা আশঙ্কাজনক

করোনাভাইরাসঃ সিঙ্গাপুরে আক্রান্ত এক বাংলাদেশির অবস্থা আশঙ্কাজনক


আবারও খালেদার জামিনের আবেদন, রোববার শুনানি

আবারও খালেদার জামিনের আবেদন, রোববার শুনানি


করোনাভাইরাসঃ মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়ালো

করোনাভাইরাসঃ মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়ালো


মুজিববর্ষ নিয়ে চাঁদাবাজি-বাড়াবাড়ি নয়ঃ ওবায়দুল কাদের

মুজিববর্ষ নিয়ে চাঁদাবাজি-বাড়াবাড়ি নয়ঃ ওবায়দুল কাদের


জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল মারা গেছেন

জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল মারা গেছেন


করোনাভাইরাসঃ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৭৩

করোনাভাইরাসঃ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৭৩


করোনাভাইরাসঃ বেড়েই চলেছে মৃত্যুর মিছিল, মৃতের সংখ্যা ১৭৭৫

করোনাভাইরাসঃ বেড়েই চলেছে মৃত্যুর মিছিল, মৃতের সংখ্যা ১৭৭৫


হুদার মামলা থেকে সিনহাকে অব্যাহতি

হুদার মামলা থেকে সিনহাকে অব্যাহতি


করোনাভাইরাসঃ সিঙ্গাপুরে পঞ্চম বাংলাদেশি আক্রান্তের খবর

করোনাভাইরাসঃ সিঙ্গাপুরে পঞ্চম বাংলাদেশি আক্রান্তের খবর


করোনাভাইরাসঃ বিস্তারে শঙ্কিত ডাব্লিউএইচও, ফ্রান্সে প্রথম একজনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসঃ বিস্তারে শঙ্কিত ডাব্লিউএইচও, ফ্রান্সে প্রথম একজনের মৃত্যু