Tuesday, August 16th, 2016
কর্ণফুলী তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ
August 16th, 2016 at 2:14 pm
কর্ণফুলী তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ

ঢাকা: চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর উভয়-পাড় ঘেঁষে তৈরি করা (সরকারি-বেসরকারি) দুই হাজার ১৮১টি অবৈধ স্থাপনা সরানোর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

রায় পাওয়ার সাত দিনের মধ্যে দুটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় স্থাপনা অপসারণ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার জন্য রায়ে বলা হয়েছে। আগামি ৯০ দিনের মধ্যে এসকল স্থাপনা সরানোর জন্য বলা হয়েছে।

আদালতের রায়ে বলা হয়, নৌবাহিনীর বা জেটিসহ সরকারি ছয়টি স্থাপনা সরানোর দরকার নেই। তবে পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে অনুমতি নিতে এবং অধিদপ্তর কর্তৃপক্ষ এই ছয় প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র সংক্রান্ত বিষয় সু-দৃষ্টিতে দেখবে।

আদালত তার রায়ে বলেন, দেশের নদীর তীরে কোনো ধরণের অবৈধ স্থাপনা করা যাবে না। একই সঙ্গে কর্নফুলী নদীর তীরে সরকারি-বেসরকারি সকল স্থাপনা সরানো নির্দেশ  দেয়া হয়েছে।

এ সংক্রান্ত রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে মঙ্গলবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রেজাউল হাসান ও বিচারপতি কাশেফা হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে মঙ্গলবার আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জহিরুল হক।

এর আগে গত সপ্তাহে এ বিষয়ে জারি করা রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে রায়ের জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন হাইকোর্ট।

কর্ণফুলী নদী সংরক্ষণের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন দায়ের করেন হিউম্যান রাইটস এন্ড পীস ফর বাংলাদেশের পক্ষে মনজিল মোরসেদ। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১০ সালের ১৮ জুলাই হাইকোর্ট কর্ণফুলী নদী সংরক্ষণ এবং নদী দখল করে গড়ে উঠা স্থাপনা অপসারণের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না এই মর্মে রুল জারি করেন।

এছাড়া নদীর তীর দখল করে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনার তালিকা আদালতে দাখিল করতে জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেয়া হয়। হাইকোর্টের নির্দেশের পর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি কর্ণফুলী নদীর নাব্যতা ও স্বাভাবিক গতিপ্রবাহ অব্যাহত রাখা এবং দূষণ রোধকল্পে নদীর ডান তীরবর্তী (হর প্রান্ত) এলাকা সীমানা তৈরি করে।

এছাড়া কমিটি বি.এস এবং আর.এস জরিপের ম্যাপ অনুযায়ী কর্ণফুলী নদীর অবস্থান, নদীর অংশে ভরাটকৃত জমি ও দখলদারদের অবস্থান পৃথক রং দ্বারা চিহ্নিত করে। গত বছরের ৮ নভেম্বর জেলা প্রশাসনের ওই তালিকা হাইকোর্টে দাখিল করা হয়।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/ফজলুল হক/মাহতাব শফি/সাইফুল


সর্বশেষ

আরও খবর

একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৯৪ জন হাসপাতালে ভর্তি

একদিনে রেকর্ড ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৯৪ জন হাসপাতালে ভর্তি


টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে অস্ট্রেলিয়া ঢাকায়

টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে অস্ট্রেলিয়া ঢাকায়


বিশ্বে একদিনে আরও ১০ হাজার মানুষের মৃত্যু

বিশ্বে একদিনে আরও ১০ হাজার মানুষের মৃত্যু


ভারতের উত্তর প্রদেশে ট্রাকের ধাক্কায় ১৮ বাসযাত্রী নিহত

ভারতের উত্তর প্রদেশে ট্রাকের ধাক্কায় ১৮ বাসযাত্রী নিহত


এবার এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা হবে ৩ বিষয়ে

এবার এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা হবে ৩ বিষয়ে


নির্দেশনা অমান্য করায় সোমবার গ্রেফতার ৫৬৬ জন

নির্দেশনা অমান্য করায় সোমবার গ্রেফতার ৫৬৬ জন


‘বিধিনিষেধে শিল্পকারখানাসহ কোনো প্রতিষ্ঠান খুললেই ব্যবস্থা’

‘বিধিনিষেধে শিল্পকারখানাসহ কোনো প্রতিষ্ঠান খুললেই ব্যবস্থা’


দেশে করোনায় আরও ২২৮ জনের মৃত্যু

দেশে করোনায় আরও ২২৮ জনের মৃত্যু


কঠোর লকডাউনের তৃতীয় দিনে রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৫৮৭ জন

কঠোর লকডাউনের তৃতীয় দিনে রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৫৮৭ জন


কঠোর বিধিনিষেধের প্রথম দিন ঢাকায় গ্রেফতার ৪০৩ জন

কঠোর বিধিনিষেধের প্রথম দিন ঢাকায় গ্রেফতার ৪০৩ জন