Thursday, October 20th, 2016
কাউন্সিলকে ঘিরে রাজধানীতে কঠোর নিরাপত্তা বলয়
October 20th, 2016 at 4:54 pm
কাউন্সিলকে ঘিরে রাজধানীতে কঠোর নিরাপত্তা বলয়

প্রীতম সাহা সুদীপ, ঢাকা: আওয়ামী লীগের ২০তম সম্মেলনের সব প্রস্তুতি এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। আর মাত্র একদিন পরই শুরু হবে ক্ষমতাসীন দলের দু’দিনের কাউন্সিল। যেখানে দেশের বাইরে থেকে আসা প্রায় ৫০০ কাউন্সিলর ও ডেলিগেট উপস্থিত থাকবেন। থাকবেন বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। আর তাই সম্মেলনকে ঘিরে পুরো রাজধানীতে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

‘উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলেছি দুর্বার, এখন সময় বাংলাদেশের মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার’ স্লোগানে ২২ ও ২৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

সম্মেলনের শৃঙ্খলা উপ-কমিটির সদস্যসচিব বাহাউদ্দিন নাসিম নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘এরইমধ্যে আমরা যাবতীয় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে ফেলেছি। অল্পকিছু কাজ বাকি আছে সেগুলো বৃহস্পতিবারের মধ্যেই শেষ করে ফেলা হবে।’

নিরাপত্তা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে পুরো সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও আশেপাশের এলাকা ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। উদ্যানের সব প্রবেশ পথে কঠোর নজরদারি থাকবে যাতে কেউ নাশকতার সুযোগ না পায়। আইনশৃংখলা বাহিনীর সঙ্গে দলের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবকরাও নিরাপত্তার বিষয়টি দেখবেন।’

কাউন্সিল শেষ না হওয়া পর্যন্ত সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও আশেপাশের এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্ব থাকবে পুলিশ। সোয়াত, র‍্যাব, গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), সাদা পোশাকের পুলিশ এবং আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে কঠোর নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হবে। সোহরাওয়ার্দীর মূল মঞ্চে প্রবেশের জন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের চার স্তরের নিরাপত্তা পার হয়ে যেতে হবে। মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশি চালানোর পাশাপাশি সেখানে অত্যাধুনিক কিছু প্রযুক্তি ব্যবহার করবে পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনীগুলো।

asadujjaman-khan

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘কাউন্সিলকে ঘিরে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নিরাপত্তা নিশ্চিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে শাহবাগ, টিএসসি, দোয়েল চত্ত্বর পর্যন্ত সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। তিনটি কন্ট্রোল রুম থেকে ফুটেজ মনিটরিং করা হবে। কারো গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। সম্মেলন স্থলে সাতটি গেটে আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে সার্চ করে সবাইকে প্রবেশ করানো হবে।’

তিনি বলেন, ‘সম্মেলনস্থলে ভিআইপি ছাড়া কোন গাড়ি প্রবেশ করবে না। ভিহিকেল মিরর সার্চ করে গাড়ি ভেতরে প্রবেশ করবে। প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীসহ ভিআইপিরা উদ্যানের শিখা চিরন্তনের গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করবেন। মূল প্যান্ডেল ও মঞ্চের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে এসএসএফ।’

bengir-ahmed

অন্যদিকে র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘সকল ধরণের আশঙ্কা মাথায় রেখেই আওয়ামী লীগের ২০তম কাউন্সিলে নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যা সম্মেলন শেষ হওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।’

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কাউন্সিল উপলক্ষে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। নিরাপত্তায় প্রায় দুই হাজার পুলিশের পাশাপাশি কাজ করছেন সাদা পোশাকে পুলিশ, র‍্যাব ও বিজিবির সদস্যরা।’

এদিকে দুই দিনের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে জনসাধারণের যাতায়াতের জন্য আলাদা রুট ম্যাপ তৈরি করেছে ডিএমপি। তাদের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কাউন্সিলের দুই দিন সকাল আটটা থেকে বিজয় সরণি হয়ে ভিআইপি রোডের গাড়িগুলো রূপসী বাংলা-শাহবাগ-টিএসসি হয়ে ডানে মোড় নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে প্রবেশ করবে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে না পৌঁছানো পর্যন্ত ভিআইপি রোডে অন্য গাড়ি প্রবেশ করতে পারবে না। উত্তরা হয়ে মহাখালী উড়ালসেতুতে চলাচলকারী গাড়িগুলো এই উড়ালসেতুর নিচ দিয়ে মহাখালী টার্মিনাল ধরে মগবাজার, কাকরাইল চার্চ, রাজমনি ক্রসিং, নাইটিঙ্গেল, ইউবিএল, জিরোপয়েন্ট, আবদুল গনি রোড, হাইকোর্ট ক্রসিং ও দোয়েল চত্বর দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করবে।

shabag

এদিকে মাওয়া থেকে রাজধানীতে প্রবেশকারী গাড়িগুলো সদরঘাট থেকে বাবুবাজার, গুলিস্তান জিরোপয়েন্ট, আবদুল গনি রোড, পুরনো হাইকোর্ট ক্রসিং, দোয়েল চত্বর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে গন্তব্যস্থলে যাবে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম বিভাগ, সিলেট অঞ্চল থেকে কাঁচপুর ও যাত্রাবাড়ী হয়ে আসা গাড়িগুলো মেয়র হানিফ উড়ালসেতু হয়ে চানখাঁরপুল, দোয়েল চত্বর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিয়ে গন্তব্যস্থলে যাবে। প্রধানমন্ত্রী সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রবেশ করার পর ভিআইপি রোড (হেয়ার রোড-রূপসী বাংলা-সোনারগাঁও-বিজয় সরণি) স্বাভাবিক থাকবে। প্রধানমন্ত্রী সম্মেলনস্থল ত্যাগ করার সম্ভাব্য দুই ঘণ্টা আগে মৎস্য ভবন, কাকরাইল চার্চ থেকে বিজয় সরণি পর্যন্ত সড়কে ডাইভারশন চলবে। এ সময় কদম ফোয়ারা দিয়ে গাড়িগুলো ইউবিএল, নাইটিঙ্গেল, কাকরাইল চার্চ হয়ে মগবাজার দিয়ে মহাখালী যেতে পারবে।

police

এদিকে গাবতলী, মিরপুর, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি থেকে আসা গাড়িগুলো মিরপুর রোড দিয়ে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ, রাসেল স্কয়ার, সায়েন্স ল্যাব ক্রসিং, নিউমার্কেট ক্রসিং, নীলক্ষেত ক্রসিং, আজিমপুর ক্রসিং, পলাশী ক্রসিং দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

২২ ও ২৩ অক্টোবর সকাল সাতটা থেকে ডাইভারশন শুরু হবে। এ জন্য মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ থেকে ফার্মগেট অভিমুখে কোনো গাড়ি আসবে না এবং রাসেল স্কয়ার থেকে পান্থপথ অভিমুখে কোনো গাড়ি যাবে না। সব গাড়ি সায়েন্স ল্যাবরেটরি, নিউমার্কেট, আজিমপুর, পলাশী হয়ে জগন্নাথ হল ক্রসিং দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার পার্কিংয়ে প্রবেশ করবে অথবা নিউমার্কেট হয়ে নীলক্ষেতে, ফুলার রোড দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করবে। কাঁটাবন থেকে কোনো গাড়ি শাহবাগের দিকে আসবে না। কাঁটাবন থেকে ডানে মোড় নিয়ে নীলক্ষেত ক্রসিং হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশ করবে।

সম্পাদনা: সজিব ঘোষ


সর্বশেষ

আরও খবর

খালেদা জিয়ার বিদেশে যাওয়া নিয়ে আইনি দিক খতিয়ে দেখছে বিএনপি

খালেদা জিয়ার বিদেশে যাওয়া নিয়ে আইনি দিক খতিয়ে দেখছে বিএনপি


চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে পারছেন না খালেদা জিয়া: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে পারছেন না খালেদা জিয়া: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


প্রধানমন্ত্রীপরিচয়ে তাজউদ্দীন ইন্দিরার সমর্থন আদায় করেন যেভাবে!

প্রধানমন্ত্রীপরিচয়ে তাজউদ্দীন ইন্দিরার সমর্থন আদায় করেন যেভাবে!


লকডাউনের নামে সরকার ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে: ফখরুল

লকডাউনের নামে সরকার ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে: ফখরুল


বিদেশি অতিথিদের স্বাগত জানাতে গিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মারামারি

বিদেশি অতিথিদের স্বাগত জানাতে গিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মারামারি


প্রকৃতির নিয়ম রেখেছিল ঢেকে রাতের কালো, বিধাতার ডাকে বঙ্গবন্ধু এলো

প্রকৃতির নিয়ম রেখেছিল ঢেকে রাতের কালো, বিধাতার ডাকে বঙ্গবন্ধু এলো


দক্ষ লেখক, রাজনীতিক; ক্ষমতার দাবা খেলোয়াড়ের মৃত্যু

দক্ষ লেখক, রাজনীতিক; ক্ষমতার দাবা খেলোয়াড়ের মৃত্যু


মারা গেলেন মওদুদ আহমদ, রাষ্ট্রপতির শোক

মারা গেলেন মওদুদ আহমদ, রাষ্ট্রপতির শোক


যুবলীগের এক নেতাকে কোপাল আরেক যুবলীগে নেতা

যুবলীগের এক নেতাকে কোপাল আরেক যুবলীগে নেতা