Wednesday, June 29th, 2022
কি থাকে বাঘের খাদ্য তালিকায়
October 3rd, 2016 at 7:02 pm
কি থাকে বাঘের খাদ্য তালিকায়

ফারহানা করিম চৌধুরী: বাঘ কি শুধু হরিণ খায়? সুন্দরবনের বাঘের কথা ভাবলে এমনটিই অনেকের মনে হতে পারে। কিন্তু না। বাঘ হাতিও খায়। খায় কাঁকড়া, ব্যাঙ, পাখি, মাছ।

বাঘ আমাদের জাতীয় প্রাণী। অথচ এই বাঘের খাদ্যাভ্যাস সম্পর্কে আমরা কতটুকুইবা জানি। বাঘ মূলত মাংসাশী প্রাণী। বিশ্বের বিস্ময়কর বৃহৎ বিড়াল গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এই প্রাণীটির খাদ্যতালিকা মোটামুটি দীর্ঘ।

সাধারণত শিকার করা প্রাণীর মাংস, চর্বি থেকে প্রয়োজনীয় আমিষ পেয়ে থাকে বাঘ, যা তাদের দৈনন্দিন কার্যক্রমে সহায়তা করে। অবশ্য কোন প্রাণীর মাংসের প্রতি বাঘের পক্ষপাত আছে কি না এটা বলা কঠিন। সাধারণত বাঘ যা শিকার করে তাই খায়। তাদের খাদ্য তালিকায় রয়েছে বন্য শুকর, ভালুক, বুনো গরু, হরিণ, অ্যান্টিলোপ (বিশেষ এক ধরনের হরিণ) ও দুর্বল বা বাচ্চা হাতি। অবশ্য বড় শিকার পাওয়া না গেলে, কাঁকড়া, ব্যাঙ, পাখি, মাছ দিয়েই তাদের আহার সাড়ে এই বড় বিড়াল।  

tiger-fishing

বিশ্বের অন্যতম এই হিংস্র প্রাণীটি একই সঙ্গে ক্ষিপ্রও। এদের গতিবেগ ঘন্টায় ৫০ মাইলের বেশি এবং যেকোন প্রাণীর উপর ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে। বাঘ যাকে টার্গেট করে তাকে নিবিড়ভাবে অনুসরণ করে। কেউ যদি ভাবে প্রচন্ড জোরে দৌড়ে নিজেকে রক্ষা করবে তাহলে তা ভুল প্রমাণিত হবে। কেবলমাত্র জঙ্গলের সবচেয়ে উঁচু গাছের মগডালে যদি ওঠতে পারেন তাহলে হয়তো বাঁচা যাবে। এছাড়া বাঘের কবল থেকে রক্ষার আর কোন উপায় নেই।

বাঘ মাংসাশী প্রাণী। তবে বিভিন্ন অঞ্চলের বাঘের খাদ্য তালিকা বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে শিকারী প্রাণীর সহজলভ্যতার উপর নির্ভর করে তাদের খাদ্যাভ্যাস।

সাইবেরিয়ার বাঘ: সচরাচর এই প্রজাতির বাঘের খাদ্য তালিকায় শতকরা ৫০ ভাগই বুনো শূকরের মাংস। যদি বুনো শূকরের দেখা না মেলে তাহলে এলক (বিশেষ এক ধরনের হরিণ), হরিণ, লিনক্স  (একধরনের বনবিড়াল) এবং কখনো কখনো ভালুক শিকার করে তারা। তবে বড় কোন প্রাণী না পেলে বাধ্য হয়ে এই প্রজাতির বাঘ খরগোশ, মাছ এবং বীবর (উভচর জন্তুবিশেষ) খেয়ে থাকে।

সাদা বাঘ: বিশ্বের সবচেয়ে সেরা শিকারির তকমা সাদা বাঘকে দেয়া যেতে পারে।পশ্চিমবঙ্গ,বিহার ও আসামে এই বাঘের বাস ।তাদের সম্ভাব্য শিকার যদি বাঁচার জন্য পানিতে নামে তাহলেও সাদা বাঘ তাদের অনুসরণ করবে। এই প্রজাতির বাঘ বানর, বন্য গরু, হরিণ এবং পাখি খায়।  

সুমাত্রার বাঘ: বিপন্ন প্রজাতির বাঘ হিসেবে এই বিশেষ প্রজাতির সম্পর্কে খুব বেশি জানা যায় না। ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপে এই বাঘের বাস। বর্তমানে এদের সংখ্যা চারশো’র কম। ধারণা করা হয়, স্থানীয় পাখি, মাছ এবং বানরের উপর নির্ভর করে এরা জীবন ধারণ করে। এরা গাছে ওঠায় দক্ষ নয়। ফলে যেসব প্রাণী ভূমির কাছাকাছি নেমে আসে তাদের শিকার করে এরা।  

রয়েল বেঙ্গল: ভারত এবং বাংলাদেশের জাতীয় প্রাণী রয়েল বেঙ্গল টাইগার (বাঘ)। এরা গৃহপালিত প্রাণীও শিকার করে। এছাড়া এরা সাধারণত হরিণ, বুনো শূকর এবং পাখি শিকার করে। এরা প্রতিদিন খাবার খায় না। অর্থাৎ ভরপেট থাকলে প্রতিদিন শিকার করে না। সুতরাং যখনই খাবার খায় তখন একদম পেট ভরে আহার করে।

মালয় বাঘ: এই প্রজাতির বাঘ তাদের শিকারের আওতায় যেকোন প্রাণীকে নামিয়ে আনার ক্ষমতা রাখে। এরা বুনো শূকর, বাচ্চা হাতি এবং সান বিয়ার (দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ক্রান্তীয় বনভূমিতে বাস করা ভালুক) শিকার করে। এরা অত্যন্ত দক্ষ শিকারী।  

বিড়াল পরিবারে সবচেয়ে বড় প্রাণী বাঘ। পূর্ণ বয়স্ক একটি বাঘের ওজন ৫০০ পাউন্ডের বেশি হয়। এশিয়া মহাদেশজুড়ে বাঘের বসবাস। তবে চীন, ভারত, সাইবেরিয়ায় বাঘের দেখা বেশি পাওয়া যায়। বাঘ বিশ্বের শিকারী প্রাণীদের অন্যতম। এরা সিংহের মতো দলবদ্ধ হয়ে শিকার করার চেয়ে একাকী শিকার করতে ভালবাসে। কিন্তু শিকারের ভাগ পরিবারের অপর সদস্যদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নেয়। এতে প্রমাণিত হয়, তারা নিজেদের স্বজনদের ব্যাপারে যত্নশীল।

বাঘের ৬টি উপ প্রজাতির মধ্যে মাত্র ৪টি বেঁচে আছে এবং প্রতিটিই বিপন্ন প্রজাতির তালিকাভুক্ত। বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞের ধারণা, আগামী ৫০ বছর পর্যন্ত সুন্দর এই প্রাণী পৃথিবীর বুকে টিকে থাকতে পারবে না।

সম্পাদনা: খান, প্রকাশ:তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার