Wednesday, October 5th, 2016
‘খাদিজা যখন মৃত্যুপথে, আমরা তখন শিক্ষক দিবস পালন করছি’
October 5th, 2016 at 9:14 pm
‘খাদিজা যখন মৃত্যুপথে, আমরা তখন শিক্ষক দিবস পালন করছি’

মিশুক মনির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: ‘যখন আমাদের ছাত্রী খাদিজা দুর্বৃত্তের চাপাতির আঘাতে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে, তখন আমরা শিক্ষক দিবস পালন করছি। কি লাভ এই  শিক্ষক দিবস পালন করে! ইভ টিজিংয়ের বিচার হলে আজকে খাদিজার এমন অবস্থা হতো?’

বুধবার সাড়ে ১২ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তনে ‘বিশ্ব শিক্ষক দিবস-২০১৬’ উপলক্ষে ‘শিক্ষকের মূল্যায়ন, মর্যাদার উন্নয়ন শীর্ষক’ এক অনুষ্ঠানে রাশেদা কে চৌধুরী এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে কেউ লাঞ্চিত হলে তা মনিটরিংয়ের জন্য শিক্ষা মন্ত্রনালয়কে দায়িত্ব নিতে বলেন। এছাড়াও ইভটিজিং রোধে শিক্ষা মন্ত্রনালয়কে তিনি ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান।

এর আগে বেলা ১১ টা থেকে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল কলেজ থেকে বুকে স্লোগান লেখা সাদা টি-শার্ট ও মাথায় ক্যাপ পড়ে শিক্ষার্থীরা টিএসসিতে জড়ো হতে থাকে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে চারজন শিক্ষকের হাতে সম্মান সূচক স্মারক তুলে দেওয়া হয়। তারা হলেন- অধ্যাপক রেহমান সোবহান, ড. মনসুর আহমেদ, নুরূল আলম, জয়নাল আবেদিন চৌধুরী।

 প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘নতুন প্রজন্মকে আধুনিক বাংলাদেশের নির্মাতা হতে হবে। শিক্ষা, প্রযুক্তিসহ সব ক্ষেত্রে দক্ষতা অর্জনে সমানভাবে এ প্রজন্মকে গড়ে তুলতে হবে। আমাদের শিক্ষার মূল লক্ষ্য হচ্ছে নতুন প্রজন্মকে শিক্ষিত করে গড়ে তোলা। শুধু শিক্ষিত হলেই চলবে না। শিক্ষার্থীদের ন্যায় পরায়ণ ও মানুষের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। সর্বোপরি ভাল মনের মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। আর শিক্ষার্থীদের ভাল মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব পালন করেন আমাদের শিক্ষকরা।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘সরকার শিক্ষকদের সব সুবিধা নিশ্চিত করবে যাতে তারা আমাদের নতুন প্রজন্মকে গড়ে তুলতে পারে। তারা শিক্ষার্থীদেরকে রাজনীতি, অর্থনীতি, জ্ঞান-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ করে তুলবেন। এভাবেই আমরা শিক্ষকদের সহযোগিতার মাধ্যমে উন্নত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারব।জাতি শিক্ষিত হলেই ২০২১ সালের মধ্যেই আমরা বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে পারব।’

সে জন্য তরুণদেরকে ভাল করে গড়ে তোলার জন্য শিক্ষকদেরকে নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘এখন সরকার শিক্ষকদের জীবন মান উন্নয়নে বেতন বাড়িয়েছে।এখন শিক্ষকরা মর্যাদার আসনে আসীন। সরকার শিক্ষকদেরকে মর্যাদা ও সম্মান দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।’

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘বিশ্ব শিক্ষক দিবস সকল শিক্ষকদের জন্য একটা সম্মানের দিন।আমাদের দেশ সব সময়ই শিক্ষকদের মর্যাদা দিয়ে আসছে। দেশের অগ্রগতির মূল হলো প্রাথমিক শিক্ষা।জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের নেতৃত্বে প্রাথমিক শিক্ষা আন্দোলনের শুরু হয়েছে। কুদরত-ই-খুদা শিক্ষা কমিশন প্রাথমিক শিক্ষার প্রসার ঘটিয়েছে। আমরা যদি শিক্ষকদের মূল্যায়ন না করি শিক্ষকরা মানুষ গড়বে কিভাবে?’

কাজী ফারুক আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ইউনেস্কোর ঢাকা অফিসের প্রতিনিধি বেয়াট্রিস কালদুম, ড. রেহমান সোবহান, নুরুল আলম প্রমুখ।

সম্পাদনা: তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু


শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০

ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০


দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২

দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


ছিনতাইকারীর টানে রিকশা থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু

ছিনতাইকারীর টানে রিকশা থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু


করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২

করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি