Monday, August 8th, 2016
কেমন হবে সোনামনির ঘর
August 8th, 2016 at 3:25 pm
কেমন হবে সোনামনির ঘর

ডেস্ক: চোখের সামনে ধীরে ধীরে বেড়ে উঠছে আপনার আদরের সোনামনি। বিকশিত হচ্ছে তার চিন্তা- ভাবনা, বদলে যাচ্ছে তার বলবার ধরন ও শোনবার ভঙ্গিমা। হঠাৎ করেই রাতে টয়লেটে যেতে মা-বাবাকে আর বিরক্ত করা বন্ধ করে দিয়েছে সেদিনের ক্ষুদে বীর, একা থাকবার ভয়টাও কেটে গেছে পুরোদমে। এমন সময়ে বাড়ন্ত শিশুর জন্য পরিবারের সকলেই ভাবছেন আলাদা ঘরের কথা। সেটাকে সাজিয়ে গুছিয়ে তুলতেও চিন্তার শেষ নেই বাবা-মায়ের। সন্তানের থাকবার ঘরটিতে আরাম এবং সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করা জরুরি বলেই মনে করেন অনেক বাবা মা।

আপনার শিশুর ঘরের সর্বোচ্চ সুরক্ষা নিশ্চিত করে সেটিকে একটি আনন্দময় পরিবেশে রূপান্তর করবার কিছু আইডিয়া নিয়ে সাজানো হলো আমাদের আজকের আয়োজন।

শিশুর ঘর সাজাবার সময় খেয়াল রাখতে হবে ঘরটি কোনো বয়সী শিশুর জন্য। তার শোবার খাটটি যেন অবশ্যই বেশি উঁচু না হয়। তাতে পড়ে গিয়ে ব্যথা পেতে পারে। স্কুলগামী শিশুর জন্য তার ঘরে অবশ্য প্রয়োজনীয় কিছু জিনিস রাখতে হবে। যেমন শিশুর পড়ার টেবিল, পোশাক রাখবার জন্য ওয়্যারড্রব, টেবিল ল্যাম্প, ময়লা ফেলবার ঝুড়ি, তার খেলনা রাখবার জন্য শেলফ এবং একটি বুকশেলফ।
আসবাবপত্রগুলো রঙ্গীন হলে শিশুর মন থাকবে রঙ্গীন। শিশুর ঘরের আসবাবপত্রের রঙ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন সবুজ, গোলাপী বা হালকা কমলা রঙ। তবে উৎকট রঙ নষ্ট করতে পারে চোখের আরাম। শিশুর ঘরের আসবাবপত্র গুলো যেন ভারি না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখা জরুরি।

শিশুর ঘরের দেয়াল হতে পারে তার স্বপ্নের প্রতিবিম্ব। দেয়ালে বিদেশী কার্টুন চরিত্র, টিভি সিরিয়ালের হিরোর ছবি বা পোস্টার লাগাবার কথা অনেকেই বলেন। তবে আমরা ভাবছি একটু অন্যভাবে। আপনার শিশু তার দেশীয় সংস্কৃতি জেনে বড় হলে, তার মনও বেড়ে উঠবে আরো সুন্দর মানবিক বলয়ে।

আপনার শিশুর ঘরের দেয়ালে ফুটে উঠতে পারে দেশের পতাকা বা মানচিত্র, মীনা বা রাজুর ছবি অথবা দেশীয় নৌকা, বিভিন্ন গ্রামীণ সংস্কৃতির ছবি থাকতে পারে। ধীরে ধীরে সে নিজের গরজেই চিনে নেবে সব কিছু। থাকতে পারে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার কোনো ন্যাশনাল হিরোর ছবিও। একটু মজার করে সেগুলো আঁকা থাকতে পারে তার ঘরময়। শিশুর নিজের আঁকা কোনো ছবি অথবা নিজের বানানো কোনো জিনিস দিয়েও সাজানো যেতে পারে তার ঘর।

ঘরের সাথে কোনো লাগোয়া বারান্দা থাকলে সেখানে কিছু ছোট গাছ লাগাতে পারেন। প্রতিদিন পানি দেয়া বা গাছের যত্ন নেবার কাজটি শিশু নিজে হাতেই করতে পারে। তাতে এই যান্ত্রিক শহরে কিছুটা মাটির স্পর্শে থাকবে আপনার সন্তান।

এছাড়াও শিশুর বুকশেলফে রাখতে পারেন কিছু শিক্ষামূলক গল্পের বই। যেসব বাচ্চারা এখনো পড়তে শেখেনি তাদের জন্য রাখতে পারেন নানান রকম ছবির বই। নির্দিষ্ট বয়সের আগে প্রযুক্তি-কেন্দ্রিক যন্ত্রগুলো আপনার শিশুর ঘর থেকে দূরে রাখুন। তাতে তার মেধা-মনন থাকবে সুস্থ।

শিশুর ঘরে যাতে যথেষ্ট আলো-বাতাস চলাচল করতে পারে সে বিষয়েও হতে হবে সচেতন। রাতেও ঘর আলো ঝলমলে রাখতে লাগাতে পারেন হাই পাওয়ারের লাইট।

এছাড়াও রাতে শোবার সময়ের জন্য হালকা আলোর বাল্ব রাখতে হবে। রাতে ঘুমাবার আগে ঘরের দরজা ঠিক মতো খুলে রাখা আছে কিনা দেখে নিন। তাতে করে যেকোনো প্রয়োজনেই ঘরের অন্যদেরকে সহজে খুঁজে পাবে শিশুটি।  আপনার শিশুর ঘরে বয়ে যাক খুশি আর আনন্দের স্রোত।

নিউনেক্সটবিডিডটকম/এসএনডি/এসকেএস/জাই


সর্বশেষ

আরও খবর

বড়দিনের আনন্দ আয়োজন: উদ্যোক্তা হাট ২০২০

বড়দিনের আনন্দ আয়োজন: উদ্যোক্তা হাট ২০২০


সৌন্দর্যসেবায় আয় কমেছে সবার: বেকার ৪০ শতাংশ উদ্যোক্তা-কর্মী

সৌন্দর্যসেবায় আয় কমেছে সবার: বেকার ৪০ শতাংশ উদ্যোক্তা-কর্মী


নতুন মোটরসাইকেল পাচ্ছেন ভাইরাল ফারহানা!

নতুন মোটরসাইকেল পাচ্ছেন ভাইরাল ফারহানা!


নিউ নরমাল: শহরজুড়ে শ্রাবণ ধারা

নিউ নরমাল: শহরজুড়ে শ্রাবণ ধারা


মুক্তচিন্তা প্রকাশের ভীতি কাটাবে লিট ফেস্ট!

মুক্তচিন্তা প্রকাশের ভীতি কাটাবে লিট ফেস্ট!


ঐতিহ্যকে লালন করছে দোয়েল চত্ত্বরের শো-পিস মার্কেট

ঐতিহ্যকে লালন করছে দোয়েল চত্ত্বরের শো-পিস মার্কেট


জেনে নিন কলার গুণাগুণ

জেনে নিন কলার গুণাগুণ


জেনে নিন কিডনি সুস্থ রাখার ৫ উপায়

জেনে নিন কিডনি সুস্থ রাখার ৫ উপায়


রোজাদারদের জন্য কিছু পরামর্শ

রোজাদারদের জন্য কিছু পরামর্শ


নতুন ঢাকাতেও জনপ্রিয় বাকরখানি

নতুন ঢাকাতেও জনপ্রিয় বাকরখানি