Sunday, July 24th, 2016
 ‘কেলোর কীর্তি’ প্রদর্শনে নিষেধাজ্ঞা খারিজ
July 24th, 2016 at 11:23 am
 ‘কেলোর কীর্তি’ প্রদর্শনে নিষেধাজ্ঞা খারিজ

ঢাকা: ভারতের কলকাতায় নির্মিত কমেডি সিনেমা ‘কেলোর কীর্তি’ বাংলাদেশে প্রদর্শনে হাইকোর্টের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। ফলে এ সিনেমা বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনে আর কোনো বাধা রইল না।

রোববার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একরামুল হক টুটুল।

একরামুল হক টুটুল বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ আপিল বিভাগে স্থগিত হয়ে যাওয়ায় ‘কেলোর কীর্তি’ সিনেমাটি বাংলাদেশে প্রদর্শনে আর কোনো বাধা নেই।’

নীতিমালা অনুসরণ না করে আমদানি করা ‘কেলোর কীর্তি’ বাংলাদেশে প্রদর্শনের নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১৯ জুলাই হাইকোর্ট এ সিনেমা প্রদর্শনে ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেন। পাশাপাশি এ সিনেমা প্রদর্শন করা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে চার সপ্তাহের রুল জারি করেন।

এ আদেশ স্থগিত চেয়ে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান আরাধনা এন্টারপ্রাইজ ও রাষ্ট্রপক্ষ আপিল বিভাগে আবেদন করে। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে দেন।

kelor-kirti

কলকাতার পরিচালক রাজা চন্দ পরিচালিত ‘কেলোর কীর্তি’ সিনেমাটি গত ঈদুল ফিতরে ভারতে মুক্তি পায়। এ সিনেমায় অভিনয় করেন দেব, মিমি চক্রবর্তী, যীশু সেনগুপ্ত, অঙ্কুশ হাজরা, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, নুসরাত জাহান, কৌশানী মুখোপাধ্যায়, রুদ্রনীল ঘোষ প্রমুখ। এটি তামিল ‘চার্লি চ্যাপলিন’ চলচ্চিত্রের অনুকরণে বানানো হয়েছে।

গত ১৯ জুন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আরাধনা এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের প্রযোজক কার্তিক দে বাংলাদেশ থেকে ‘রাজা ৪২০’ ছবি ভারতে রফতানি করার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ‘নো অবজেকশন’ সনদ গ্রহণ করেন। কিন্তু এ ছবি ভারতে প্রদর্শন করা হয়েছে এ ধরনের কোনো সনদ ভারত সরকার থেকে দেওয়া হয়নি।

এর মাত্র তিনদিন পর ২২ জুন বাংলাদেশে ভারতীয় ছবি ‘কেলোর কীর্তি’ প্রদর্শনের জন্য আমদানি করা হয়। ২২ জুলাই বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে ‘কেলোর কীর্তি’ মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা ছিল আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান আরাধনা এন্টারপ্রাইজের।

রিট আবেদনে দাবি করা হয়েছিল, বাংলাদেশের ছবি আমদানি ও রফতানির ক্ষেত্রে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নীতিমালা ২০১৫-২০১৮ অনুযায়ী, বাংলাদেশে ভারতীয় ছবি আমদানি করতে হলে সমান সংখ্যক ছবি রফতানি হতে হবে। তবে এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ থেকে প্রথমে ছবি রফতানি করার পর আমদানি করতে হবে।

এ ছাড়া বাংলাদেশ থেকে প্রথমে কোনো ছবি রফতানি হওয়ার পর ভারতের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে এটি প্রদর্শন হতে হবে। বাংলাদেশের ছবি প্রদর্শিত হয়েছে মর্মে ভারতের সেন্সর বোর্ড ও ফিল্ম বোর্ডের লিখিত সনদ পাওয়ার পর বাংলাদেশে ভারতীয় ছবি আমদানি ও প্রদর্শন করা যাবে। কিন্তু ‘কেলোর কীর্তি’ সিনেমাটির ক্ষেত্রে এ নীতিমালা অনুসরণ করা হয়নি।

নীতিমালা অনুসরণ না করায় সিনেমাটি প্রদর্শন বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে গত ১৮ জুলাই এসএফ ফিল্মসের প্রযোজক শরীফ হোসেনের পক্ষে এ রিট আবেদনটি করা হয়।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/ওয়াইএ/এসআই


সর্বশেষ

আরও খবর

সিঙ্গাপুরে আইসিইউতে অভিনেতা ফারুক

সিঙ্গাপুরে আইসিইউতে অভিনেতা ফারুক


জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে ধাপ্পার অভিযোগ ভারতীয় লেখকের!

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে ধাপ্পার অভিযোগ ভারতীয় লেখকের!


নতুন মৌলিক গান “তুমি হারালে কোথায়?”

নতুন মৌলিক গান “তুমি হারালে কোথায়?”


করোনায় আক্রান্ত তাহসান

করোনায় আক্রান্ত তাহসান


মুজিববর্র্ষে লন্ডনে জয় বাংলা ব্যান্ডের রঙ্গিন ভালবাসা

মুজিববর্র্ষে লন্ডনে জয় বাংলা ব্যান্ডের রঙ্গিন ভালবাসা


গ্রেপ্তার হলেন বলিউড অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী

গ্রেপ্তার হলেন বলিউড অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী


সপরিবারে কোয়ারেন্টাইনে দেব

সপরিবারে কোয়ারেন্টাইনে দেব


বিটিভিতে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘বাংলার মুখ’

বিটিভিতে ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘বাংলার মুখ’


হুট করেই বিয়ে পরীমনির, ৫ মাসেই ভাঙল সংসার!

হুট করেই বিয়ে পরীমনির, ৫ মাসেই ভাঙল সংসার!


এফডিসিতে ৫ গরু কোরবানি দিচ্ছেন পরীমনি

এফডিসিতে ৫ গরু কোরবানি দিচ্ছেন পরীমনি