Tuesday, September 27th, 2016
কে জানতো টুঙ্গিপাড়ার এই মেয়েটি হবে দেশের প্রধানমন্ত্রী
September 27th, 2016 at 11:14 pm
কে জানতো টুঙ্গিপাড়ার এই মেয়েটি হবে দেশের প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা: গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম নেয় শিশু হাসু। ছোট্ট হাসুর পুরো দুনিয়াটা ছিল শুধু মা, দাদা আর দাদী। এরপর তার সঙ্গি হয় ছোট ভাই কামাল। গ্রামের অন্য ছেলে মেয়েদের মতই কাটে তার জীবন।

তখন স্বাভাবিক ভাবেই হাসু বুঝতো না দেশ কি? রাষ্ট্র কি? সরকার কি? কি ই বা রাজনীতি? বিবাহিত জীবনের আনন্দঘন মুহূর্তে একমাত্র বোনকে ছাড়া পরিবারের সবাইকে হারিয়েও কি সে বুঝেছিল তিনি একটি রাষ্ট্র চালাবেন। হবেন প্রধানমন্ত্রী? হবেন বিশ্বের ক্ষমতাসীন নারীদের একজন? হয়তো তিনি কোনদিন ভাবেনও নি।

বলছি আমাদের দেশের গর্ব, সংগ্রামী নারী এবং ৩য় বিশ্বের নারী নেতৃত্বের মডেল আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর)  তার ৭০তম শুভ জন্মদিন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম ফজিলাতুন্নেছার জৈষ্ট কন্যা শেখ হাসিনা। ছোট বেলায় তার ডাক নাম ছিল হাচু। বাবা শেখ মুজিব আদর করে এ নামে ডাকতেন।

১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর মধুমতি নদী বিধৌত গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গীপাড়ায় তার জন্ম। বাবা ঢাকায় থাকার কারণে ছোট বেলা শেখ লুৎফর রহমান এবং সাহেরা খাতুনের কোলে-পিঠে বড় হোন শেখ হাসিনা।

পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে শেখ হাসিনা সবার বড়। কনিষ্ঠদের মধ্যে শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রেহানা এবং শেখ রাসেল।

index

শিক্ষা জীবন

শেখ হাসিনার শিক্ষাজীবন শুরু হয় টুঙ্গীপাড়ার এক পাঠশালায়। এরপর ১৯৫৪ সালে ঢাকায় এসে ১৯৫৬ সালে টিকাটুলির নারীশিক্ষা মন্দির বালিকা বিদ্যালয়ে হোন।

১৯৬৫ সালে শেখ হাসিনা আজিমপুর বালিকা বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। ১৯৬৭ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন ঢাকার বকশী বাজারের পূর্বতন ইন্টারমিডিয়েট গভর্নমেন্ট গার্লস কলেজ (বর্তমান বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা মহাবিদ্যালয়) থেকে। সে বছরই ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। কলেজে অধ্যয়নকালে তিনি কলেজ ছাত্রী সংসদের সহ-সভানেত্রী পদে নির্বাচিত হন।

বিয়ে

১৯৬৮ সালে শেখ মুজিব আগরতলা মামলায় কারাবন্দি থাকাকালে পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়ার সাথে শেখ হাসিনার বিয়ে হয়। শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় এবং মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল।

রাজনৈতিক জীবনে পদার্পন ও দলের সভাপতি হওয়া

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শেখ হাসিনা পরবিার হারানোর পর ১৯৮১ সালের ১৭ মে দীর্ঘ বছর পর দেশে ফিরে আসেন। ওই বছরের ১৩-১৫ ফেব্রুয়ারি আওয়ামী লীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে তাকে দলের সভাপতি নির্বাচিত করা হয় তার অনুপস্থিতিতে।

বিরোধী দলীয় নেতা

১৯৮৬ সালের সাধারণ নির্বাচনে তিনি তিনটি আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং বিরোধী দলীয় নেতা হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এবং ১৯৯১ সালের নির্বাচনে শেখ হাসিনা পঞ্চম জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা নির্বাচিত হন।

প্রধানমন্ত্রী হওয়া

১৯৯৬ সালের ১২ জুনের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জয় লাভ করলে ২৩ জুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহন করেন। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকাকালীন ভারতের সাথে গঙ্গার পানি বণ্টন চুক্তি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি সম্পাদিত হয়।

২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয় নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ের মাধ্যমে ২০০৯ সালের ছয় জানুয়ারি দ্বিতীয়বারের মতো দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন শেখ হাসিনা। আর ২০১৪ সালের পাঁচ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয় লাভের মাধ্যমে তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশ পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

১৯ বার হত্যা চেষ্টা

শেখ হাসিনাকে মোট ১৯ বার হত্যা চেষ্টা করা হয়। এর মধ্যে মবচেয়ে মারাত্মক হামলা হয় ২০০৪ সালের একুশে আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে। সেদিন গ্রেনেড হামলায় শেখ হাসিনা গুরুতরভাবে আহত হলেও অলৌকিকভাবে প্রাণে বেঁচে যান। তবে এই হামলায় মহিলা লীগ সভাপতি আইভি রহমানসহ ২৪ জন নেতা-কর্মী নিহত হন।

জেল জীবন

২০০৭ সালের ১৬ জুলাই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় শেখ হাসিনাকে গ্রেফতার করা হয়। জাতীয় সংসদ এলাকায় একটি অস্থায়ী কারাগারে তিনি ছিলেন। এক বছর পর ১১ জুন ২০০৮ সালে তাকে মুক্তি দেয়া হয়।

একজন সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে তার অবদান আজ আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। ইতিমধ্যে তিনি শান্তি, গণতন্ত্র, স্বাস্থ্য ও শিশু মৃত্যুর হার হ্রাস, তথ্য-প্রযুক্তির ব্যবহার, দারিদ্র্য বিমোচন, উন্নয়ন এবং দেশে দেশে জাতিতে জাতিতে সৌভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার জন্য ভূষিত হয়েছেন মর্যাদাপূর্ণ অসংখ্য পদক ও পুরস্কারে। তিনি মোট ২৯টি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার পেয়েছেন।

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে বাদ জোহর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদসহ দেশের বিভিন্ন মসজিদে মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিকেল তিনটায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল ১০টায় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে এবং প্যাগোডা, গির্জাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় উপসনালয়ে বিশেষ প্রার্থণা সভা অনুষ্ঠিত হবে। আওয়ামী লীগ বিভিন্ন এতিমখানাসহ দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করবে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সভাপতি শেখ হাসিনার ৭০তম শুভ জন্মদিন পালন করার জন্য আওয়ামী লীগের সকল শাখা, সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের সর্বস্তরের নেতা-কর্মী-সমর্থক-শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

প্রতিবেদন: ইয়াসিন রানা, সম্পাদনা: সজিব ঘোষ


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে


গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী


২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫

২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫


২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা

গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা


ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ

ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ


সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া

সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া


আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড