Sunday, June 19th, 2016
‘ক্রসফায়ারের তামাশা বন্ধ করুন’
June 19th, 2016 at 4:06 pm
‘ক্রসফায়ারের তামাশা বন্ধ করুন’

ঢাকা: রাজধানীর খিলগাঁওয়ে শনিবার রাতের কথিত বন্দুকযুদ্ধে অভিজিৎ রায়সহ সাত গুপ্তহত্যায় জড়িত জঙ্গির মৃত্যুতেও তোলপাড় চলছে। দেশের শিক্ষক, লেখক, প্রকাশক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের এ ঘটনায় ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ করা অভিমতে তারা এমন ঘটনাকে ‘তামাশা’ আখ্যা দিয়েছেন।

কবি ও চলচ্চিত্র নির্মাতা মাহবুব লিলেন লিখেছেন, ‘আরেকখান ফাইল ক্লোজ। আবারো আমাদের ভরসা পুলিশেন্দ্রনাথ রচিত ক্রসফায়ারাঞ্জলি…।’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কাবেরী গায়েন লিখেছেন, ‘এখন আষাঢ় মাস। বিষয়টা আষাঢ়ে গল্প হলেই বেঁচে যেতাম। বন্দুকযুদ্ধের নামে এসব খুন মেনে নেয়া সত্যকে আড়াল করার, পালের গোদাদের ধরা-ছোঁয়ার বাইরে রাখার কৌশল যাঁরা এখনো মনে করছেন না, তাঁদের ‘নিস্পাপ মন’কে সন্দেহ করি।’

ছড়াকার ও প্রকাশক রবীন আহসান লিখেছেন, ‘একবার শুনলাম, অভিজিতের হত্যাকারীদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে, পরে শুনলাম, ওরা দেশ ছেড়ে পালিয়েছে, তাহলে ক্রসফায়ারে কাদের খুন করা হলো? মাথাটা আসলেই গেছে আমার। সমীকরণ মিলছে না কিছুতেই।’ তিনি আরো লিখেছেন, ‘জঙ্গি নেটওয়ার্কে আঘাত না করে ক্রসফায়ারের মাধ্যমে বিচারের নামে তামাশা বন্ধ করুন…।’

এর আগে প্রবাসী সাংবাদিক ফজলুর বারী লিখেছেন, ‘বিএনপির আবিষ্কার এই ক্রসফায়ারের বিরোধিতা করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছিল। আবার বিরোধীদলে গেলে আবার বিরোধিতা করবে। একবার শামীম ওসমানকে ক্রসফায়ার করতে চেয়েছিল র‌্যাব। অনুমতি না পাওয়াতে করতে পারেনি। নারায়নগঞ্জের সাত খুন ইস্যুতে শুধু তাদের লোক ধরা পড়াতে তেতে আছে র‌্যাব। তা জেনে চুপ আছেন শামীম ওসমান ! কারন তিনি জানেন এই ক্রসফায়ার শিল্পটি চালু থাকলে টুডে অর টুমরো তার ক্রসফায়ারের গল্পটিও পত্রিকার ছাপা হবে।’

আলোচ্য বন্দুকযুদ্ধে নিহত যুবকের নাম শরিফুল। ঢাকা মহানগর পুলিশের অনলাইন সংবাদমাধ্যম ডিএমপি নিউজে বলা হয়েছে, গতকাল শনিবার দিবাগত রাত পৌনে তিনটার দিকে খিলগাঁওয়ের মেরাদিয়া এলাকায় মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে শরিফুল নিহত হন। তিনি নিষিদ্ধ ঘোষিত আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সামরিক ও আইটি শাখার প্রধান ছিলেন। অভিজিৎ হত্যার তদন্তে সিসিটিভির ফুটেজে শরিফুলের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।

এর আগে মাদারীপুরে সংখ্যালঘু কলেজশিক্ষককে হত্যাচেষ্টাকালে ধৃত ১৯ বছর বয়সী ফয়জুল্লাহ ফাহিম রিমাণ্ডে থাকা অবস্থায় ‘বন্দুকযুদ্ধ’ বা ‘ক্রসফায়ার’-এ নিহত হন, একই দিন সকালে। তার মৃত্যুও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোয় ক্ষোভ ও উদ্বেগ ছড়ায়। তখন শিক্ষক, লেখক, প্রকাশক, কবি, সাংবাদিক, ভাষ্কর, চলচ্চিত্র নির্মাতাদের ‘কমন’ অভিমত ছিলো, ‘দেশে চলমান ধারাবাহিক গুপ্তহত্যার মূল হোতাদের আড়াল করতে ফাহিমকে হত্যা করেছে সরকার বা পুলিশ।’

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসকে


সর্বশেষ

আরও খবর

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ


করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু

করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু


করোনায় আক্রান্ত শচীন

করোনায় আক্রান্ত শচীন


শুক্র ও শনিবার যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে

শুক্র ও শনিবার যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে


মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, শিশুবক্তা রফিকুলসহ অন্তত ১০ জন আটক

মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, শিশুবক্তা রফিকুলসহ অন্তত ১০ জন আটক


৮ মাস পর দেশে করোনায় এক দিনে সর্বোচ্চ ৩৫৫৪ শনাক্ত

৮ মাস পর দেশে করোনায় এক দিনে সর্বোচ্চ ৩৫৫৪ শনাক্ত


শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ১৪ জঙ্গিকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড

শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ১৪ জঙ্গিকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড


শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ

শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ


গান্ধী শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন বঙ্গবন্ধু

গান্ধী শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন বঙ্গবন্ধু


করোনায় আক্রান্ত ইমরান খান

করোনায় আক্রান্ত ইমরান খান