Saturday, October 15th, 2016
কান্নাকাটি করে কোনো লাভ নেই: প্রধানমন্ত্রী
October 15th, 2016 at 9:22 pm
কান্নাকাটি করে কোনো লাভ নেই: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতা জবর দখলকারীদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, এটা জনগণের জন্য খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে, ক্ষমতা জবর দখলকারীদের কাছ থেকে গণতন্ত্রের ‘নসিহত’ শুনতে হয়।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা শনিবার বিকেলে গণভবনে আওয়ামী লীগ জাতীয় কমিটির সভায় সূচনা বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশের জনগণের জন্য এটা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক যে, অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী এবং ক্ষমতার অপব্যবহার করে দল গঠনকারীদের কাছ থেকে গণতন্ত্রের ছবক শুনতে হয়। দেশবাসীকে তাদের ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র নেই বলে যারা বিদেশীদের কাছে অভিযোগ করেছে এ দেশে তাদের কোনো স্থান নেই।

তিনি দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, ‘বিদেশীদের কাছে অহেতুক কান্নাকাটি করে কোনো লাভ নেই। যারা যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দেয়, জনগণকে পুড়িয়ে মারে, বিপুলসংখ্যক মানুষের সঙ্গে ছিনিমিনি খেলে এবং জনগণের অর্থ ও সম্পদ লুট করে অবশ্যই তাদের ধরা হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ সব লোক শুধু বেশি কথা বলতে পারে। তবে তারা জনগণের জন্য কিছুই করতে পারে না। তারা এতিমের অর্থ আত্মসাৎ করতে পারে, দুর্নীতি করতে পারে এবং অর্থ বিদেশে পাচার করতে পারে।

শেখ হাসিনা বলেন, যারা এতিমের অর্থ চুরি করেছে, আগুনে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করেছে এবং বিদেশে অর্থ পাচার করেছে, দেশের জনগণ তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছে। দেশবাসী ভবিষ্যতেও তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করবে। এটিই বাস্তবতা।

প্রধানমন্ত্রী ২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারির সাধারণ নির্বাচনের আগে ও পরে এবং ২০১৫ সালের প্রথম তিন মাসে বিএনপি-জামায়াতের সীমাহীন সন্ত্রাস ও ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর উল্লেখ করে বলেন, বিএনপি-জামায়াত সন্ত্রাসীরা শত শত মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। শিশু ও নারী কেউ রেহাই পায়নি। তারা তথাকথিত সরকার বিরোধী আন্দোলনের নামে হাজার হাজার যানবাহন আগুন দিয়ে পুড়িয়েছে ও ভাঙচুর করেছে।

শেখ হাসিনা বলেন, তার দল দেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন করেছে এবং তার ফল তারা পেয়েছেন। অথচ বিএনপির আন্দোলন ছিল মানুষ পুড়িয়ে মারা ও হত্যা করা এবং মানুষের ওপর নির্যাতন চালানো। এ কারণে তারা জনগণের কোনো সমর্থন পায়নি। উপরন্ত তারা জনগণের মধ্যে তাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।

আওয়ামী লীগ প্রধান ২২-২৩ অক্টোবরের দলীয় কাউন্সিল সম্পর্কে বলেন, আমরা আশা করি আওয়ামী লীগ কাউন্সিলে দলের ঐতিহ্য বজায় রাখবে এবং নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করবে।

শেখ হাসিনা ১৯৮১ সাল থেকে দীর্ঘ ৩৫ বছর দলের সভাপতি পদে তার দায়িত্ব পালনের উল্লেখ করে বলেন, আর কত বছর আমাকে এই দায়িত্ব পালন করতে হবে। আমি চাই, আপনারা নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করুন এবং দল সুন্দরভাবে চলবে।

প্রধানমন্ত্রী এ প্রসঙ্গে বলেন, বঙ্গবন্ধু একটি গাছের চারা রোপণ করেছিলেন। সেটি আজ বিশাল বৃক্ষ ‘মহীরুহ’র হয়েছে। এখন আপনারা নতুন চারা রোপণ করুন এবং সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করে সামনে এগিয়ে যান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকারের লক্ষ্য হচ্ছে যাতে একজন লোকও দরিদ্র, অশিক্ষিত ও ক্ষুধার্ত না থাকে এবং কেউ যাতে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ না করে এবং নারী-পুরুষ সকলেই যাতে তাদের মৌলিক অধিকার পূরণ করতে পারে তা নিশ্চিত করা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দীর্ঘ সংগ্রামের মধ্যদিয়ে বিজয় অর্জনকারী এই জাতি অবশ্যই আত্ম পরিচয় নিয়ে বাস করবে এবং অন্যদের ওপর নির্ভরশীল হবে না এ কারণেই তার সরকার শিক্ষার ওপর সর্বোচ্চ উগ্রাধিকার দিয়েছে।

দারিদ্র্য দূরীকরণে বাংলাদেশ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, বিদেশীরা এখন জানতে চায় বাংলাদেশ কিভাবে এ ধরনের সাফল্য অর্জন করেছে।

তিনি বলেন, কোন জাদু নয়, আন্তরিকতা, দেশ প্রেম, সরকারের প্রচেষ্টা এবং সর্বোপরি কর্তব্য পরায়নতাই এই সাফল্যের মূল কারণ।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তৃতায় চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সদ্যসমাপ্ত বাংলাদেশ সফরের উল্লেখ করে বলেন, এই সফর অত্যন্ত সফল ও ফলপ্রসূ হয়েছে।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: জাহিদ

 


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে


গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী


২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫

২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫


২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা

গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা


ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ

ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ


সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া

সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া


আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড