Thursday, September 27th, 2018
গণদেবতার ঠোঁট সৈনিকেরা
September 27th, 2018 at 8:05 pm
গণদেবতার ঠোঁট সৈনিকেরা

মাসকাওয়াথ আহসান: গণদেবতার ঠোঁট সৈনিক হবার পর থেকেই মোকছেদ ও তুলসির সম্ভ্রম বাড়তে থাকে সমাজে। এর ফলে গণদেবতার অন্যান্য গণ্যমান্য ঠোঁট সৈনিকদের যাতায়াত বাড়তে থাকে মোকছেদ ও তুলসির বাসায়। গণদেবতার কাছের লোক বলে সাধারণ মানুষও আসে নানা তদবির নিয়ে।

মোকছেদের মা পাড়া-পড়শির কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। মোকছেদ তার মাকে বলেছে, তুমি এখন ভি আইপি হয়েছো আর মনে রাখবে, আমরা এখন এলিট।

মোকছেদের মা এক গ্লাস পানি পড়া নিয়ে এসে মোকছেদকে খেতে বলে।

–হুজুরেরে দিয়া ফুঁ দিয়া আনছিরে মোকছেদ; কওন তো যায় না কখন কার বদ নজর লাইগা যায়।

মোকছেদ বসার ঘরে উপস্থিত অতিথিদের সেক্যুলারিজম সম্পর্কে বোঝাচ্ছিলো। মায়ের এমন পানিপড়া নিয়ে হাজির হওয়ায় বিব্রত বোধ করে।

তুলসি বাসা থেকে বের হবার সময় তার কপালে মায়ের দেয়া চন্দনের ফোটাটা অকস্মাত ব্যস্ত হয়ে মুছতে থাকে। উপস্থিত লোকজন সেটাও খেয়াল করে।

মোকছেদ পরিবেশটাকে হালকা করার জন্য বলে; মা এনেছেন; জননী-জন্মভূমিশ্চ স্বর্গাদপি গরিয়সী। সুতরাং পানিটা খাই। তবে আমি এসবে একেবারেই বিশ্বাস করিনা।

তুলসি হাঁফ ছেড়ে বাঁচে যেন। আমার কপালের চন্দনের ফোটাটাও একই ব্যাপার; আসলে আমি সেই আইজেনস্টাইনের ছবি দেখার পর থেকেই এসব রিচ্যুয়াল একেবারেই পছন্দ করিনা। বোঝেন তো একটা কম্যুনিস্ট ওরিয়েন্টেশান যেহেতু আছে; এসব কুসংস্কার মানা আমার পক্ষে অসম্ভব।

উপস্থিত লোকেরা আইজেনস্টাইন-রিচ্যুয়াল এসব শব্দ শুনে মুগ্ধ হয়ে তাকায়; ঠিক যে মুগ্ধতা কাজ করে আরবি বলা মোল্লা কিংবা সংস্কৃত বলা পুরুতের কথা শুনে।

উপস্থিত এক লোক কাঁচুমাচু করে বলে, মেয়েটার ডেঙ্গি হয়েছে; হাসপাতালে বেড পায়নি। মেঝেতে মশারি টাঙ্গিয়ে শুয়ে আছে। একটু কী হাসপাতালে ফোন করবেন মোকছেদ ভাই!

Bangladesh politics

মোকছেদ বিরক্ত হয়, সেক্যুলারিজম নিয়ে আমার আলাপটা আগে শেষ করি।

তুলসি বলে, মোদ্দা কথা হলো ধর্মকে রাষ্ট্রব্যবস্থা থেকে বিযুক্ত করতে হবে।

উপস্থিত এক লোক সরলভাবে বলে, ও দাদা তার আগে নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগটা বিযুক্ত করলে হয়না।

তুলসি ধমকে ওঠে, খবরদার সুশীলদের মতো কথা বলবেন না। সুশীলদের না আছে দেশপ্রেম; না আছে আদর্শ; তাই উন্নয়নকে হিংসা করে। খেয়াল করে দেখবেন, গণদেবতা যত উন্নয়নই করুক; সুশীলরা তার একটুকু প্রশংসা করে না।

মোকছেদ বলে, সুশীলদের দেশপ্রেমের ছাকনিতে ফেলে পরীক্ষা করে দেখেছি; তাদের জাতীয়তাবাদের ভিত্তিটা একদম পাকাপোক্ত নয়। গলদটা গোড়ায়।

উপস্থিত অতিথিরা একটা অজানা অপরাধবোধে ভুগতে থাকে। এক লোক জিজ্ঞেস করে, আমারে টিইপা-টুইপা দ্যাখবেন একটু মোকছেদ ভাই; জাতীয়তাবাদ ঠিক আছে কীনা!

মোকছেদ ডাক্তারের মতো অপলক নেত্রে লোকটার দিকে তাকায়। তারপর শূণ্য পানির গ্লাস মেলে ধরে জিজ্ঞেস করে, এই গ্লাস জলে পরিপূর্ণ; আমার এই কথায় ভরসা রাখতে পারেন!

তুলসি আমুদে আহলাদে বলে, আমি তো এক গ্লাস সমুদ্র দেখছি হে!

উপস্থিত অতিথিদের চোখে-মুখে সংশয় দেখে মোকছেদ বলে, ধর্মের ব্যাপারে সংশয় ভালো; ঐটাই সেক্যুলারিজম। আর জাতীয়তাবাদের ক্ষেত্রে সংশয় অমঙ্গলজনক।

তুলসি বলে, জাতীয়তাবাদের ক্ষেত্রে সংশয় মানেই দেশপ্রেমের অভাব।

দেশপ্রেমের অভাব কথাটা শোনার পর উপস্থিত লোকেরা তীব্র অপরাধ বোধে ভোগে। এমন অভিজ্ঞতা তাদের মসজিদে ও মন্দিরে হয়েছে। ঈমান ও ভক্তির অভাবের কথা বলে তীব্র অপরাধবোধের মর্মাঘাত করেছে যখন মোল্লা-পুরুতেরা।

ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশুর পিতা বলে, আচ্ছা বলেন তো, আমার বাচ্চাটার হাসপাতালে ট্রিটমেন্টের সঙ্গে এইসব জাতীয়তাবাদ, দেশপ্রেম, সেক্যুলারিজমের কী সম্পর্ক!

আরেক লোক জিজ্ঞেস করে, সকাল বেলা বাসা থেকে বের হয়ে অফিসে গিয়ে কাজ করবো। সন্ধ্যায় বাসায় ফিরে খেয়েদেয়ে ঘুম; এইখানে এইসব ইজম দিয়ে কী হয় ভাই!

মোকছেদ তেতে ওঠে, স্টপ ইট; মূর্খের মতো কথা বলবেন না।

এমন সময় মোকছেদের মা আবার ঘরে ঢুকে বলে, ও মোকছেদ; মসজিদে গরমে নামাজ পড়তে মুসল্লিগো কষ্ট হয়; হুজুর তোরে তদবির করতে কইছে, একটা ঠাণ্ডা যন্ত্র লাগাইয়া দিতে হবে।

মোকছেদের সেক্যুলারিজম বিষয়ক আলাপ অত্যন্ত মাতৃবিঘ্নিত হওয়ায় সে খুবই বিব্রত বোধ করে।

তুলসি পরিবেশ হালকা করতে বলে, আইজেনস্টাইন তার ব্যাটলশিপ পটেমকিন ছবিতে আপনাদের মতো অবুঝ প্রোলেতারিয়েতদের বুঝদার হয়ে ওঠার প্রক্রিয়াটা দেখিয়েছিলেন।

মোকছেদ হাতদুটো সামনে ক্যামেরার ফ্রেমিং-এর মতো করে বলে, কিংবা অক্টোবর ছবিটার কথা ভাবুন। আহা সোভিয়েত মন্তাজের কী রাজনৈতিক শক্তি।

আইজেনস্টাইনের নাম আর ব্যাটেলশিপ পটেমকিন, অক্টোবর ছবির নাম শুনে উপস্থিত শ্রোতাদের মধ্যে আবার ভরসা ফিরে আসে। যে ভরসা তারা মসজিদে আরবি বলা মোল্লা আর মন্দিরে সংস্কৃত বলা পুরুতদের প্রতি বোধ করেছিলো।

Bangladesh writer

লেখক: ব্লগার ও প্রবাসী সাংবাদিক

 


সর্বশেষ

আরও খবর

পাটোয়ারী ভিলেজ ও চাড্ডিগ্রামের ডাইহার্ডেরা

পাটোয়ারী ভিলেজ ও চাড্ডিগ্রামের ডাইহার্ডেরা


নতুন মুখের সন্ধানে: নেতা নয়, অভিনেতা !

নতুন মুখের সন্ধানে: নেতা নয়, অভিনেতা !


ছাত্রলীগের জাদুকরি বদলে যাওয়া

ছাত্রলীগের জাদুকরি বদলে যাওয়া


এমেরিকায় বিএনপির লবিস্ট নিয়োগ

এমেরিকায় বিএনপির লবিস্ট নিয়োগ


রমণীয় রিমান্ড

রমণীয় রিমান্ড


গণতন্ত্রের মাতাল হাওয়া

গণতন্ত্রের মাতাল হাওয়া


জাদুকর, কালোবেড়াল ও আয়নাবাজির গল্প

জাদুকর, কালোবেড়াল ও আয়নাবাজির গল্প


মাও সে তুং ও ক্র্যাবের জাতিস্মর

মাও সে তুং ও ক্র্যাবের জাতিস্মর


বদি দেবতা

বদি দেবতা


আরব্য রজনীর আলেয়া

আরব্য রজনীর আলেয়া