Friday, September 30th, 2016
চট্টগ্রাম বন্দরে স্মরণকালের ভয়াবহ কন্টেইনার জট
September 30th, 2016 at 11:47 am
চট্টগ্রাম বন্দরে স্মরণকালের ভয়াবহ কন্টেইনার জট

চট্টগ্রাম: কন্টেইনার পরিবহনে নিয়োজিত প্রাইম মুভার (ট্রেইলর) মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা ধর্মঘটের ফলে চট্টগ্রাম বন্দরে স্মরণকালের ভয়াবহতম কন্টেইনার জটের সৃষ্টি হয়েছে। গত পাঁচ দিনের টানা এ ধর্মঘটে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে চট্টগ্রাম বন্দর। ফলে বন্দরের আমদানি-রফতানির কন্টেনার পরিবহনে নজিরবিহীন অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ৩৬ হাজার টিইইউএস কন্টেইনার ধারণক্ষমতার বন্দর ইয়ার্ডে শুক্রবার পর্যন্ত ৪০ হাজার টিইইউএস কন্টেইনার আটকা পড়ছে।

এই পরিস্থিতির মধ্যেই ১ অক্টোবর থেকে বৃহত্তর চট্টগ্রামে পণ্যবাহী ও তেলবাহী গাড়ি চলাচল এবং ২ অক্টোবর থেকে প্রাইম মুভার, ট্রেইলর, ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, ট্যাঙ্ক লরি, বাস, মিনিবাস, টেম্পো, ট্যাক্সি, হিউম্যান হলারসহ সব ধরনের যান্ত্রিক পরিবহন অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখারও ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন। এতে চট্টগ্রাম বন্দর পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

চট্টগ্রাম বন্দরের পরিচালক প্রশাসন মো. জাফর আলম জানান, গত পাঁচ দিনের অচলাবস্থার কারণে বন্দরে ভয়াবহ কন্টেইনার জট সৃষ্টি হয়েছে। বন্দরে খালি ও পণ্যভর্তি কন্টেইনার রাখার সর্বোচ্চ ধারণক্ষমতা ৩৬,৩৫৯ টিইইউএস। সেক্ষেত্রে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বন্দরে কন্টেইনার মজুদ ছিল ৪০ হাজার টিইইউএস ছাড়িয়ে গেছে। শুক্রবার দিন শেষে তা ৪১ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে।

এ পরিস্থিতিতে সঙ্কট আরও ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে জাফর আলম বলেন, বন্দর কন্টেইনার জট স্বাভাবিক সময়েও থাকে। এর মধ্যে টানা পাঁচ দিনের ধর্মঘটের পর নজিরবিহীন জট তৈরি হয়েছে। ট্রেইলর মালিক-চালকদের লাগাতার ধর্মঘট কর্মসূচির ফলে কন্টেইনার শিপমেন্ট, ডেলিভারি এবং খালাস কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে বলে বন্দর পরিচালক জানান।

ধর্মঘটের জের হিসেবে কন্টেনার সংরক্ষণে স্থান সঙ্কুলান করা যাচ্ছে না। পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে আগামীতে এ বন্দরে কন্টেনারবাহী জাহাজ ভেড়া বন্ধ হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা ব্যক্ত করা হয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরজুড়ে ৩৬ হাজার টিইইউএস কন্টেনার ধারণক্ষমতা ছাড়িয়ে ৪০ হাজার ২শ’ টিইইউএসে উন্নীত হয়েছে।

বাংলাদেশ শিপিং এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান আহসানুল হক চৌধুরী জানান, পাঁচ দিনের ধর্মঘটে চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। রপ্তানি পণ্যের কন্টেইনার যথাসময়ে বন্দরে না পৌঁছানোয় অনেক জাহাজ খালি ফেরত গেছে। এতে মেইন লাইন অপারেটর (এমএলও) এবং শিপিং এজেন্টরা আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে। এ ধরনের পরিস্থিতি আন্তর্জাতিক শিপিং বাণিজ্যে বাংলাদেশের ভাবমূর্তির বিরূপ প্রভাব ফেলবে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি ও মেঘনা সেতু এলাকায় ওয়িং স্কেল (ওজন স্কেল) নিয়ে হয়রানির নানা অভিযোগ, যা নিয়ে প্রাইম মুভার মালিকরা দফায় দফায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোন সুফল না পেয়ে শেষ পর্যন্ত মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ব্যানারে গত সোমবার থেকে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরের পর চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ধর্মঘট পরিস্থিতি নিরসনে সার্কিট হাউসে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে নিয়ে বৈঠক আহ্বান করা হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা স্থায়ী এ বৈঠক নিষ্ফল হয়ে যায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষ থেকে আশাব্যঞ্জক কোন বক্তব্য বা সিগন্যাল না আসায়। বৈঠকে মধ্যস্থতাকারী চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক শামসুল আরেফিন জানিয়েছেন, তিনি সকল পক্ষের বক্তব্য শুনেছেন এবং মন্ত্রণালয়কে অবহিত করেছেন।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (এ্যাডমিন এ্যান্ড প্ল্যানিং) জাফর আলম এ পরিস্থিতিতে শঙ্কা প্রকাশ করে জানান, বন্দরের ইতিহাসে এমন ঘটনা আর ঘটেনি। ইয়ার্ডে কখনই কন্টেইনারের সংখ্যা ৪০ হাজার অতিক্রম করেনি। কর্মসূচি অব্যাহত থাকায় এবং এ ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত না হওয়ায় পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে ঠেকবে তা চিন্তা করাও কঠিন।

প্রতিবেদন: প্রতিনিধি, গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: প্রণব আচার্য্য, মাহতাব শফি

 


সর্বশেষ

আরও খবর

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০

ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন

২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন


ঈদের আগে চালু হতে পারে গণপরিবহন: কাদের

ঈদের আগে চালু হতে পারে গণপরিবহন: কাদের


করোনার ঝুঁকিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ঈদ শপিংয়ে ছুটছেন রাজধানীবাসী

করোনার ঝুঁকিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ঈদ শপিংয়ে ছুটছেন রাজধানীবাসী


করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ লাখ পরিবার পাচ্ছে আড়াই হাজার টাকা করে সহায়তা

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ লাখ পরিবার পাচ্ছে আড়াই হাজার টাকা করে সহায়তা


চীন-রাশিয়ার টিকা বাংলাদেশেও তৈরির পথ খুলল

চীন-রাশিয়ার টিকা বাংলাদেশেও তৈরির পথ খুলল


সায়েম সোবাহানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা, মুনিয়ার ফ্ল্যাটে পাওয়া গেছে ৬টি ডায়েরি

সায়েম সোবাহানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা, মুনিয়ার ফ্ল্যাটে পাওয়া গেছে ৬টি ডায়েরি


ভারতে টানা ৬ দিন তিন লক্ষাধিক করোনা রোগী শনাক্ত

ভারতে টানা ৬ দিন তিন লক্ষাধিক করোনা রোগী শনাক্ত