Thursday, October 17th, 2019
চার বছরে ভারতে প্রশিক্ষণ পেয়েছে এক ডজন বাংলাদেশী জঙ্গি: পুলিশ
October 17th, 2019 at 10:49 pm
চার বছরে ভারতে প্রশিক্ষণ পেয়েছে এক ডজন বাংলাদেশী জঙ্গি: পুলিশ

শরীফ খিয়াম

ঢাকা: কলকাতার শিয়ালদহ ও হাওড়া থেকে গত জুনে গ্রেপ্তার হওয়া জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) চার সদস্যের দুই সহচরসহ তিন জঙ্গিকে ঢাকায় আটক করা হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মো. ওবায়দুর রহমান বৃহস্পতিবার নিউজনেক্সটবিডিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

“বুধবার রাতে ঢাকার গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে আমাদের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট তাদের গ্রেপ্তার করেছে,” বলেন তিনি।

আটক হওয়া ‘জঙ্গিরা’ হলেন সফিকুল ইসলাম ওরফে মোল্লাজী  (৩৮),  মোস্তফা হোসেন আরিফ (২৫) এবং মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ (২৪)।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া সিটিটিসির সিনিয়র সহকারি কমিশনার (এসি) ওয়াহিদুজ্জামান নূর নিউজনেক্সটবিডিকে জানান, তাদের স্বীকারোক্তিতে ভারতে বোমা তৈরী ও অস্ত্র পরিচালনার প্রশিক্ষণ নেওয়া এক ডজন বাংলাদেশী উগ্রবাদীর পরিচয় জানতে পেরেছে পুলিশ।

২০১৩ সাল থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে তারা ঝাড়খন্ড, কেরালাসহ ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের জঙ্গিদের সাথে যৌথভাবে এই প্রশিক্ষণ নেন বলেও উল্লেখ করেন এই কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, “২০১৩ সাল থেকে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ায় ‘ভাড়া বাসা’ ছিল মোল্লাজীর। বাংলাদেশ থেকে জঙ্গিরা গিয়ে সেখানেই প্রথম আশ্রয় নিত। এরপর প্রশিক্ষণের জন্য তাদের বিভিন্ন রাজ্যে পাঠানো হতো।”

“মোস্তফাও সেখানে গেলেও আব্দুল্লাহ কখনো ভারতে যায়নি,” যোগ করেন এই সিনিয়র এসি।  

সিটিটিসি বলছে, জেএমবি সদস্য শাহিন আলম ওরফে  আলামিন, জিয়াউর রহমান ওরফে  মহসিন, জহিরুল ওরফে  মামুনুর রশিদসহ বেশ কয়েকজন জঙ্গিকে সশস্ত্র প্রশিক্ষণের দেওয়ার জন্য ভারতে নিয়ে গিয়েছিলেন মোল্লাজী।

গত জুন মাসে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের (এসটিএফ) হাতে শাহিন, মহসিন ও জহিরুল তাদের এক ভারতীয় সঙ্গীসহ গ্রেপ্তার হওয়ার পর মোল্লাজী আর মোস্তফা সেখান থেকে পালিয়ে আসে।

দেশে ফিরে তারা আব্দুল্লাহর সহায়তায় সংগঠিত হয়ে পুনরায় তাদের সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু করেন।

অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি, সশস্ত্র-পন্থায় সরকার উৎখাত এবং ইসলামি খিলাফত প্রতিষ্ঠা্র সমন্বিত পরিকল্পনা করতেই তারা ঢাকায় এসেছিলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বরাত গিয়ে এমনটা দাবি করেছে সিটিটিসি।

ডিএমপির নিজস্ব নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জঙ্গিবিরোধী এই ইউনিটের পক্ষ থেকে আরো বলা হয়েছে, “তারা প্রত্যেকেই পুরাতন জেএমবির সদস্য ছিলেল। পরবর্তীতে হোলি আর্টিজান মামলাসহ একাধিক মামলার আসামী সোহেল মাহফুজের মাধ্যমে নব্য জেএমবির দীক্ষা লাভ করেন।”

গ্রেপ্তার হওয়া তিনজনই মোবাইলের বিভিন্ন এ্যাপস ব্যবহার করে তারা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী সংগঠনের সদস্যদের সাথেও যোগাযোগ রক্ষা করছিলেন বলেও জানায় সিটিটিসি।

তাদের বিরুদ্ধে দারুস সালাম থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে জানিয়ে সিনিয়র এসি নূর বলেন, “সবার বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জে, কাছাকাছি এলাকায়।”

ভারতেই শক্তিশালী জেএমবি:

পুরানো জেএমবির আমল থেকেই জঙ্গিদের ভারতে আসা-যাওয়া ছিল উল্লেখ করে সিটিটিসির  কর্মকর্তা নূর নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “নব্য জেএমবিও বাংলাদেশের চেয়ে ভারতেই বেশী শক্তিশালী।”

নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) মো. আব্দুর রশীদ নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে বর্ধমানে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার পর ভারতে জেএমবির সক্রিয়তার বিষয়টি প্রথমবারের মতো আলোচনায় আসে। তখন থেকেই দুইদেশের মধ্যে জঙ্গি বা সন্ত্রাসবাদ বিরোধী গোয়েন্দা তথ্য আদান প্রদান অব্যাহত রয়েছে।”

“যার ফলশ্রুতিতে আমরা দুই দেশেই অনেক জেএমবি সদস্যকে গ্রেপ্তার হতে দেখেছি। এখন তারা  ভারতে না বাংলাদেশ বেশী শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে, এটা বোঝা মুশকিল। তবে এ ব্যাপারে দুই দেশের মধ্যেকার সহযোগীতা অব্যাহত রাখা উচিত,” বলেন তিনি।

ইনস্টিটিউট অব কনফিক্ট, ল অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিসের (আইসিএলডিএস) এই নির্বাহী পরিচালক আরো বলেন, “জঙ্গিরা পার্শ্ববর্তী দেশের সমমনা উগ্রপন্থীদের সাথে একাত্ম হয়ে শক্তিশালী হতে চাইবে, এটাই স্বাভাবিক।” 

সিটিটিসির সিনিয়র এসি নূর জানান, ভারতে গ্রেপ্তার হওয়া মহসিন ২০১২ সালে বান্দরবানে জেএমবির অন্তর্কোন্দলে নিহত সালমান ওরফে  তারেক হত্যা মামলার আসামি এবং জহিরুল ২০১৫ সালে ঢাকার মোহাম্মদপুরে কলেজ শিক্ষিকা কৃষ্ণা কাবেরী বিশ্বাস হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত ফেরারী। 

এক সপ্তাহে আটক ৩০ জঙ্গি:

এই তিন নব্য জেএমবি সদস্যসহ গত এক সপ্তাহে সারাদেশে কমপক্ষে ৩০ জঙ্গিকে আটক করা হয়েছে।

গত ১৩ অক্টোবর রাতে ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকা নব্য জেএমবির দুই সদস্যকে আটক করা হয়, যাদের পরিকল্পনা ও নেতৃত্বে সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে পুলিশের ওপর ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) হামলা হয়েছে।

একইদিন মেয়েদের সংগঠিত করে নাশকতার ছক পরিচালনার অভিযোগে পাবনার জেলা শহরের মনসুরাবাদ আবাসিক এলাকার থেকে ১৩ নারীসহ এক মাদ্রাসা অধ্যক্ষকে আটক করে পুলিশ।

এছাড়া ওইদিন সকালে জেলার বেড়া পৌর এলাকার থেকে আনসারউল্লা বাংলা টিমের (এবিটি) তথা আনসার আল ইসলাম বা পাঁচ জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব)।

সর্বশেষ ১৫ অক্টোবর ঢাকার সাভারের বাসস্ট্যান্ড এলাকার আরএস টাওয়ার অভিযান চালিয়ে হরকাতুল জিহাদ আল ইসলামী বাংলাদেশের (হুজি-বি) এক সদস্যকে আটক করে তারা।

এর আগে ১১ অক্টোবর বরিশালের মুলাদী উপজেলা থেকে জেএমবির দাওয়াতি শাখার এক সক্রিয় সদস্যকে আটক করে র‌্যাব।

এছাড়া ১০ অক্টোবর যাত্রাবাড়ি থেকে জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের চার সদস্যকে আটক করে সিটিটিসি, যারা বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনায় বাস্তবায়নে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল।

এ ব্যাপারে মেজর জেনারেল (অব.) রশীদের বক্তব্য, “আমাদের আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো  গোয়ন্দা নজরদারি শক্তিশালী করতে পেরেছে বলেই জঙ্গিরা সামান্য নড়াচড়া করতে গেলেই ধরা পরে যাচ্ছে।”


সর্বশেষ

আরও খবর

দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালে ফাহাদ হত্যার বিচার হবে: আইনমন্ত্রী

দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালে ফাহাদ হত্যার বিচার হবে: আইনমন্ত্রী


ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দুর্ঘটনায় রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দুর্ঘটনায় রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


সম্প্রচারের অপেক্ষায় আরও ১১ টিভি চ্যানেল: তথ্যমন্ত্রী

সম্প্রচারের অপেক্ষায় আরও ১১ টিভি চ্যানেল: তথ্যমন্ত্রী


রাঙ্গাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে: নূর হোসেনের মা

রাঙ্গাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে: নূর হোসেনের মা


বুলবুলে ১২ জনের মৃত্যু: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

বুলবুলে ১২ জনের মৃত্যু: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর


রাঙ্গা-ভাষার পাতকূয়া প্রদাহ

রাঙ্গা-ভাষার পাতকূয়া প্রদাহ


আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফিরছে মানুষ

আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফিরছে মানুষ


মুক্তচিন্তা প্রকাশের ভীতি কাটাবে লিট ফেস্ট!

মুক্তচিন্তা প্রকাশের ভীতি কাটাবে লিট ফেস্ট!


বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন খোকা

বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন খোকা


জাবিতে অভিযোগ প্রমাণ করুন, অন্যথায় শাস্তি: প্রধানমন্ত্রী

জাবিতে অভিযোগ প্রমাণ করুন, অন্যথায় শাস্তি: প্রধানমন্ত্রী