Monday, July 4th, 2022
চেয়ারম্যানের বাবার নামে ১০ টাকা কেজির চাল
October 18th, 2016 at 10:13 pm
চেয়ারম্যানের বাবার নামে ১০ টাকা কেজির চাল

বাগেরহাট: কচুয়া উপজেলার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বিলকুল গ্রামের চেয়ারম্যান নকীব ফয়সালের বাবা, ভাই ও চাচা দশ টাকা কেজির চাল পাচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কচুয়া ও মোড়েলগঞ্জ উপজেলার বনগ্রাম ও রামচন্দ্রপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে হতদরিদ্রদের নামের তালিকা তৈরির ক্ষেত্রে ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা তাদের আত্মীয়-স্বজন, দলীয়করণ, নিজ পরিবারের নামে-বেনামসহ একই পরিবোরে দুই তিনজনের নাম, সরকারি চাকরিজীবী, ভিজিডি কার্ডপ্রাপ্ত, শাসকদলের নেতাকর্মী ও বিত্তবানদের নামে তালিকা করে দশ টাকা দরে চাল বিতরণ করছে। এসব এলাকার ডিলাররা মাপেও কম দিচ্ছে। এর মধ্যে গোপালপুর ও মঘিয়াসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে চাল মাপে কম দেয়া ও রাড়ীপাড়া ইউনিয়নে কার্ড বিতরণের সময় কার্ডপ্রতি দশ টাকা আদায়েরও অভিযোগ উঠেছে।

কচুয়া উপজেলার বাধাল ইউনিয়নের এক হাজার সাতশো ৩০ জন হতদরিদ্রের নামের তালিকার মধ্যে ১ নম্বর ওয়ার্ডের বিলকুল গ্রামের ৮৭১ নম্বর সিরিয়ালে রয়েছে বর্তমান চেয়ারম্যানের বাবা সুলতান আলী নকীবের নাম। পাশাপাশি ১৩৪২ নম্বর সিরিয়ালে তার চাচা জালাল নকীবের নাম। সেই সঙ্গে চেয়ারম্যানের ভাই নকীব শহিদুল ইসলামের নাম রয়েছে ২২ নম্বর সিরিয়ালে।

এ বিষয়ে নকীব ফয়সাল বলেন, “অল্প সময়ে তালিকা তৈরি করতে যেয়ে ভুল হয়েছে।”

এদিকে বাধাল ইউনিয়নে দশ টাকা কেজি মূল্যে ভিজিডি কার্ডধারী চাল প্রাপ্তদের তালিকায় রয়েছে বিত্তবান, শাসকদলের প্রভাবশালী ও সরকারি চাকরিজীবীরা। বিলকুল গ্রামের বাসিন্দা নকীব কবির হোসেন এবং তার স্ত্রী মমতাজ বেগম তারা দুজনেই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক। এ ইউনিয়নে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ হাবিবুর রহমানের সিরিয়াল নম্বর ২১৮, যশোরদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পানবাড়িয়া গ্রামের তপন কুমার সরকারের সিরিয়াল নম্বর ৫২৯, পানবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অপর সহকারী শিক্ষক শেন ভিস্ম রঞ্জনের সিরিয়াল নম্বর ৫৪২, মসনী গ্রামের মসনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কৌশিক দাসের মা সরকারি চাকরিরত এবং স্ত্রী মিতা রানী দাস মসনীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক, তার সিরিয়াল নম্বর ১৩৮১।

আলোকদীয়া গ্রামের ডাক্তার হিমাংশু দাসের ছেলে মসনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী সুরঞ্জিত দাস সিরিয়াল নম্বর ১১৭০। বিলকুল গ্রামের আতাহার মোল্লার ছেলে বাবলু মোল্লা গ্রামীণ ব্যাংকে চাকরিরত। তার সিরিয়াল নম্বর ২২০। সাহেবালী শেখের ছেলে শেখ মোকাম্মেল হোসেন পল্লীবিদ্যুতে চাকরিরত। তার সিরিয়াল নম্বর ৪৭৯। পিংগড়িয়া গ্রামের ট্রাকের মালিক মসিউর রহমান কোটাল। তার সিরিয়াল নম্বর ৮৯১।

এছাড়া বিলকুল গ্রামের শতাধিক বিঘা জমির মালিক গৌতম কুমার দেবনাথের সিরিয়াল নম্বর ০৪। সমাজ সেবা কর্মকর্তার স্ত্রী রাশীদা বেগমের সিরিয়াল নম্বর ২২। নারায়ণ চন্দ্র দেবনাথের সিরিয়াল নম্বর ১৬। ইউপি সদস্য আ. বারেক পাইকের ছেলে সোহেল পাইকের সিরিয়াল নম্বর ১১৮। এদিকে বিলকুল গ্রামের দিনমজুর হতদরিদ্র প্রতিবন্ধী আমজাদ আলীর নাম নেই দশ টাকা কেজি দরের চালের তালিকায়।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: আবু তাহের


সর্বশেষ

আরও খবর

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


সেনাবাহিনীতে নিরপেক্ষ মূল্যায়ন চান প্রধানমন্ত্রী

সেনাবাহিনীতে নিরপেক্ষ মূল্যায়ন চান প্রধানমন্ত্রী


সমৃদ্ধ এশিয়া গড়তে পাঁচ প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

সমৃদ্ধ এশিয়া গড়তে পাঁচ প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর


ম্রো-ত্রিপুরাদের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি

ম্রো-ত্রিপুরাদের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি


দুর্নীতির দায়ে শ্রীঘরে সরকার দলীয় এমপি

দুর্নীতির দায়ে শ্রীঘরে সরকার দলীয় এমপি


মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থেকে দেশ যোজন দূরে: ড. মিজান

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থেকে দেশ যোজন দূরে: ড. মিজান


চাঁদপুরে পুকুরে প্রাইভেটকার, নিহত ৫

চাঁদপুরে পুকুরে প্রাইভেটকার, নিহত ৫


বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৫

বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৫


টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী